* ঘূর্ণিঝড় ‘দেয়ি’ : ৩ নম্বর সঙ্কেত বহাল            * নূপুর আছে মরিয়ম নেই, রাজহাঁসের বুকের ২ টুকরা মাংস নেই           * বাকৃবিতে কর্মকর্তা কর্মচারীদের বিক্ষোভ           * বিসিএস উত্তীর্ণ মেয়েকে উদ্ধারে থানার সামনে অবস্থান বাবা-মায়ের           * ক্লান্ত মাশরাফিদের সামনে সতেজ ভারত           * নিউইয়র্কের উদ্দেশে সকালে ঢাকা ছাড়ছেন প্রধানমন্ত্রী           *  প্রতারক কামাল-মাসুদ এর বিরুদ্ধে চার মামলা            * হালুয়াঘাটে পুলিশের হাতে ফের আটক-৬           *  ঝিনাইগাতীতে বাবা শ্রেষ্ঠ শিক্ষক মেয়ে সেরা শিক্ষার্থী           * ভারত থেকে প্রশিক্ষন প্রাপ্ত ২০ টি ঘোড়া আমদানী           *  ফুলপুরে ৭৭ জন ভিক্ষুকের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ            * কেন্দুয়ায় নারী বিসিএস ক্যাডারকে অপহরণের অভিযোগ           * মাদ্রাসায় জোড়া খুন: পরিচালকের বিরুদ্ধে মামলা           * তরুণীরা আবেদনময়ী সেলফি তোলেন কেন?            * মাথাপিছু আয় বেড়েছে ১৬,৩৮৮ টাকা           * সৌন্দর্যের গোপন রহস্য জানালেন শ্রীদেবীর মেয়ে            * নবনিযুক্ত দুই রাষ্ট্রদূতের রাষ্ট্রপতির কাছে পরিচয়পত্র পেশ           * শ্রীলঙ্কার দুর্দিন দেখে অবসর ভেঙে ফেরার ইঙ্গিত দিলশানের            * স্মার্টফোনের আসক্তি কাটানোর নয়া অস্ত্র           * আলোচনায় বসতে মোদিকে ইমরানের চিঠি          
* ঘূর্ণিঝড় ‘দেয়ি’ : ৩ নম্বর সঙ্কেত বহাল            * বাকৃবিতে কর্মকর্তা কর্মচারীদের বিক্ষোভ           * বিসিএস উত্তীর্ণ মেয়েকে উদ্ধারে থানার সামনে অবস্থান বাবা-মায়ের          

শরীয়তপুরে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বিপাকে এসএসসি পরিক্ষার্থীরা

শেখ জাভেদ,শরীয়তপুর প্রতিনিধি: | শনিবার, জানুয়ারী ৩০, ২০১৬
শরীয়তপুরে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ
বিপাকে এসএসসি পরিক্ষার্থীরা

শরীয়তপুরে অবৈধভাবে পিডিবি-র শুধুমাত্র আওতাধীন পৌরসভা বা জেলা শহরের জন্য বরাদ্দকৃত বিদ্যুৎ এখন পল্লী বিদ্যুৎ এলাকায় সরবারাহ করছে এক শ্রেণীর অসাধু কর্মকর্তারা। এতে করে বিপাকে পড়েছে পৌরবাসী ও এসএসসি পরিক্ষার্থীরা। কিন্তু একথা মানতে রাজি না শরীয়তপুর পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল ওয়াহাব।

অনুসন্ধানে জানা যায়, শরীয়তপুর সদরের বেশ কিছু ইউনিয়নে বর্তমানে পিডিবি ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোং লিঃ বা ওজোপাডিকো এর অধীনে প্রায় ৫ টি গ্রামে কয়েকশত অবৈধ সংযোগ দেওয়া হয়েছে। ফলে শীতের মৌসুমেও প্রায় প্রতিদিনে ৫/৭ বার করে লোডশেডিং সহ নানা ধরনের সমস্যা দেখা দিয়েছে। এতে করে ভোগান্তিতে পড়েছে শরীয়তপুর পৌরবাসী।

তবে অবৈধ সংযোগের একথা বার বার অস্বিকার করছেন শরীয়তপুর পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী। এতে করে ভোগান্তিতে পরেছেন এসএসসি পরিক্ষার্থী সহ নানা শ্রেণী পেশার মানুষ। এই পিডিবি-র ব্যবস্থাপনার আওতায় শরীয়তপুর পৌর এলাকার আঙ্গারিয়া, রাজগঞ্জ, আটং ও শরীয়তপুর টাউন ফিডার এর মাধ্যমে শরীয়তপুর জেলা সদরে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয়।

এই ফিডারগুলোর মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিভাগের এক শ্রেণীর অসাধু কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সহায়তায় শহরের বিদ্যুৎ সংযোগ চলছে ইউনিয়ন গুলোতে। ফলে বাড়তি লোড সামলাতে না পেরে দিনের পুরো সময় প্রায় ৫/৭ বার করে লোডশেডিং সহ ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে পৌরবাসীদের।

পৌর গ্রাহকরা অভিযোগ করে বলেছেন, বিদ্যুৎ বিভাগের অসাধু লাইন ম্যান ও তার সহযোগীরা গত ১ থেকে ২ বছরে অন্তত কয়েক শতাধীক অবৈধ সংযোগ দিয়ে রেখেছে ও লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। ইতিমধ্যে অবৈধ বিদ্যুৎ সরবরাহ করার অপরাধে কোন কোন লাইন ম্যান কারাভোগও করেছিল।

অবৈধ ভাবে ১ থেকে ৩ কি.মি. দূরে পৌরসভার বিদ্যুৎ ইউনিয়নে পল্লী বিদ্যুৎ এলাকায় সংযোগ দেওয়ায় বর্তমানে শীতের মৌসুমেও ভোগান্তি হচ্ছে। প্রতিদিন প্রায় ৫ থেকে ৭ বার বিদ্যুৎ চলে যায় সরবরাহকৃত অবৈধ লাইনের কারণে। আর ব্যাটারি চালিত অটো চার্জের কারনে এই ভোগান্তি আর বাড়ছে।
সরেজমিনে দেখা যায়, আঙ্গারিয়া ফিডার থেকে ১কি.মি. দূরে কাশিপুর গ্রামের বাঁশের খুটির সাহায্যে জয়নাল বেপারী, সবুজ বেপারী, আবুল আলেম সা, আতাউর সা, সলেমান চোকদার, নুরুল ইসলাম রাড়ি, শাজাহান শিকদার, মোতালেব চৌকিদার, রহমান মোল্লা, ইউসুফ আলি মোল্লা, নুরু বেপারীর বাড়ি সহ প্রায় ৫০ থেকে ৬০ টি ঘড়ে এই অবৈধ লাইন চলছে। এছাড়া আঙ্গারিয়া ফিডার থেকে ৩ কি.মি. দূরে ২ টি মিটার স্থাপন করে শতাধীক লোককের বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে। এই ২ টি মিটার থেকে ঝুঁকিপূর্ণ বাঁশের খুটি ও খেজুর গাছ ও কড়ই গাছের সাথে তার টানিয়ে প্রায় ৬০ থেকে ৭০ টি বাড়িতে অবৈধ সংযোগ চলছে। প্রতিটি সংযোগের বিনিময়ে ২৫ থেকে ৪০ হাজার টাকা নিয়ে এই অবৈধ সংযোগ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া আরো, আটং ফিডার থেকে পূর্ব কাগদী গ্রামে প্রায় ৩০/৪০ টি বাড়িতে এই অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে। এছাড়া রয়েছে পৌর এলাকার বাহিরে রুদ্রকর, চিতলিয়া, তুলাসার ও পালং ইউনিয়নে অবৈধ ভাবে কয়েকশত লাইন দেওয়া চলছে।
কাশিপুর গ্রামের নুর মোহাম্মদ বলেন, আমাদের এলাকায় দীর্ঘ দিন যাবৎ এই বিদ্যুৎ লাইন চলছে। ভাই আমরাতো কিছুই জানিনা। আমরা প্রতি মাসে বিদ্যুৎ বিল দিচ্ছি। লাইন অবৈধ হলে ইউনিয়নে আসলো কিভাবে।
দাদপুর গ্রামের শাহিন খাঁ বলেন, আমরাতো প্রতি মাসে বিল দিতাছি। এইযে বিলের কাগজ। এটি অবৈধ কিনা বুজবো কিভাবে। কিন্তু দিনে অনেক বার কারেন্ট যায় আসে।
শরীয়তপুর পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল ওয়াহাব অবৈধ লাইনের কথা মানতে রাজি না হয়ে বলেন, বিভিন্ন সমস্যার কারণে লোড শেডিং হতে পারে। এ বিষয়ে আর কিছু বলতে চান না তিনি।





আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close