* হালুয়াঘাটে ১২ দিনেও সন্ধান মিলেনি নিখোঁজ তিন শিক্ষার্থীর            * জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ : গাজীপুর নগর ভবনে এ্যাডভোকেসী সভা           *  জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা রায়ের রাষ্ট্রপক্ষের : আদেশ ৩০ সেপ্টেম্বর            * ভুলত্রুটি যতটুকু পারি শুধরে নেয়ার চেষ্টা করবো           * ব্যক্তিগত সুসম্পর্ক তৈরি করবেন যেভাবে            * বিসিএস উত্তীর্ণ সিনথিয়া আদালতে বললেন প্রেম করে বিয়ে করেছি           * পুরনো আগুন নেভানোর অপেক্ষা           * জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের সংস্কার চাইলেন প্রধানমন্ত্রী           * ত্রিশালে যুবলীগ নেতাকে কুপানোর দায়ে মামলায় আসামী ৩০, গ্রেফতার ৯           *  ময়মনসিংহে দুই সাংবাদিকের নামে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা           * ‘পাকিস্তানের বিশ্বাস নেই, যেদিন খেলে কাউকে পাত্তা দেয় না           * কেউ খোঁজ রাখেনি মুক্তিযোদ্ধাদের ‘মা’ ইছিমন বেওয়া'র           * এক মাছের পেটে মিলল ৬১৪ পিস ইয়াবা            * মোদির জন্য নোবেল!            * ৫ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢোকার অপেক্ষায় রয়েছে           * শিক্ষায় বিনিয়োগের আহ্বান শেখ হাসিনার            * ডাক্তারদের সেবার মনোভাব কম: স্বাস্থ্যমন্ত্রী           * ফুলপুরে জঙ্গীবাদ বিরোধী মা সমাবেশ অনুষ্টিত           * দুই মণ গাঁজাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার            * নামাযে অজু নিয়ে সন্দেহ হলে কি করবেন?          
*  জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা রায়ের রাষ্ট্রপক্ষের : আদেশ ৩০ সেপ্টেম্বর            * ভুলত্রুটি যতটুকু পারি শুধরে নেয়ার চেষ্টা করবো           * পুরনো আগুন নেভানোর অপেক্ষা          

নাটোরের বড়াইগ্রামে খ্রিষ্টান পল্লীতে বড়দিনের আমেজ নেই ॥ মেলেনি কোন সরকারী অনুদান

তাপস কুমার, নাটোর: | রবিবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৬
নাটোরের বড়াইগ্রামে খ্রিষ্টান পল্লীতে বড়দিনের আমেজ নেই ॥ মেলেনি কোন সরকারী অনুদান
নাটোরের বড়াইগ্রামের জোয়াড়ি ইউনিয়নের কুমরুল ও বনপাড়া পৌরসভার হঠাৎপাড়া দরিদ্র আদিবাসী পল্লীতে বড়দিনের কোন আমেজ নেই। পল্লীর মধ্যে গীর্জাঘরেও বড়দিনের কোন সাজ নেই। খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসবে এসব আদিবাসীদের কথা ভাবারও যেন কেহ নেই। বড়দিনের তাদের ভাগ্যে মেলেনি কোন সরকারী বা ব্যক্তিগত অনুদান। ফলে প্রার্থনা ও কোন রকম ভাল খাবারের ব্যবস্থা করে বড়দিন পালন করার চেষ্টা চালাচ্ছে পরিবার প্রধানেরা।
শনিবার দুপুরে সরেজমিনে কুমরুল আদিবাসী পল্লীতে গিয়ে দেখা গেছে, বড়দিন পালন করার জন্য ঘর- দোর পরিস্কার করছেন নারীরা। ওই পল্লীর মধ্যে রয়েছে টিনসেড বিল্ডিং একটি গীর্জাঘর। বড়দিন উপলক্ষে গীর্জা ঘরের ভিতরে যতসামান্য রঙ্গীন কাগজ লাগিয়েছে স্থানীয় আদিবাসী যুবক-যুবতীরা। গীর্জার বাইরে নেই বিন্দুমাত্র সাজ-সজ্জা।
পল্লীর প্রামাণিক (মাতব্বর) সলেমান বিশ্বাস জানান, এই পল্লীতে পাহাড়িয়া গোত্রের আদিবাসীদের বসবাস শুরু হয়েছে প্রায় ৫০ বছর আগে থেকে। এখানে প্রায় একশ পরিবার খ্রিষ্টান ধর্মে বিশ্বাসী। এই পল্লীর নারী-পুরুষদের পেশা দিনমজুর। অতিদরিদ্র এই আদিবাসী পল্লীর কথা কেহ ভাবে না। বড়দিন উপলক্ষে পল্লীর বাসিন্দাদের আয়োজন কি জানতে চাইলে তিনি জানান, গরীব মানুষ, দিন আনি দিন খাই। রাতে গীর্জায় গিয়ে সকলে প্রার্থনা করবে, কীর্তন করবে। বড়দিনে সবাই চেষ্টা করছে একটু মাংস-ভাত জোগাড় করতে। তবে অনেক মা-বাবাই সাধ্যমত চেষ্টা চালিয়ে শিশুদের জন্য কম দামী নতুন কাপড়-চোপড় কিনলেও নিজের বা বয়োজেষ্ঠ্যদের জন্য কিনতে পারেনি।
অষ্টম শ্রেণীতে পড়–য়া তমা বিশ্বাস জানায়, বাজারের কাপড়ের অনেক দাম। কেনার মতো যথেষ্ঠ টাকা তার বাবার ছিলো না, ফলে কেনা হয়নি।  
গৃহিনী লিপি বিশ্বাস জানান, ছোট দুইটি ছেলেকে চার’শ টাকা দিয়ে কাপড় কিনে দিয়েছি। চেষ্টা করেছিলাম শ্বশুর-শ্বাশুড়িকে দিবো। কিন্তু বড়দিনের জন্য মাংস কিনতে গিয়েই নয়’শ টাকা খরচ হয়ে গেছে। তাই আর কোন পোশাক কেনার সাহস পেলাম না।
কুমরুল আদিবাসী পল্লীর মতোই একই চিত্র হঠাৎপাড়া পল্লীতে। সেখানে পাহাড়িয়া ও সাওতাঁল গোত্রের আদিবাসী খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের অর্ধশতাধিক পরিবার বাস করছে। সেখানকার বাসিন্দা ফিলিপ বিশ্বাস ভরাক্রান্ত মনে জানান, আমাদের আবার বড়দিন আছে নাকি। আমরা কিভাবে আছি, কিভাবে বড়দিন পালন করবো তার খোঁজ-খবর নেয়ার কেহই নাই।
কুমরুল আদিবাসী পল্লীর গীর্জাসেবক বকুল বিশ্বাস জানান, স্থানীয় একজন সাংবাদিক আজ (শনিবার) আমাদের কথা উপজেলা পরিষদ চেয়ারমান মো. আব্দুল হাকিমকে জানালে, তাৎক্ষণিক তিনি ব্যক্তিগত তহবিল থেকে পাঁচ হাজার টাকা প্রদান করেন। এর আগে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে বড়দিনের জন্য অনুদান বা সাহায্যের জন্য লিখিত আবেদন করলেও এ ব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে কোন সাড়া মেলেনি।
এ ব্যাপারে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুল হাকিমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, অনুদানের বিষয় নিয়ে ইউএনও’র সাথে কথা হয়েছে। কিছু অনুদান বরাদ্দ করা হয়েছে তবে দাপ্তরিক ব্যস্ততার কারণে আদিবাসী  পল্লীতে পৌঁছে দেয়া সম্ভব হয় নাই।  




আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close