* ময়লা, আর্বজনা ও বজ্র ফেলে দূষন হচ্ছে ফুলবাড়ী ছোট যমুনা নদী, দেখার কি কেউ নেই ?           * ঝিনাইগাতীতে বধ্যভূমিগুলো আজো সংরক্ষণ করা হয়নি           * রাবিতে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত : ২           * অভয়নগরের মাদকব্যবসায়ী নড়াইল ডিবি পুলিশ ১৯০ পিছ ইয়াবাসহ গ্রেফতার           *  আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক ময়মনসিংহের মানুষের সঙ্গে আমার আত্মিক সম্পর্ক           * গাজীপুরে প্যাকেজিং কারখানায় আগুন           *  ময়মনসিংহের দুই উপজেলায় গ্রেপ্তার ৭           * নকলায় ডিআরএইচ’র সম্মাননা ও বই প্রদান            * শেরপুরে সরকারিভাবে আমন চাল সংগ্রহ অভিযান শুরু           * নেত্রকোনায় বারী সিদ্দিকী স্মরণসভা           *  স্কুলে অতিরিক্ত ফি নিলে ব্যবস্থা: হাইকোর্ট           *  ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে ভোট চলছে           *  প্রশ্নপত্র ‘ফাঁসে’ নয়জন আটক, ১১৩ প্রাথমিকে পরীক্ষা স্থগিত           *  ২৫ বছর পর আলাবামার সিনেট ডেমোক্র্যাটদের দখলে           * ৫ বছরে বাংলাদেশের ৩৫ টেস্ট           *  বেনাপোলে ট্রাকবোঝাই ফেনসিডিলসহ পাচারকারী আটক           * ইরানে আবার ভূমিকম্প, আহত ৫৫           * ভোলায় পুলিশের মাদকবিরোধী সাইকেল র‌্যালি           * নন্দীগ্রাম হানাদারমুক্ত দিবস পালিত           * হত্যার তিন দিন পর লাশ ফেরত দিলো বিএসএফ          
* মুক্তিযুদ্ধের সৈনিক এখন ভিক্ষুক           * আ.লীগ আবার ক্ষমতায় না এলে দেশ পিছিয়ে যাবে’           * বদলগাছীর সাগরপুর-সন্ন্যাসতলা সড়ক কাজ না করেই বিল উত্তেলন করলেন ঠিকাদার          

হালুয়াঘাটের দুই ইউপি’র নির্বাচন না হওয়ার নেপথ্যে-----

ওমর ফারুক সুমন, হালুয়াঘাট (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ | বুধবার, আগস্ট ৯, ২০১৭
হালুয়াঘাটের দুই ইউপি’র নির্বাচন না হওয়ার নেপথ্যে-----
নির্বাচন হচ্ছেনা হালুয়াঘাটের দুই ইউনিয়ন যথা ৪ নং হালুয়াঘাট সদর ও ৩ নং কৈচাপুর। নির্দিষ্ট সময় পেরিয়ে ১ বছরের বেশি অতিরিক্ত সময় অতিবাহিত হলেও নির্বাচনের কোন সম্ভাবনাই ভাসমান দেখা যাচ্ছেনা। গত ২০১১ সালের ২৮ শে জুন এই দুটি ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। যথা নিয়মে পরবর্তী নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও সীমানা জটিলতার কারনে আটকে রয়েছে এই দুই ইউপি নির্বাচন। গত ২০১৬ সালের ৪ জুন তারিখে হালুয়াঘাটের ১২ টি ইউনিয়নের মধ্যে ১০ টি ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও এই দুই ইউনিয়নের নির্বাচনের কোন আলামত এখনো দেখা যাচ্ছেনা। স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর সপ্তম অধ্যায়ের ২৯ নং ধারার উপধারা(১) এ বলা আছে যে, সংশ্লিষ্ট পরিষদের প্রথম সভা অনুষ্ঠানের তারিখ হতে ৫ (পাঁচ) বৎসর সময়ের জন্যে উক্ত পদে অধিষ্ঠিত থাকবেন। উপধারা(৩) এ বলা আছে যে, পরিষদ গঠনের জন্যে কোন সাধারন নির্বাচন ঐ পরিষদের জন্যে অনুষ্ঠিত পূর্ববর্তী সাধারন নির্বাচনের তারিখ হতে ৫ (পাঁচ) বৎসর পূর্ণ হইবার ১৮০ (একশত আশি) দিনের মধ্যে অনুষ্ঠিত হইবে। উপধারা(৫) এ দেখা যাই, দৈব-দুর্বিপাকজনিত বা অন্যবিধ কোন কারনে নির্ধারিত ৫ (পাঁচ) বৎসর মেয়াদের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব না হইলে সরকার লিখিত আদেশ দ্বারা নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত কিংবা অনধিক ৯০(নব্বই) দিন পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট পরিষদকে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ক্ষমতা প্রদান করিতে পারিবে। এছাড়া দেখা যায় কোন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হলে সরকার কর্তৃক স্থগিতাদেশ জারি করার বিধান থাকলেও এ ক্ষেত্রে তা করা হয়নি।  অনেক লম্বা সময় ধরে হালুয়াঘাট ও কৈচাপুর ইউপি’র নির্বাচন না হওয়াই হতাশা দেখা দিয়েছে সাধারন জনতার মাঝে। নির্বাচনী জনপ্রতিনিধি অতিরিক্ত সময় দায়িত্বে  থাকায় আশানুরুপ সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন এই দুই ইউনিয়নের মানুষ যা অনেকেই অভিযোগ করেছেন।
মূলত নবগঠিত হালুয়াঘাট পৌরসভার ভিতরে দুই ইউনিয়নের বেশ কিছু গ্রাম ঢুকে পড়াই নির্বাচনের জটিলতার মূল কারন। জানা যায়- হালুয়াঘাট পৌরসভার  প্রশাসকদের দ্রুত সময়ে পৌরসভার সীমানা নির্ধারণ এবং ওয়ার্ড বিভক্তির কাজ সম্পন্ন করে নির্বাচন প্রক্রিয়ার জন্য মন্ত্রণালয়কে প্রতিবেদন দেওয়ার কথা। এরই সূত্র ধরে মন্ত্রণালয় নির্বাচন কমিশনকে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য চিঠি দেবে। কিন্তু এই পৌরসভা গঠনের পর বছরের পর বছর পার হয়ে গেলেও নির্বাচন অনুষ্ঠানের কোনো উদ্যোগ নেই। ওয়ার্ড বিভক্তির কাজ শেষ করতে পারলেও নির্বাচনের কোন লক্ষন এখনো প্রকাশ পায়নি।  নানা অজুহাতে নির্বাচন হচ্ছে না এই পৌরসভায়। সেই সাথে আটকে রয়েছে দুই ইউনিয়ন। । অবশ্য স্থানীয় সরকার বিভাগ বলছে, এই  পৌরসভার মধ্যে  নির্বাচন অনুষ্ঠান করার জন্য যাবতীয় কাজ দ্রুত গতিতে অগ্রসর হচ্ছে। ইতিমধ্যে খসড়া ভোটার তালিকা প্রায় শেষ পর্যায়ে। সীমানা নির্ধারনরসহ ওয়ার্ড বিভক্তির কাজও সম্পন্ন  করা হয়েছে। অচিরেই নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দেওয়া হবে।  এই বিষয়ে হালুয়াঘাট উপজেলা নির্বাচন অফিসার সজল চন্দ্র সরকার বলেন- কৈচাপুর ও হালুয়াঘাট সদর ইউনিয়নের বেশ কয়টি গ্রাম নতুন পৌরসভার ভিতরে অন্তর্ভুক্তি হয়েছে। তাই মূলত নির্বাচন না হওয়ার মূল কারন। তিনি বলেন সকল কাজই ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। আশা করা যায় খুব শীগ্রই নির্বাচনের কার্যক্রম শুরু হতে পারে।






আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close