*  চিকেন মোমো তৈরির রেসিপি           *  যমজ সন্তান মর্গে এলো বাবাকে খুঁজতে           * বোনের খোঁজে দিশেহারা ভাই           *  ত্রিশালবাসীর ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করেছেন উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরা           * নকলা চন্দ্রকোনায় ৭ গোডাউনে আগুন           *  ঝিনাইগাতী সরকারী হাসপাতালটি কর্তৃপক্ষের অবহেলায় ভেস্তে গেছে চিকিৎসা সেবা            *  সমস্যার আবর্তে ব্রাহ্মণবাড়িয়া বক্ষব্যাধি হাসপাতাল           *  ময়মনসিংহে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত           *  হাতিয়া পিআইওর বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ           *  ময়মনসিংহে ভাষা দিবসে ছাত্রলীগ নেতার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ           * রাসায়নিক নয়, গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে মৃত্যুপুরী চকবাজার           *  বাংলাদেশে আর্ন্তজাতিক কেরাত সম্মেলন অনুষ্ঠিত           * ওসির আহাদের সহায়তায় রক্ষা পেলেন খাদে পড়া প্রাইভেটকার যাত্রীরা           * গফরগাঁওয়ে চালকের গলাকেটে রিকশা ছিনতাই           *  বাংলার সঠিক চর্চা নিয়ে ভাষা সৈনিক শহিদুল্লাহর আক্ষেপ           * কিডনী সমস্যায় রাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু           * কলা গাছের শহীদ মিনারে শিক্ষার্থীদের শ্রদ্ধা           * ভাষা শহীদদের প্রতি গ্রীস প্রবাসীদের শ্রদ্ধা           *  ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা           * গুলিতে নিহত ৩ ঠাকুরগাঁও আদালতে বিজিবির বিরুদ্ধে মামলার আবেদন          
*  যমজ সন্তান মর্গে এলো বাবাকে খুঁজতে           *  ত্রিশালবাসীর ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করেছেন উপজেলা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরা           *  সমস্যার আবর্তে ব্রাহ্মণবাড়িয়া বক্ষব্যাধি হাসপাতাল          

নাটোরে বিষে সয়লাব সবজি ॥ হুমকীর মুখে জনস্বাস্থ্য

তাপস কুমার, নাটোর: | মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৯, ২০১৬
নাটোরে বিষে সয়লাব সবজি ॥ হুমকীর মুখে জনস্বাস্থ্য
নাটোরে বিষে সয়লাব সবজি। ক্ষেত থেকে সরাসরি বিষযুক্ত সবজি চলে যাচ্ছে বাজারে। প্রতিনিয়ত হাট-বাজারে বিক্রি হচ্ছে এই বিষযুক্ত সবজি। পোকামাকড় দমনে প্রয়োগ করা বিষাক্ত কীটনাশক প্রয়োগ করে নির্ধারিত সময়ের আগেই সবজিগুলো বাজারজাত করা হয়। অন্যদিকে, কৃষিবিভাগের কোন তদারকি না থাকায় এর ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে জানেন না কৃষক, সবজি ব্যবসায়ী ও ভোক্তারা। ফলে বিষাক্ত টাটকা সবজি খেয়ে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ছেন সবাই।
সবজিতে প্রধান অঞ্চল নাটোরের প্রতিটি উপজেলায় প্রচুর পরিমাণ ফুলকপি, বাধাকপি, শীম, বরবটি, টমেটো, বেগুন, করলাসহ নানান ধরণের সবজির চাষ হয়ে থাকে। বাহারী আর মনোমুগ্ধকর সবজিতে ক্ষতিকর পোকামাকড় দমনে কৃষকরা প্রতিনিয়ত মাত্রাতিরিক্ত রাসায়নিক কীটনাশক প্রয়োগ করছেন। নিয়ম অনুযায়ী এসব কীটনাশক (বিষ) প্রয়োগের ৫ থেকে ৭ দিন পর উৎপাদিত সবজি উত্তোলন ও বাজারজাত করার কথা । কিন্তু অজ্ঞতার কারণে কৃষকরা সকালে বিষ প্রয়োগ করে বিকেলে বা পরদিনই তা বাজারজাত করছে। ডিলারদের পরামর্শ অনুযায়ী জমিতে পোকামাকড় দমনের জন্য ক্ষতিকর উচ্চামাত্রার এসব বিষ প্রয়োগ করেন কৃষকরা। কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, কৃষিবিভাগ বা অন্য কোন সংস্থা থেকে তাদের কোন পরামর্শ না দেওয়ায় এসব সবজি খেয়ে কোন ক্ষতি হয় কিনা তা’ তারা জানেন না।
নাটোরের লালমনিপুর গ্রামের কৃষক আব্দুল জলিল জানান, পোকামাকড় দমনে তারা কীটনাশক ব্যবহার করেন। তবে কীটনাশক কি পরিমান ব্যবহার করতে হয় তা তারা জানেন না। ডিলারদের পরামর্শ অনুযায়ী জমিতে কীটনাশক প্রয়োগ করে বলে জানান তারা। উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের কৃষক রফিকুল ইসলাম বলেন, কীটনাশক ব্যবহারের কতোদিন পর সবজি বাজারজাত করতে হয় এ বিষয়ে কৃষি বিভাগেরও কোন পরামর্শ বা সহযোগিতা পাইনা। স্বাস্থ্যের ঝুকি আছে কিনা তা জানা নাই।
নাটোরের মাদ্রাসা মোড়ের সবজি বিক্রেতা হান্নান আলী জানান, সঠিক তদারকির অভাব আর সেই সাথে অজ্ঞতার কারণে বাজারে বিষযুক্ত সবজি কেনাবেচা হয়।
ক্রেতা আইনুন নাহার  জানান, কোন সবজি বিষযুক্ত তা তো দেখে বোঝার উপায় নেয়। তাই বাধ্য হয়ে বিষই কিনে খেতে হয়।  
এসব সবজি ক্ষতিকারক দিক সম্পর্কে নাটোরের সিভিল সার্জন আজিজুল ইসলাম জানান, কীটনাশক যুক্ত সবজি খাবার ফলে স্বপ্লও দীর্ঘমেয়াদি স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ার সম্ভাবনা অধিক। তাই নিয়ম মেনেই  সবজি উৎপাদন ও বাজারজাত করা উচিত।
এব্যাপারে কৃষিবিভাগের উপ-পরিচালক আলহাজ উদ্দিন আহাম্মেদ জানান, বিষ প্রয়োগের নির্ধারিত সময় পরে সবজিগুলো উত্তোলন ও বাজারজাত করণের নিয়ম সম্পর্কে প্রতিনিয়ত কৃষকদের উদ্বৃদ্ধ করা হয়ে থাকে।




আরও পড়ুন



১. প্রধান উপদেষ্টা ঃ এড. সাদির হোসেন (হাইকোর্ট আইনজীবি)
২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close