* দিয়াবাড়ির অস্ত্র রহস্য তিন বছর পরও অজানা           *  সততার সঙ্গে কর্মসূচি বাস্তবায়নে ডিসিদের প্রতি নির্দেশ স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর           *  দুদক চেয়ারম্যানের তলবেও হাজির হননি বাছির            *  পাসের দিক দিয়ে ৮ বোর্ডে মেয়েরা এগিয়ে           *  পাসের দিক দিয়ে ৮ বোর্ডে মেয়েরা এগিয়ে           *  ময়মনসিংহে আওয়ামী লীগের বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায়- আমু দলীয় শৃংখলা রক্ষাসহ ঐক্যবদ্ধভাবে সাংগঠনিক শক্তি আরো বৃদ্ধির তাগিদ           * ত্রিশালে বাধাগ্রস্থ উন্নয়ন রাজনৈতিক বিরোধের সুযোগে সরকারি কর্মকর্তাদের দুর্নীতি           * বাংলাদেশ অনলাইন সম্পাদক পরিষদের আহবায়ক কমিটি গঠিত           *  ধান ক্রয়ের তথ্য চাওয়ায় সাংবাদিককে ইউএনও হুমকি           * আলেমদের সহযোগিতায় জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী           * ১৫ নদী বইছে বিপৎসীমার উপরে           * শিশু ধর্ষণ চেষ্টা বাদীর কাছে টাকা নিয়ে ফাঁসছেন এসআই            * এত পরিশ্রম দুর্নীতিতে নষ্ট করবেন না: প্রধানমন্ত্রী           *  কলমাকান্দায় বন্যা পরিস্থিতি আরো অবনতি বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ           * রোগী ধরা ডাক্তার নাদিম !           * সাভারে গণধর্ষণ মামলার আসামি ময়মনসিংহে গ্রেপ্তার            * সরকারি হাসপাতালে জখমি সনদ বাণিজ্য !           * নেত্রকোনায় ধর্ষণের বিরুদ্ধে খালি পায়ে হেঁেট প্রতিবাদ            * ময়মনসিংহে ধর্ষণের অভিযোগে নারীসহ গ্রেপ্তার ২           * টাঙ্গাইলে দেবেছে রেল লাইন, উত্তরের পথে সতর্কতা          
* দিয়াবাড়ির অস্ত্র রহস্য তিন বছর পরও অজানা           * ত্রিশালে বাধাগ্রস্থ উন্নয়ন রাজনৈতিক বিরোধের সুযোগে সরকারি কর্মকর্তাদের দুর্নীতি           * নুসরাতের নিপীড়নের মামলায় অধ্যক্ষ সিরাজের বিরুদ্ধে অভিযোগগ্রহণ          

দূর্ঘটনা এখন নিত্য দিনের শরীয়তপুর-চাঁদপুর মহাসড়কের বেহালদশা

শেখ জাভেদ, শরীয়তপুর প্রতিনিধি | বুধবার, জানুয়ারী ২৭, ২০১৬
দূর্ঘটনা এখন নিত্য দিনের শরীয়তপুর-চাঁদপুর মহাসড়কের বেহালদশা

শরীয়তপুর জেলার প্রধান রাস্তা সংস্কার না করায় শরীয়তপুর-চাঁদপুরের যোগাযোগ ব্যবস্থা একেবারেই ভেঙ্গে পড়েছে। এসব পাকা রাস্তা র্দীঘ দিন ধরে সংস্কার বিহীন থাকায় সব কার্পেটিং উঠে গিয়ে বড় বড় খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে লোক চলাচলের জন্য এসব রাস্তায় এখন মানুষের জন্য পরিনত হয়েছে মরণ ফাঁদে। যা সামান্য কাজ হয়েছে তাও সাবেক ও বর্তমান প্রকৌশলী কর্মকর্তা, অফিসের  হিসাব সহকারী ও ঠিকাদারদের পকেট ভারি হয়েছে। রাস্তা তেমন সংস্কার করা হয়নি। প্রশাসনের এসব দেখার জন্য যেন কেউ নেই।

শরীয়তপুর-চাঁদপুর মহাসড়কের একটি মাত্র রাস্তায় ৩টি উপজেলার ৪৪টি ইউনিয়নের প্রায় ৬ লক্ষ মানুষের বসবাস। তৎকালীন পানি সম্পদমন্ত্রী আব্দুল রাজ্জাকের ১৯৯৬ সালে প্রায় ৪০ কিলোমিটার রাস্তাটি শরীয়তপুর-চাঁদপুর মহাসড়ক নির্মাণ করা হলে, বৃহত্তর ফরিদপুর অঞ্চলের ও বৃহত্তর বরিশাল অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থা শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার ইব্রাহিমপুর ফেরী ঘাট দিয়ে চাঁদপুর, লক্ষীপুর, রায়পুর, নোয়াখালী, ফেনী, কুমিল্লা ও চট্রগ্রাম জেলা সহ রাজধানী’র সাথে সরাসরী যোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপিত হয়। এছাড়া এই শরীয়তপুর মহাসড়ক গুলো দিয়ে অল্প সময়ের জন্য রাজধানীতে কৃষিপন্য ও ব্যবসা বানিজ্য সহ মানুষের নিত্য দিনের কাজ গুলো দ্রুত করার জন্য এই রাস্তাটি ব্যবহার করা হয়।

উপজেলা গুলোর উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মহা-সড়কটির রাস্তা এতটাই খারপ যে, কেউ রাস্তা দিয়ে একবার গেলে দ্বিতীয় বার আর যেতে চান না। কিন্তু বিভিন্ন জেলা থেকে ছেড়ে আসা পরিবহন ও মালবাহী ট্রাকগুলো বাধ্য হয়ে এই রাস্তা দিয়ে যেতে হয়। এতে করে প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনা ঘটছে। তবে নিত্যদিনের যারা চাকুরি জীবী, অফিস গামী ও ছাত্র-ছাত্রীদের বিকল্প কোন রাস্তা না থাকায় এ রাস্তাটিই ব্যবহার করতে হয়, তবে ভুক্তভোগি ছাড়া বোঝার কোর উপায় নাই। তাদের মুখে শুধু হতাশার চিত্র ফুটে উঠে। এমপির এলাকা হলেও ভেঙ্গে পড়া খনা-খন্দে ভরা পাকা রাস্তাটি কবে সংস্কার করা হবে তা কেউ জানে না।

সরোজমিন ঘুরে দেখা যায়, আংগারিয়া বাজার, মনোহর বাজার, রুদ্রকর, বালার বাজার, আমিন বাজার, বুড়িরহাট, পাপরাইল, সাজনপুর, ভেদরগঞ্জ, কাশেমপুর, নারায়ণপুর, মোল্লার হাট, ডি-এম খালী, সখিপুর বালারবাজার সহ বিভিন্ন রাস্তায় দেখা যায় খনা-খন্দে ভরা পাকা রাস্তাটি। স্থানিয়রা অভিযোগ করে, এই একমাত্র চলাচলের রাস্তাটি সংস্কারের অভাবে বোঝার কোন উপায় নাই যে, এখানে কোন পাকা রাস্তা ছিল না কাঁচা রাস্তা ছিল।  
উল্লেখ্য, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক পানি সম্পদমন্ত্রী আব্দুল রাজ্জাক ১৯৯৬ সালে এই রাস্তাটি চলাচলের জন্য উদ্বোধন করেন। পরবর্তীতে বিএনপি’র সময়ে ২০০১-০৬ সাল পর্যন্ত নামে মাত্র কাজ হয়েছিল। এরপর আওয়ামীলীগের ১ মেয়াদে এসে রাস্তাটি সংস্কারের কাজ করা হয়েছিল। কিন্তু বর্তমান আবারও সরকারের সময়ে যে নাম মাত্র সামান্য কাজ হয়েছে তাও ঠিকমত সংস্কার না করে সংশ্লিষ্ট সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের প্রকোশলী কর্মকর্তা ও ঠিকাদারদের পকেট ভরার উন্নয়ন হয়েছে। ফলে মহাসড়কটির সংস্কার বেশি দিন টিকেনি। কিন্তু অতি দুঃখের বিষয় দীর্ঘ দিনেও ভাল ভাবে এক মাত্র এই মহাসড়কটির কোন সংস্কার কাজ না হওয়ায় আজ বেহাল দশা হয়ে মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে।

এ ব্যপারে শরীয়তপুর নির্বাহী প্রকৌশলী (স ও জ) সড়ক বিভাগের কর্মকতা মিন্টু রঞ্জন দেবনাথ বলেন, ইতিমধ্যে এ রাস্তার জন্য বরাদ্দ এসেছে সুতরাং অতি দ্রুত মেরামতের কাজ শুরু করা হবে। সাবেক   প্রকৌশলী কর্মকর্তা, অফিসের হিসাব সহকারী ও ঠিকাদারদের পকেট ভারি হওয়ার কারণে রাস্তার কাজ ভাল হয়নি এ বিষয়টি জানতে চাওয়া হলে তিনি উক্ত বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

urume





আরও পড়ুন



১. প্রধান উপদেষ্টা ঃ এড. সাদির হোসেন (হাইকোর্ট আইনজীবি)
২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close