*  জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা রায়ের রাষ্ট্রপক্ষের : আদেশ ৩০ সেপ্টেম্বর            * ভুলত্রুটি যতটুকু পারি শুধরে নেয়ার চেষ্টা করবো           * ব্যক্তিগত সুসম্পর্ক তৈরি করবেন যেভাবে            * বিসিএস উত্তীর্ণ সিনথিয়া আদালতে বললেন প্রেম করে বিয়ে করেছি           * পুরনো আগুন নেভানোর অপেক্ষা           * জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের সংস্কার চাইলেন প্রধানমন্ত্রী           * ত্রিশালে যুবলীগ নেতাকে কুপানোর দায়ে মামলায় আসামী ৩০, গ্রেফতার ৯           *  ময়মনসিংহে দুই সাংবাদিকের নামে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা           * ‘পাকিস্তানের বিশ্বাস নেই, যেদিন খেলে কাউকে পাত্তা দেয় না           * কেউ খোঁজ রাখেনি মুক্তিযোদ্ধাদের ‘মা’ ইছিমন বেওয়া'র           * এক মাছের পেটে মিলল ৬১৪ পিস ইয়াবা            * মোদির জন্য নোবেল!            * ৫ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢোকার অপেক্ষায় রয়েছে           * শিক্ষায় বিনিয়োগের আহ্বান শেখ হাসিনার            * ডাক্তারদের সেবার মনোভাব কম: স্বাস্থ্যমন্ত্রী           * ফুলপুরে জঙ্গীবাদ বিরোধী মা সমাবেশ অনুষ্টিত           * দুই মণ গাঁজাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার            * নামাযে অজু নিয়ে সন্দেহ হলে কি করবেন?           * ৭-২৮ অক্টোবর ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ           * মদ না খেয়েও মাতাল যারা!          
*  জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা রায়ের রাষ্ট্রপক্ষের : আদেশ ৩০ সেপ্টেম্বর            * ভুলত্রুটি যতটুকু পারি শুধরে নেয়ার চেষ্টা করবো           * পুরনো আগুন নেভানোর অপেক্ষা          

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার ধর্মপাশা-ঘুলুয়া সড়কটি মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। প্রতিদিনই এ সড়কে দুর্ঘটনা ঘটছে।

মিঠু মিয়া ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি:: | শুক্রবার, জুন ৩০, ২০১৭
সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার ধর্মপাশা-ঘুলুয়া সড়কটি মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। প্রতিদিনই এ সড়কে দুর্ঘটনা ঘটছে।
উপজেলার সদর ইউনিয়নের লামা মেউহারী গোরস্থান নামক স্থানে নদী খনন ও অতিবর্ষণে সড়কটি বড় আকারে ধসে ভেঙে গেছে। লামা মেউহারী ব্রীজ থেকে পূর্বদিকে ৬০০ গজ পর্যন্ত পাকা রাস্তা ভেঙে নদীতে ধসে গিয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করেছে সড়কটি দিয়ে।

জানা যায়, উপজেলার ধর্মপাশা-ঘুলুয়া সড়কের মহদিপুর থেকে ঘুলুয়া পর্যন্ত অনন্ত ১১০টি স্থানে ছোট-বড় খাদের সৃষ্টি হয়েছে। ৩কিমি সড়কের অনন্ত ১কিমির পিচ ও ইট-পাথর ওঠে ভেঙে-চুরে গেছে। এ

সড়কেও মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন। উপজেলা সদর থেকে ঘুলুয়া হয়ে সুনামগঞ্জ সদরে যাতায়াতের জন্য একমাত্র সড়ক এবং ২টি ইউনিয়নের মানুষের উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ও থানায় যাওয়া-আসার ওই সড়কটি একমাত্র ভরসা হওয়ায় যানবাহনের চাপ অনেক বেশি। এত গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় সত্ত্বেও সড়কটি প্রশস্ত করা হয়নি। অতি অপ্রশস্ত হওয়ায় দুটি যানবাহন ক্রস করতেই দুর্ঘটনা ঘটছে। এমন কোনো দিন নেই, সড়কটি দিয়ে চলতে দুর্ঘটনা ঘটছে না।

ওই সড়কের পাশের লামা মেউহারী গ্রামের খোরশেদ মিয়া ও মজি মিয়া জানান, সড়কটি ভালই ছিল।এ বছর নদী খনন হওয়ায় প্রায় ৪০০-৫০০গজ রাস্তা নদীতে ধসে গিয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়লেও দেখার কেউ নেই।

ওই রাস্তার অটোরিকশা চালক চাঁন মিয়া বলেন, অটো বোঝাই নিয়ে এই ভাঙ্গাচোরা রাস্তাতেই চলতে হয়। অনেক স্থানের গর্তগুলোতে তাঁরা নিজেরা মাটি ফেলে সড়কটিতে গাড়ি চলাচলের উপযোগী করেন। এতে সব সময় ঝুঁকির মধ্যে থাকেন তাঁরা। পাশা পাশি তিনি আরও বলেন, মেউহারী গ্রামের পুতুল মিয়া তার কিছু জায়গা পাথর ব্যবসায়ীদের ভাড়া দেওয়ায় এই সড়কটি দিয়ে বড় বড় ট্রাক যাওয়া আসা করাতে সড়কটির আবস্থা আরও বেশি খারাপ হয়েছে।

পিকআপ চালক রতন মিয়া বলেন, এই রাস্তায় পণ্য বোঝাই করে পিকআপ চালিয়ে নিতে খুব কষ্ট হয় গাড়ি উল্টে যাওয়ার আতঙ্কে থাকেন। ভাঙ্গা রাস্তা দিয়ে গাড়ি যেতে পারলেও গাড়িগুলো প্রায়ই দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে।

সুখাইড় রাজাপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ফরহাদ আহম্মেদ বলেন, ধর্মপাশা-ঘুলুয়া সড়কটি এখন মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। প্রতি মাসেই সড়কের গর্তে পড়ে গাড়ি উল্টে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটে। এ সড়ক দিয়ে উপজেলার সুখাইড় উত্তর, সুখাইড় দক্ষিণ ও ধর্মপাশা সদরসহ উপজেলার প্রায় পঞ্চাশ হাজার  মানুষ চলাচল করে। এ সড়কটি অতি তাড়াতাড়ি মেরামত করার প্রয়োজন।

সদর ইউপি চেয়ারম্যান মো.সেলিম আহম্মেদ বলেন, লামা মেউহারী গ্রামের সামনের সড়কটির গোরস্থান  নামক স্থান ভেঙ্গে যাওয়ায় জনসাধারণের সাময়িক কষ্ট হচ্ছে। খুব তাড়াতাড়ি বিকল্প সড়ক তৈরি করা হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী শাহ মো.আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, এ সড়কটির সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।




আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close