*  প্রধান শিক্ষকের সাথে ৫ম বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে সহকারী শিক্ষিকা           *  স্ত্রী-সন্তানসহ ওমর ফারুকের ব্যাংক লেনদেন স্থগিত           * নবী প্রেমীদের মহাসমাবেশ গফরগাঁওয়ে            * স্বামী স্ত্রী মিলন ইসলামে হারাম যে সময়ে           * স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিককে ‍তিন টুকরো করল স্বামী!           * বাসের মধ্যেই স্বামী-স্ত্রীর লঙ্কাকাণ্ড!            * পরীবাগে বিভিন্ন প্রজাতির বন্যপ্রাণীর ২৮৮টি ট্রফিসহ চামড়া উদ্ধার           * আন্দোলনে নেই মাশরাফি!           * সাকিবদের ধর্মঘট নিয়ে যা বললেন সৌরভ গাঙ্গুলি           * ট্রাম্পকে মাটিতে ফেলে মুখে পা দিয়ে চেপে ধরলেন তিনি!            * নতুন যাত্রা শুরু করতে হবে: ওমর ফারুক           * ফেসবুকের বিষয়টি বিশেষজ্ঞের কাছে পাঠানো হয়েছে: ডিআইজি           * ট্রলার পোড়ার ঘটনায় আদালতে মামলা           * নেত্রকোনায় তৌহিদী জনতার বিক্ষোভ মিছিল প্রতিবাদ সমাবেশ           *  পিরোজপুরের আমেনার মৃত্যুর জন্য কে দায়ী ?           * বাংলা একাডেমী ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সাহিত্যিক খালেক দাদ চৌধুরী’র মৃত্যু-বার্ষিকী উপলক্ষ্যে নেত্রকোনা প্রেসক্লাবে স্মরণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত           * পানিতে ডুবে গর্ভবতী নারীর মৃত্যু           * কক্সবাজার আদালতে ইয়াবা মামলায় ২ আসামির ৫ বছর কারাদণ্ড           * ‘পরনের কাপড় ছিঁড়ে মুখ বেঁধে পালাক্রমে আসামিরা আমাকে ধর্ষণ করে’           *  নীলফামারী উপজেলা আ.লীগের সম্মেলন: আবুজার সভাপতি ও ওয়াদুদ সম্পাদক           
* কঙ্গোয় বাস দুর্ঘটনায় নিহত ৩০            * দল পেলেন না সাকিব-গেইল-মালিঙ্গা           * প্রেমিকাকে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগে প্রেমিক আটক           

গাইবান্ধায় পানি কমলেও চরম দুর্ভোগে পানিবন্দি ৪ লক্ষাধিক মানুষ!

গাইবান্ধা প্রতিনিধি, | মঙ্গলবার, আগস্ট ২, ২০১৬
গাইবান্ধায় পানি কমলেও চরম দুর্ভোগে পানিবন্দি ৪ লক্ষাধিক মানুষ!
গাইবান্ধার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত ঘাঘট, যমুনা, ব্রহ্মপুত্র, তিস্তা, করতোয়া ও আলাই নদীর পানি কমতে থাকলেও মানুষের দুর্ভোগ কমেনি। সোমবার দুপুর পর্যন্ত ঘাঘট নদীর পানি ২২.১৩ সে: মি. ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি ২০.২৭ সে. মি. বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে গত ১০ দিন ধরে জেলার চার উপজেলার ৩২ ইউনিয়নের পানিবন্দি ৪ লক্ষাধিক মানুষ সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।

বন্যা কবলিত গাইবান্ধা জেলার সদর, সুন্দরগঞ্জ, ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলার বানভাসী মানুষ দুর্ভোগের সঙ্গে খেয়ে না খেয়ে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও উচু জায়গায় অবস্থান নিয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। আবার অনেকেই খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছেন। এর মধ্যে এসব বানভাসি মানুষ সবচেয়ে বিপাকে পড়েছেন খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি সংকট ও ল্যাট্রিন সমস্যা প্রকট হয়ে দেখা দিয়েছে। পাশাপাশি গবাদি পশুর মধ্যে গরু-ছাগল নিয়েও বিড়ম্বনায় পড়েছেন অনেকে।

এদিকে গাইবান্ধা সদর উপজেলার কামারজানি হাট, তহশিল অফিস, ফুলছড়ি এবং সাঘাটার ভরতখালির হাট তিনটি বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। হাটের উপর দিয়ে এখনও নৌকা চলছে। বৃহত্তর হাট তিনটি পানিতে ডুবে যাওয়ায় এলাকার মানুষের ব্যবসা-বাণিজ্য ও বেচাকেনা বন্ধ হয়ে গেছে।

অন্যদিকে, গাইবান্ধার ফুলছড়ি-সাঘাটা সড়কের ২০টি পয়েন্টে সড়কের উপর দিয়ে তীব্র বেগে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। ওই সড়ক দিয়ে ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলার সাথে গাইবান্ধা জেলা সদরের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে জনগণকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। গাইবান্ধা সদর উপজেলার ঘাঘট নদীর বন্যানিয়ন্ত্রণ সোনাইল বাঁধ ভেঙে যাওয়ার কারণে নতুন করে আরও ২০ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে নতুন করে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে প্রায় ২০ হাজার মানুষ। এছাড়া ফুলছড়ি উপজেলা সদরের উড়িয়া-কালির বাজার, কাঠুর-কালিরবাজার, হাজিরহাট-উদাখালি এবং সিংড়িয়া-কালিরবাজার সড়কের ৫টি ব্রিজ ধসে গেছে।

বন্যার কারণে পানিতে ডুবে ইতোমধ্যে গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ, ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলায় শিশুসহ দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। বন্যায় চার উপজেলার ১৬০ কিলোমিটার কাঁচা সড়ক বিধ্বস্ত, ৬৫০টি পুকুরের মাছ ভেসে গেছে, ১৮ হাজার ৭১২ হেক্টর জমির শাক-সবজি, আমন বীজতলা তলিয়ে নষ্ট হয়েছে। এছাড়া বন্যার কারণে চার উপজেলার ২৭ ইউনিয়নের ১৭৪ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে। ফলে বিদ্যালয়গুলোতে পাঠদান মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। সেই সঙ্গে আগামী ৩ তারিখের নির্ধারিত দ্বিতীয় সাময়িক পরীক্ষা নিতে পারবে কিনা তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন শিক্ষকরা।

গাইবান্ধা জেলা সিভিল সার্জন ডা. নির্মলেন্দু চৌধুরী জানান, বন্যা কবলিত ৪টি উপজেলায় ৭৫টি মেডিকেল টিম স্বাস্থ্যসেবায় কর্মরত রয়েছে। তারা প্রতিদিনেই বন্যা কবলিত মানুুষকে খাবার সেলাইন, পানি বিশুদ্ধ করণ ট্যাবলেটসহ প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছে।
গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী প্রকাশ কুমার সরকার জানান, গাইবান্ধা জেলার মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত নদ নদীর পানি কমতে শুরু করেছে। ভাঙন ও হুমকির মুখে পড়া বিভিন্ন এলাকার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ রক্ষা স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের লোকজন কাজ করছে।

গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক আবদুস সামাদ জানান, গাইবান্ধা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বন্যার্ত মানুষের মাঝে চাল, নগদ টাকা ও শুকনো খাবার বিতরণ অব্যহত রয়েছে। এছাড়া জেলা ও উপজেলা প্রশাসন এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বন্যার্ত এলাকায় গিয়ে পানিবন্দী মানুষের খোঁজ-খবর নিচ্ছেন এবং যেকোন ধরনের সহায়তার আশ্বাস দিচ্ছেন।




আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close