*  মাদারীপুরে স্পিডবোট ডুবি, তিন যাত্রীর লাশ উদ্ধার           * ভোট পেছানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ           *  গাজায় প্রবেশ করে ইসরায়েলি বাহিনীর হামলা, নিহত ৭           *  বগুড়ায় নৌকা চান অপু           *  ফরিদগঞ্জে হত্যা মামলায় পিতা-পুত্রের যাবজ্জীবন           * খেলায় মনোযোগ দাও, সাকিবকে প্রধানমন্ত্রী           * ধেয়ে আসছে ‘গাজা’, ২ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত           * দরজা খুলতেই নওয়াজ ঝাঁপিয়ে পড়েন           * তিন উইকেট হারিয়ে লাঞ্চ বিরতিতে বাংলাদেশ           * অনাহারে নয়, সমৃদ্ধির পথে এগোবে ইরান           *  জানুয়ারির আগেই রাজশাহী হবে পলিথিনমুক্ত           * দেশের দীর্ঘতম রেলপথ চালু, আন্তঃনগর ট্রেন পেল পঞ্চগড়           *  নকিয়ার ছয় ক্যামেরার ফোন           *  একাদশে মোস্তাফিজ, অভিষেক হতে পারে মিঠুনের           * ভ্রু কাঁপানো সেই প্রিয়াকে নিয়ে হুলুস্থুল কাণ্ড            * আফ্রিদি-ফাখরের কাছে উড়ে গেল নিউজিল্যান্ড            * গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখার আহ্বান রাষ্ট্রপতির            * যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে নারীর অবস্থান কোথায়?           * নির্বাচন নিয়ে কারো হতাশা থাকার কথা নয়: কাদের           * মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু          
* খেলায় মনোযোগ দাও, সাকিবকে প্রধানমন্ত্রী           * ধেয়ে আসছে ‘গাজা’, ২ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত           * দরজা খুলতেই নওয়াজ ঝাঁপিয়ে পড়েন          

ফরিদপুরে রেলের সম্পত্তি দখল করে গড়ে উঠেছে মাদকের স্বর্গরাজ্য

ফরিদপুর প্রতিনিধি ঃ | রবিবার, জুন ১৯, ২০১৬
ফরিদপুরে রেলের সম্পত্তি দখল করে
গড়ে উঠেছে মাদকের স্বর্গরাজ্য

 ফরিদপুরে বাংলাদেশ রেলওয়ের অসংখ্য পড়ে থাকা সম্পত্তি ও কোয়ার্টার দীর্ঘদিন ধরে দখল হয়ে রয়েছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কয়েকবার এই অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদের চেষ্টা করেও রহস্যজনক ভাবে থেমে যায়।

রেল স্টেশন সংলগ্ন লক্ষ্মীপুর ও ২নং হাবেলী গোপালপুরস্থ রেল ওয়ের অব্যহারিত ফাকা জমি ও ফরিদপুর রেলের অফিসার্স ও স্ট্যাফদের উন্নতমানের ভবন ও কোয়ার্টার প্রায় ২০ বছর ধরে দখল হয়ে রয়েছে। এসব সরকারি কোয়াটার অনেকে দখল করে বিভিন্ন ভাবে ভাড়া দিয়ে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে দীর্ঘদিন ধরে।

আবার অনেকে বহুতল ভবন নির্মাণ করেছে রেলের জমিতে। সংশ্লিষ্ট এলাকাবাসী রেলের অবৈধ দখলদারদের অত্যাচার ও মাদকের স্বর্গরাজ্য থেকে রক্ষায় সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
সরোজমিনে গিয়ে জানা যায়, ফরিদপুরে কর্মরত রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের কাছে রেলের সম্পত্তির বিস্তারিত তথ্য নেই। তবে আশেপাশের জনগন জানিয়েছেন, ১৯৯২ সালের দিকে এ ষ্টেশনটি বন্ধ হয়েছিল।

বন্ধ হওয়ার পর এখানে পরেছিল রেলের বগি, রেল লাইনসহ অসংখ্য রেলে যন্ত্রপাতি। ফরিদপুরবাসীর সাধারণ মানুষের দাবীর প্রেক্ষিতে ফরিদপুরের উন্নয়নের রূপকারখ্যাত এলজিআরডি মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন এমপি অনেক প্রচেস্টায় ফরিদপুরে পুনরায় রেল চালাচলকে সচল ও স্টেশনকে আধুনিক মানের করে গড়ে তুলেছেন। সেই স্টেশনটি যথাযথ পরিচর্যা ও সংলগ্ন রেলের সম্পত্তি অবৈধ দখলমুক্ত করার ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষ কেন উদাসীন তা এলাকাবাসীকে নানা প্রশ্নে ফেলেছে।

    নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক এলাকাবাসী জানান, স্থানীয় ভাবে প্রভাবশালী ও বিভিন্ন মাদক ব্যবসার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ এখানে দখল করে  রেলের জমি আর ঘরবাড়ি।  মাদক ব্যবসায়ী লাকি, বাবু ও নাজমুল একই পরিবারের তিন সদস্য গড়ে তুলেছে মাদকপল্লী। পাশাপাশি মক্ষিরাণিও বনে যায় আল্পদিনে।

লাকি নিজের স্বার্থ চরিতার্থ করতে একটি কিল্ডার গার্টেন স্কুল করে সরকারী লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে স্কুলটি বন্ধ করে দেন। মহলটি একে একে রেলের অসংখ্য বাড়ি দখল করতে থাকে। এক পর্যায়ে রেলের সব বাড়ি তাদের কব্জায় এসে যায়। নিজেরা থেকে তাদের সুবিধা মতো লোকদের কাছে বাড়ি গুলি ভাড়া দেয়।

সঙ্গবদ্ধ দলটি রেলের পুরোনো গাছপালা ও জমি বিক্রি করতে থাকে। কাগজ ছাড়াই রেলের জমির দখলদারি বুঝিয়ে দিয়ে বিপুল অংকের মালিক হয়েছেন। রেল স্টাফদের জন্য তৈরী অসংখ্য বাড়ি মাসিক হারে ভাড়া দেওয়া হয় হয়েছে।

লাকি ও তার সাঙ্গ পাঙ্গরা এলাকটিতে গড়ে তুলে মাদকের স্বর্গ রাজ্য। কেউ প্রতিবাদ করলেই তার উপর খড়ক নামে। মাদকের প্রতিবাদ করায় গত বৃহস্পতিবার রাতে ৮ নং ওয়ার্ডের স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি বিল্লাল হোসেন মৃধাকে লাঠি ও কুপিয়ে মারাতœক জখম করা হয়। সে এখন ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

এ ব্যাপারে বিল্লাল বলেন, আমি মাদক ব্যবসায়ীদের মাদকের ব্যবসা ও চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায়  লাকি, বাবু, নাজমুল তাদের সহযোগীদের নিয়ে আমার উপর হামলা চালায়।
এলাকার সাহানা বেগম বলেন, আমি লাকি ও বাবুর বাড়ির পাশের ঘরে থাকি। আমার নাতি সাথে সামান্য কথা কাটি হওয়ায় বয়স্ক মেয়েকে অমানুষিক ভাবে মারধর করে। এখন সে চরম ভাবে অসুস্থ্য রয়েছে।
আলী নামের এক ব্যাক্তি জানায়, রেলের একটি ঘর ভাড়ি নিয়ে সে ঘরে দোকান করছে। হীরা নামের এক গৃহিনী বলেন, দলটির কাছ থেকে ৩৫ হাজার টাকায় তাদের বসবাসের জন্য রেলের জমির উপর গড়ে তোলা একটি ঘরের পজিশন নিয়েছে।
তোতা নামের এক প্রবাসী জানায়, তিন বছর আগে রেলের পাশে একটি মালিকানা জমি সে ক্রয় করেছে।  জমির পাশ দিয়ে রেলের পথ। এখন সে তার জমিতে বাড়ি করছে। কিন্তু দলটি তার কাছে এক লাখ টাকা দাবী করেছে। টাকা না দিলে তাদের ঐ রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে দেওয়া হবে না বলে হুমকি দিয়েছে। এখন তাদের হুমকির কারনে নিজের তিল তিল করে গড়া বাড়িতে উঠতে পারছে ন্।া
    ফরিদপুর পৌরসভার  ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলার নাফিজুল হাসান তাপস জানান, এদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগগুলো সত্য। আমি ইতিপূর্বে এদেরকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে সর্তক করেছি, কিন্তু তারা আমার কথা কর্ণপাত করেছি।

এরা পুরো এলাকাটিকে মাদকের বিশেষ সিন্ডিকেট হিসেবে গড়ে তুলেছে। এলাকার সাধারণ মানুষ এদের হাত থেকে যুব সমাজকে রক্ষায় প্রতিকার ব্যবস্থার আহ্বান জানিয়েছেন।

ফরিদপুর রেল ষ্টেশন মাষ্টর মো. তুর্কি জানায়, জীবনে আমি একটিই পরিবার দেখলাম যে পরিবারটির সকলের মাদকের ব্যবসা ও মাদক সেবী। রেলের জমি বিক্রি করছে আমি জানি আবার বাড়িঘর ভাড়া দিয়ে খাচ্ছে এটাও জানি। তারা সন্ত্রাসী তাই আমি ভয়ে কিছুই বলতে পারছি না। কথিত রয়েছে রাজবাড়ির রেল বিভাগের কিছু কর্মকর্তার সাথে ঐ মহলটির রহস্যজনক সম্পর্ক্য রয়েছ। একারনে তারা বহাল তবিয়তে আছে আর আমরা রেলের কর্মকর্তা ও কর্মচারী হয়ে খোলা আকাশে রয়েছি।





আরও পড়ুন



সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close