* ময়লা, আর্বজনা ও বজ্র ফেলে দূষন হচ্ছে ফুলবাড়ী ছোট যমুনা নদী, দেখার কি কেউ নেই ?           * ঝিনাইগাতীতে বধ্যভূমিগুলো আজো সংরক্ষণ করা হয়নি           * রাবিতে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত : ২           * অভয়নগরের মাদকব্যবসায়ী নড়াইল ডিবি পুলিশ ১৯০ পিছ ইয়াবাসহ গ্রেফতার           *  আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক ময়মনসিংহের মানুষের সঙ্গে আমার আত্মিক সম্পর্ক           * গাজীপুরে প্যাকেজিং কারখানায় আগুন           *  ময়মনসিংহের দুই উপজেলায় গ্রেপ্তার ৭           * নকলায় ডিআরএইচ’র সম্মাননা ও বই প্রদান            * শেরপুরে সরকারিভাবে আমন চাল সংগ্রহ অভিযান শুরু           * নেত্রকোনায় বারী সিদ্দিকী স্মরণসভা           *  স্কুলে অতিরিক্ত ফি নিলে ব্যবস্থা: হাইকোর্ট           *  ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে ভোট চলছে           *  প্রশ্নপত্র ‘ফাঁসে’ নয়জন আটক, ১১৩ প্রাথমিকে পরীক্ষা স্থগিত           *  ২৫ বছর পর আলাবামার সিনেট ডেমোক্র্যাটদের দখলে           * ৫ বছরে বাংলাদেশের ৩৫ টেস্ট           *  বেনাপোলে ট্রাকবোঝাই ফেনসিডিলসহ পাচারকারী আটক           * ইরানে আবার ভূমিকম্প, আহত ৫৫           * ভোলায় পুলিশের মাদকবিরোধী সাইকেল র‌্যালি           * নন্দীগ্রাম হানাদারমুক্ত দিবস পালিত           * হত্যার তিন দিন পর লাশ ফেরত দিলো বিএসএফ          
* মুক্তিযুদ্ধের সৈনিক এখন ভিক্ষুক           * আ.লীগ আবার ক্ষমতায় না এলে দেশ পিছিয়ে যাবে’           * বদলগাছীর সাগরপুর-সন্ন্যাসতলা সড়ক কাজ না করেই বিল উত্তেলন করলেন ঠিকাদার          

এমপি নিক্সন চৌধুরীর ক্ষোভ প্রকাশ ভাঙ্গায় আশ্রয়ন-২ প্রকল্পে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ

মোঃ রমজান সিকদার, ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি | বুধবার, মে ৩১, ২০১৭
এমপি নিক্সন চৌধুরীর ক্ষোভ প্রকাশ
ভাঙ্গায় আশ্রয়ন-২ প্রকল্পে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ
গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গিকার ও স্বপ্ন “যার জমি আছে ঘর নেই তার নিজ জমিতে গৃহ নির্মান” আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলায় ৬৭টি ঘর নির্মানে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। সুবিধাভোগি ৬৭ জনের মধ্যে অধিকাংশ জনেরই রয়েছে ইটের তৈরী পাকাঘর সহ বিঘায় বিঘায় জমি। কারও আবার পুত্র-সন্তান সহ পরিবারের অনেক সদস্যই প্রবাসে কর্মরত। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনানুযায়ী যাদের জমি আছে কিন্তু বসবাসের ঘর নেই শুধু তাদের জন্যই বরাদ্দ এসব প্রকল্পের টাকা। অথচ সুবিধাভোগি ৬৭ জনের মধ্যে অধিকাংশই স্বচ্ছল হওয়ায় এবং অসহায় গরিব ও গৃহহীনরা উক্ত প্রকল্পের আওতায়ভুক্ত না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ফরিদপুর-৪ আসনের এমপি মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন। তিনি স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনরাত নিরলস পরিশ্রম করে দেশকে উন্নয়ন দিয়ে বিশ্ব দরবারে  রোল মডেল হিসাবে বাংলাদেশকে দাড় করাচ্ছেন। আমি নির্বাচিত এমপি জনগনের পাশে থেকে শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্ত করতে সত্যিকারের উন্নয়ন দিয়ে ভাঙ্গা উপজেলাকে একটি মডেল উপজেলা হিসাবে গড়ার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। অথচ বিশেষ একটি সুযোগ সন্ধানী মহল তা ম্লান করে দিতে অপচেষ্টা করছে। ভাঙ্গা উপজেলায় ১২টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা রয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়নেই রয়েছে অসহায় ও গৃহহীন শত শত পরিবার। সম্প্রতি আশ্রয়ন-২ প্রকল্পে শুধুমাত্র কালামৃধা ও আজিমনগর ইউনিয়নের বিত্তশালীদের নাম অর্ন্তভুক্ত হওয়ায়তে পুরো উপজেলার জনগনের মাঝেই তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি দ্রুত প্রকল্প এলাকায় সঠিক অসহায় ও গৃহহীনদের মাঝে গৃহ নির্মান করে দেওয়ার জন্য।
অপরদিকে প্রকল্প বাস্তবায়ন এলাকা কালামৃধা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লিটন মাতুব্বর গত ২৯ মে জেলা প্রশাসক বরাবর প্রকল্পের ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির তদন্ত চেয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। লিটন চেয়ারম্যান বলেন, আমার পাশ্ববর্তী ইউনিয়ন আজিমনগর ও কালামৃধাতেই আশ্রয়ন-২ প্রকল্পে ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে ৬৭ জন দরিদ্র, অসহায়দের জন্য টাকা বরাদ্দ আসে উপজেলা নিবার্হী অফিসারের কার্যালয় এবং কাজ শুরু করে উপজেলা প্রশাসন। চিঠিতে আমি দেখতে পাই ৬৭ জনের মধ্যে অধিকাংশই বিত্তশালী। অথচ যারা গরীব তারা কেহই এই বরাদ্দ পায় নাই।
এব্যাপারে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মোহাম্মদ কাজী ফয়সাল জানায়, আমি সদ্য ভাঙ্গাতে যোগদান করেছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন-২ প্রকল্পে যাদের নাম এসেছে তা আমাদের উপজেলা পরিষদ থেকে কেহই দেয় নাই। আমরা বরাদ্দ পাওয়ার পর কাজ শুরু করেছি মাত্র। তবে যদি কেহ অভিযোগ করে আমরা তদন্তপুর্বক যথাযথ ব্যবস্থা নিব।
উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন বলেন, কালামৃধা ইউনিয়নের সাবেক জনৈক চেয়ারম্যানের জামাতা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কর্মরত থাকার সুবাধেই ঐ ব্যাক্তিটি বিশেষ একটি মহলকে সুবিধা দিতে এই অপকর্মটি করেছে। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন বাস্তবায়নে আমরা সব সময় সমতার ভিত্তিতে কাজ করে যাচ্ছি। আরো জানতে পেরেছি ঐ দুটি ইউনিয়নেই আরো ১৭১টি ঘর নির্মানের জন্য বরাদ্দ আসতেছে। সংবাদটি সকলে জানার পর অসহায় গরীব জনগনের মাঝে তীব্র ক্ষোভ জমাতে আমরা এখন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরাও কাজ করতে বেগ পেতে হচ্ছে। আমরা আশা করব জরুরী ভিত্তিতে বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ দৃষ্টি দিয়ে সমতার ভিত্তিতে সঠিক অসহায় গরীবদের মাঝে এসব বরাদ্দকৃত টাকা সদ্বব্যবহার করবেন।





আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close