* শীতকালে শুষ্ক ও ফাটা ত্বকের ঘরোয়া সমাধান           *  ইতিহাস গড়ে জিতল বাংলাদেশ           *  দণ্ডিতদের ভোটে আসার পথ আটকাই থাকল           *  গোলাম মাওলা রনির মনোনয়নপত্র বাতিল           * হিরো আলমের প্রার্থিতা বাতিল           *  ইবি অধ্যাপক নূরী আর নেই           * কেন্দুয়ায় চিথোলিয়া গ্রামে বসেছিল রাতব্যাপী লালন সংগীতের আসর           * গাজীপুরে মরুভূমি ফুল এর মানবন্ধন           *  শান্তিচুক্তির ২১ বছর পাহাড়ে থামেনি ভাতৃঘাতী সংঘাত           *  প্রতিপক্ষকে প্রথমবার ফলোঅন করালো বাংলাদেশ           *  ১৫০ সিসির নতুন পালসার আনল বাজাজ           *  গাঁজা সেবনের দায়ে যুবকের জেল           *  সেরা ডিজিটাল ব্যাংকের পুরস্কার পেল সিটি ব্যাংক           * দেশে পৌঁছেছে ‘হংসবলাকা’            * মোদি কেমন হিন্দু, প্রশ্ন রাহুলের            * মিরাজের ঘূর্ণিতে ফলোঅনে উইন্ডিজ           * কাঠবোঝাই ট্রাক চাপায় প্রাণ গেল তিন শ্রমিকের           * নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত           * আলাস্কায় ভয়াবহ ভূমিকম্প, ৬ ঘণ্টায় ৪০ বার কম্পন           * জাতিসংঘের মিশনে বিমান বাহিনীর ২০২ সদস্যের কঙ্গো গমন          
* দেশে পৌঁছেছে ‘হংসবলাকা’            * মোদি কেমন হিন্দু, প্রশ্ন রাহুলের            * মিরাজের ঘূর্ণিতে ফলোঅনে উইন্ডিজ          

তীব্র শীতে দুর্ভোগে কুড়িগ্রামবাসী

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি, | বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৬
তীব্র শীতে দুর্ভোগে কুড়িগ্রামবাসী
কুড়িগ্রামে তীব্র শীত ও কনকনে ঠান্ডায় দুর্ভোগে পড়েছে মানুষজন। বিশেষ করে চর-দ্বীপচর ও নদী তীরবর্তী এলাকায় শীত বেশি অনুভূত হওয়ায় কষ্টে দিনাতিপাত করছে এসব অঞ্চলের লোকজন।

সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সূর্যের দেখা মিলছে না। এ অবস্থায় গরম কাপড়ের অভাবে নিম্ন আয়ের খেঁটে খাওয়া মানুষ কাজে বের হতে পারছে না। সবচেয়ে বেশি শীত কষ্টে ভুগছে বৃদ্ধ ও শিশুরা। খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন অনেকেই।

সন্ধ্যার আগেই ঘন কুয়াশার চাদরে ঢেকে যাচ্ছে গোটা জনপদ। রাত বাড়ার সাথে সাথেই ঠান্ডার তীব্রতা বাড়তে থাকে। দিনে হেড লাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে যানবাহন।

কুড়িগ্রাম শহরের রিকসাচালক আফজাল হোসেন জানান, ‘কয়দিন থাকি খুব শীত পড়ছে। দুপুর পর্যন্ত ঘর থাকি বাইর হতে পারি না। গরম কাপড় নাই। দুপুরে রিকসা নিয়া বাইর হই। আয় রোজকার একেবারে নাই।’

সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের ব্রহ্মপুত্র পাড়ের বৃদ্ধ আব্দুল জলিল জানান, ‘হামরা নদী পাড়ের মানুষ। কয়েকদিন থেকে শীতের সাথে ঠান্ডা বাতাস। হাতে-পায়ে ঠান্ডা ধরে। রাত হলে হিম পড়ে। গরম কাপড় নাই। ঠান্ডায় ঘরের ভিতরও থাকা যায় না।’

কুড়িগ্রাম আবহাওয়া অফিসের উচ্চ পর্যবেক্ষক মো. জাকির হোসেন জানান, গত তিন দিন ধরে এ অঞ্চলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ থেকে ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে উঠা-নামা করছে।




আরও পড়ুন



সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close