* ট্রেন দুর্ঘটনা দেখতে এসে চাচা-চাচির লাশ পেলেন শাহাদৎ            *  হঠাৎ বিকট শব্দে ঘুম ভাঙে ট্রেন যাত্রীদের            * অন্যের স্ত্রীকে ভাগিয়ে বিয়ে করা সেই মেয়রের সম্পদ আর সম্পদ            * হাজার বছরেও বঙ্গবন্ধুর জন্ম হবে না : নাসিম            * মিলনের সময় পূর্ণ তৃপ্তি পেতে কি করবেন?           * অধ্যাপকের ব্যাগে মিলল প্রেমিকার কাটা হাত-পা           * বাবার কাছে এখনও পৌঁছানো যায়নি 'বুলবুলি'র খবর           * ধুলো ঝেড়ে পাওয়া যাচ্ছে সোনা!           * যে কারণে বয়স লুকায় নারীরা           * র‌্যাংকিংয়ে ঢুকেই গেইল-ধোনিকে পেছনে ফেললেন নাঈম           * হোটেলে গোপন বৈঠকে বোরকা পরে যোগ দেন তুরিন           * জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা           * দুপুরে পেট ভরে ভাত খান, ওজন বাড়বে না যদি মানেন এই নিয়ম           *  চার্জার লাইটের ভেতরে মিলল ৮ কেজি স্বর্ণ            * বাসাবোর পর ফকিরাপুলে ট্রাভেল এজেন্সিতে র‌্যাবের অভিযান           * পুরুষ সেজে কিশোরীকে বারবার ধর্ষণ, মামলার পর গোমর ফাঁস           * একটু ভুঁড়িওয়ালা পুরুষকেই বেশি পছন্দ করেন নারীরা!           * অবশেষে আটক হলো সেই মহিষটি           * শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে উত্তাল বাকৃবি, কর্তৃপক্ষকে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম            * ময়মনসিংহে শুরু হচ্ছে করমেলা           
* পার্টিতে দূষিত রক্ত আর চাই না, বের করে দেব           * এস ফোর হান্ড্রেড’ নিয়ে তুরস্ককে ফের যুক্তরাষ্ট্রের হুমকি           * রোহিঙ্গারা গোটা অঞ্চলের জন্যই হুমকি: প্রধানমন্ত্রী          

কুষ্টিয়ায় সংগ্রহ অভিযান গম কৃষকের সরবরাহ করছেন সাংসদ

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | বৃহস্পতিবার, জুন ৯, ২০১৬
কুষ্টিয়ায় সংগ্রহ অভিযান
গম কৃষকের সরবরাহ করছেন সাংসদ
 কুষ্টিয়ায় সরকারী গম সংগ্রহ অভিযান প্রায় শেষ পর্যায়ে। কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি গম ক্রয়ের নিয়ম থাকলেও চলতি বছর কুষ্টিয়ার অধিকাংশ গুদামে কৃষি সহায়ক কার্ডধারীরা গম বিক্রির জন্য সরকারী খাদ্য গুদামের ধারে কাছেও যেতে পারেননি। কৃষকদের গম সরকারী গুদামে সরবরাহ করছেন স্থানীয় সাংসদ, ক্ষমতাশীন দলের নেতা ও গম ব্যবসায়ীরা। ফলে গমের ন্যায্য মুল্য হতে বঞ্চিত হচ্ছেন সাধারণ কৃষকরা। এতে গম চাষে আগ্রহ হারাচ্ছেন তারা।
কুষ্টিয়া খাদ্য অফিস সুত্র জানিয়েছে, চলতি মৌসুমে জেলায় সরকারি ভাবে কেজি প্রতি ২৮ টাকা দরে কুষ্টিয়া জেলায় গম সংগ্রহ অভিযানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয় ৭ হাজার ৫’শ ৭৭ মেট্রিক টন। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশী গম ক্রয় করা হচ্ছে দৌলতপুরে ২ হাজার ৬’শ ৪৮ মে. টন। সদর উপজেলায় ১ হাজার ১’শ ২৫ মে. টন, কুমারখালীতে ১ হাজার ৬’শ ১০ মে. টন, খোকসায় ৬’শ ১২ মে. টন, মিরপুরে ৬’শ ১২ মে. টন ও ভেড়ামারায় ৯’শ ৭০ মে. টন। নীতিমালা অনুযায়ী কৃষি উপকরণ সহায়তা কার্ড রয়েছে এমন কৃষকরা কার্ড দেখিয়ে ৫০ কেজি থেকে ৩ টন পর্যন্ত গম খাদ্যগুদামে বিক্রির নিয়ম থাকলেও সিন্ডিকেট চক্রই সরবরাহ করছেন লক্ষ্যমাত্রার গম।
দৌলতপুর খাদ্য গুদামে গিয়ে দেখা যায়, বিক্রয়ের অপেক্ষায় দাড়িয়ে আছে সারি সারি গম বোঝাই ট্রাক ও নসিমন। কিন্তু দেখা নেই গমের মালিক কৃষকের। লাইনে দাড়িয়ে থাকা নসিমন চালক বাদল জানালেন গমের মালিক স্থানীয় সাংসদ রেজাউল হক চৌধুরী। এমপির বাড়ি থেকে ১২০ বস্তা করে মোট ৫টি নসিমনে ৬’শ বস্তা গম নিয়ে গুদামে এসেছেন। নসিমন চালক বাদল আরো জানান, গত কয়েক দিন ধরেই তারা এমপির গম নিয়ে এসে গুদামে আনলোড করছেন। দিনাজপুর, মেহেরপুর ও বামুন্দির কয়েকটি গুদাম থেকেও গম নিয়ে আসা হয়েছে। গম’র মালিক স্থানীয় এমপির ভাই ও প্রভাবশালী শামসুল।
গুদামজাত করার অপেক্ষায় থাকা গমের বস্তায় রয়েছে খাদ্য অধিদপ্তরের সিল। সেখানে কোন কৃষক না থাকলেও গুদামের ভিতরে পাহারায় রয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের ক্যাডার বাহিনী। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, স্থানীয় সাংসদ রেজাউল হক চৌধুরীর ভাই টোকন চৌধুরী ও এলাকার প্রভাবশালী শামসুল বিভিন্ন স্থান থেকে নিম্নমানের গম কিনে সরকারী গুদামে সরবরাহ করছে। দৌলতপুর উপজেলা খাদ্য অফিসারে রুমে গিয়ে দেখা যায় উজ্জল নামের এক ব্যক্তি বসে আছেন। কথা হলে তিনি নিজেকে কৃষক বলে দাবি করেন। তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উজ্জল আসলে এমপির ভাই টোকন চৌধুরীর ক্যডার। কোন কৃষক গম নিয়ে যেন গুদামের ঢুকতে না পারে তার দ্বায়িত্বে আছেন ক্যডার উজ্জল।
কৃষক শুকুর আলী জানান, তালিকায় নাম থাকার পরও আমাদের গম সরকারী গুদামে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। নেতারা বলেছেন তোর কার্ড আমাদের কাছে দিয়ে মিষ্টি খাওয়ার টাকা নিয়ে যা। আমাদের ছাড়া কোন গম গুদামে ঢুকবে না।
স্থানীয় এমপির ভাই টোকন চৌধুরী বলেন, আমরা পলিটিক্র করি। আমরা কিছু করলেও দুর্নাম হবে, না করলেও দুর্নাম হবে। আর দল চলাতে হলেও কিছু টাকার দরকার হয়।
উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা আবুল কালাম জানান, সরকারী নীতিমালা অনুযায়ী কৃষি উপকরণ সহায়তা কার্ড রয়েছে এমন কৃষকরা কার্ড দেখিয়ে গুদামে গম সরবরাহ করছে। এমপির বাড়ি থেকে গম আসছে নসিমন চালকের এমন বক্তব্যে খাদ্য কর্মকর্তা জানান, ওরা হয়ত জানে না। যেখান থেকে মাল লোড করছে সেখান থেকে এমপির বাড়ির সামনে দিয়ে আসতে হয়, তাই ওরা মনে করেছে গম এমপির বাড়ি থেকে এসেছে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৗফিকুর রহমান জানান, এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে আমরা সরজমিনে গিয়ে কোন অনিয়ম দেখলে অবশ্যয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। নিয়মের বাইরে কোন কিছুই হতে দেয়া হবে না।
এ ব্যাপারে স্থানীয় এমপি রেজাউল হক চৌধুরীর ০১৭১৬-০২৬৪৭৫ নম্বার সেল ফোনে যোগাযোগ করলে তার ভাতিজা ফোন রিসিভ করে জানান, চাচা অসুস্থ্য, এখন কথা বলতে পারবে না।
কুমারখালী উপজেলা খাদ্য গুদামে গিয়ে কয়েক ট্রাক গম দেখা যায়। এর মধ্যে একটি ট্রাকের চালক সেলিম জানান, তার ট্রাকের গম দিনাজপুর থেকে আনা হয়েছে। গমের মালিক কুমারখালীর স্থানীয় এক গম ব্যবসায়ী। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, স্থানীয় উপজেলা চেয়ারম্যান কমিশন নিয়ে পছন্দের লোকদের দিয়ে এসব গম করছেন। শুধু দৌলতপুর ও কুমারখালী নয়, জেলার অপর ৩ উপজেলা ভেড়ামারা, মিরপুর ও খোকসায় গম ক্রয়ে একই ধরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।




আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close