* বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না ----- ধর্মমন্ত্রী           * পেট ব্যথার ৫ প্রাকৃতিক সমাধান           * নকিয়ার ফোনে ‘ডিএসএলআর ক্যামেরা’           *  ঢাকায় নারীদের সাপ্তাহিক হাট           * গাজীপুরে ৩০ কোটি টাকার বনভূমি উদ্ধার           * নড়াইল জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার এর শহীদ মিনারের বেদিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবদেন           * বদলগাছীতে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০১৮ উদ্যাপন           *  আসামি ধরতে গিয়ে দুই পুলিশ সদস্য আহত           *  ওভারব্রিজে ধাক্কা লেগে চার ট্রেনযাত্রী নিহত           *  কিশোরগঞ্জের নতুন ডিসি সারওয়ার মুর্শেদ           * নতুন কুঁড়ি থেকে রুপালি পর্দায় তিশা           *  ব্যাটিংয়ে শীর্ষে কোহলি, জায়গা ধরে রেখেছেন সাকিব           *  যুক্তরাষ্ট্রে কেন এত বন্দুক হামলা?           * বেঁচে আছে ভাষা সৈনিক মতিনের চোখ           *  বিনম্র শ্রদ্ধায় ভাষা শহীদদের স্মরণ করছে জাতি           * ময়মনসিংহের মানুষ শান্তিপ্রিয়------------- এডিশনাল ইন্সপেক্টর জেনারেল মোঃ মোখলেসুর রহমান বিপিএম (বার)           * ময়মনসিংহে ৯ জুয়াড়ি গ্রেপ্তার           * ভাঙ্গায় বঙ্গবন্ধুর ছবি অবমাননাকারীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন           * মিয়ানমার টালবাহানা করছে: প্রধানমন্ত্রী           * আপিলের সিদ্ধান্ত নিতে বৈঠকে খালেদার আইনজীবীরা          
* বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না ----- ধর্মমন্ত্রী           * পরিদর্শক সজিব রহমানের নেতৃত্বে মাদক বিরোধী ছিনতাই রোধে হার্ডলাইনে ২নং ফাঁড়ি পুলিশ           * বিকালে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী          

ময়মনসিংহস্থ কেন্দুয়াবাসীর ইফতার অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক | শনিবার, জুন ১৭, ২০১৭
ময়মনসিংহস্থ কেন্দুয়াবাসীর ইফতার অনুষ্ঠিত
ময়মনসিংহস্থ কেন্দুয়াবাসীর ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় ময়মনসিংহ শহরের উৎসব কমিউনিটি সেন্টারে এ ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় বক্তব্যকালে নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়ার কৃষ্টি ও সংস্কৃতি বিশ্বব্যাপী তুলে ধরার আহ্বান জানিয়েছেন কেন্দুয়াবাসী ।  তারা বলেন, শত শত বছরের ইতিহাস ও ঐতিহ্য রয়েছে কেন্দুয়ার । উপজেলার কৃতি সন্তানরা দেশের পাশাপাশি বিদেশেও নিজ নিজ ক্ষেত্রে সুনামের সঙ্গে কাজ করছেন। বর্তমান প্রজন্ম কেন্দুয়ার কৃষ্টি ও সংস্কৃতিকে বিশ্ব পরিমন্ডলে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তারা।

উপজেলার পাঁচ শতাধিক বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন। ইফতার ও দোয়া মাহফিল শেষে এক আলোচনা সভা হয় । সভায় উপস্থিতিদের সর্বসন্মতিক্রমে ময়মনসিংহ কেন্দুয়া সমিতি ও ৩১ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয় । এতে আ্যাডভোকেট আবুল কালাম গোলাপকে আহবায়ক এবং জহিুরুল ইসলাম আকন্দ লিটনকে যুগ্ন আহবায়ক করা হয়েছে । এই আহবায়ক কমিটি আগামী ৯০ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কার্যকরি কমিটি গঠন করবে বলে সভায় সিদ্ধান্ত গৃহিত হয় ।
জানা যায়, দেশের ঐতিহ্যবাহী কেন্দুয়া উপজেলার উত্তরে নেত্রকোনা সদর উপজেলা ও আটপাড়া উপজেলা, পূর্বে মদন উপজেলা, দক্ষিণে কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলা এবং ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলা এবং পশ্চিমে ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা ও গৌরীপুর উপজেলা।
বর্তমান কেন্দুয়া পার্শ্ববর্তীকামরুপ রাজ্যের ইকলিম মোয়াজ্জমাবাদ পরে নাসিরুজ্জিয়াল পরগনাভূক্ত ছিল। স¤্রাট আকবারের সময়কালে এ অঞ্চল সরকার বাজুহা নামে পরিচিত ছিল।

গারো পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত নেত্রকোণা জেলার দশটি থানার মধ্যে ঐতিহ্যবাহী থানা এই কেন্দুয়া। ভৌগোলিক অবস্থার বিচারে কিশোরগঞ্জ ও ময়মনসিংহ জেলার সীমানাকে বুকে ধারণ করে নিজ জেলাসহ তিনটি জেলার ভাষা, কৃষ্টি, সভ্যতায় কেন্দুয়া আরও মহিমান্বিত হয়েছে। কেন্দুয়া নামকরণে ইতিহাস থেকে যতটুকু জানা যায়, ঐতিহ্যবাহী রোয়াইলবাড়ী ও জাফরপুরে অবস্থানরত শাসক ও সেনানীদের ঐতিহ্য রক্ষার্থে এবং গোগবাজারে প্রসিদ্ধ পাট ক্রয় কেন্দ্র গড়ে উঠায় বিদেশী ব্যবসায়ীদের আনন্দ ফুর্তিও জন্য মুঘল যুগে দিল্লী-লখনৌ হতে বাঈজীরা এসে আজকের থানা সদর থেকে ১ কিঃমিঃ উত্তরে সবুজ গাঁয়ে বাসস্থান গড়ে তুলে। ফরাসীরা এ অঞ্চলে আগমণ করে-বাঈজীদের এ স্থানটিকে ‘কান্দওয়া’ বলে সম্বোধন করে। কান্দওয়া শব্দটি ফার্সী এবং এর বঙ্গার্থ সবুজ ভূমি, ‘ওয়া’ শব্দটি সম্বোধন শব্দ। সেই ফার্সী ‘কান্দওয়া’ থেকে উচ্চারণ বিভ্রাটে কেন্দুয়া নামের উদ্ভব। বাঈজীরা সঙ্গীত ও জলসায় আগত অতিথিদের সাথে অর্থের বিনিময়ে চুক্তি করত। পরবর্তীতে চুক্তির ফার্সী শব্দ ‘পুণ’ সংযোজিত হয়ে ‘পূণকান্দওয়া’ নামে স্থানটি পরিচিত হয়, যা থেকে আজকের পণ কেন্দুয়া গ্রামের উদ্ভব।
নদী-নালা, খাল বিল, হাওড়, ঝিলে পূর্ণ কেন্দুয়ার প্রাকৃতি এ অঞ্চলের মানুষকের করেছে গায়ক, সাধক, কবি; ফলে এ অঞ্চলের মানুষের মুখেই সৃষ্টি হয়েছে জারী, সারি, ভাটিয়ালী, কবিগান, কিসসা, পালাগান, যাত্রা, ঢপযাত্রা, ঘাটুগান, গাজীর গান, ধামালী গীত, গাইনের গীত আরও বিভিন্ন ধরণের গান।
কেন্দুয়ায় রযেছে সূতী সাইঢুলি নদী, কইজানী সিংগুয়া নদী, রাজী খাল, বগাজান বিল ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য জলাভূমি।
প্রতুল ভট্টাচার্য - ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের ব্যক্তিত্ব ও অগ্নিযুগের বিপ্লবী, শাহাবুদ্দিন আহমেদ - সাবেক রাষ্ট্রপতি ও প্রধান বিচারপতি, হুমায়ুন আহমেদ - প্রখ্যাত সাহিত্যিক, নলিনী রঞ্জন সরকার - অবিভক্ত বাংলার অর্থ মন্ত্রী, কেন্দ্রীয়  শাসন পরিষদের শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও ভূমি দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী এবং বাণিজ্য ও খাদ্য মন্ত্রী, হাফিজুর রহমান – পাকিস্তানের মন্ত্রী, পূর্ব পাকিস্তান সরকারের অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী, হাদীস উদ্দিন চৌধুরী - ১৯৭০ সনের প্রাদেশিক পষিদের সদস্য, জসিম উদ্দিন আহম্মেদ - তদানীন্তন পাকিস্তান পর্লামেন্টের এম.এন.এ, এম. জুবেদ আলী - তদানীন্তন পাকিস্তান পর্লামেন্টের এম.এন.এ. ও সাবেক সংসদ সদস্য, মোঃ আলী উসমান – প্রাক্তন সংসদ সদস্য, মুহম্মদ জাফর ইকবাল - বিশিষ্ঠ শিক্ষাবিদ ও সাহিত্যিক, চন্দ্রকুমার দে - ময়মনসিংহ গীতিকার ও পূর্ববঙ্গ গীতিকার সংগ্রাহক, কবি, লোকসাহিত্যিক ও প্রাবন্ধিক, জালাল উদ্দিন খাঁ – প্রখ্যাত মরমী বাউল সাধক ও গীতিকার ।
রোয়াইলবাড়ীর প্রাচীন দুর্গ, মসজিদ, কবর, সুরম্য অট্রালিকা, প্রাচিরের ধ্বংশাবশেষ - রোয়াইলবাড়ী ইউনিয়ন । খোঁজার দিঘি এবং ধ্বংস প্রাপ্ত মসজিদ, অট্টালিকা – জফরপুর,  প্রাচীন গান্ধার শিল্পের নিদর্শন ধ্বংস-প্রাপ্ত পঞ্চরতœ মন্দির, কালিমন্দির ও বিশালায়তন দিঘি - দনাচাপুর।





আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close