* ময়মনসিংহে শিক্ষকদের আহাজারী থামবে কবে           * ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুন-আটক ১           * স্লিপ প্যারালাইসিস বা ‘বোবায়’ ধরলে করণীয়           * কানাডার জয়ে অপেক্ষা বাড়লো বাংলাদেশের           *  ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু কাল, তুরাগমুখী মুসল্লিরা           * রাজশাহীতে মহাসড়কে গতিরোধকের দাবিতে অবরোধ           * সরিাজদখিানে সরকারী অনুদান বহিীন রাস্তা নর্মিাণ করলনে এক ঝাঁক তরুণ           *  নড়াইলের সীমান্তবর্তী বাঁকড়ীতে কমরেড অমল সেন স্মরণমেলার উদ্বোধন করলেন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন           * ডোমারে মাদক স¤্রাট আনজারুল ফেনসিডিলসহ আটক চেয়ারম্যান, মেম্বারের সুপারিশে ছেড়ে দিলেন বিজিপি।           * গাজীপুরে গৃহবধূকে হত্যার দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন           * দুধের লিটার পাঁচ টাকা, এলাচের কেজি ৮৫!           * ভোলায় চাষ হচ্ছে সুগন্ধি ধান, যাচ্ছে মালয়েশিয়ায়           * রোহিঙ্গাদের কথা শুনতে ঢাকায় জাতিসংঘের দূত           *  ভোট স্থগিতে হাত সরকারেরই: ফখরুল           *  শীতকালীন অলিম্পিকে এক পতাকার নিচে দুই কোরিয়া           * আইসিসির বর্ষসেরা একাদশে নেই কোনও বাংলাদেশি           *  সালমান-ক্যাটরিনার ‘বিয়ে’           * নবম ওয়েজ বোর্ডে সাংবাদিকদের স্বার্থ গুরুত্ব পাবে : তারানা হালিম           *  শীতার্ত বৃদ্ধার গায়ে নিজের জ্যাকেট খুলে পরিয়ে দিলেন পুলিশ সদস্য            * গত পাঁচ-ছয় বছরে কোটি-কোটি টাকার বালু বিক্রি, নিশ্চুপ প্রশাসন বদলগাছীতে ড্রেজিং করে নদী থেকে বালু উত্তোলন, অভিযোগ আওয়ামী লীগের নেতাদের বিরুদ্ধে          
* ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুন-আটক ১           * ময়মনসিংহে এস আই মলয় চক্রবর্তীর বিলাসবহুল বাড়ী           * ত্রিশালে সজীবের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে এই নাশকতার অপচেষ্টা কেন ?          

ডিসির নির্দেশনায় ত্রিশালের ইউএনও’ উদ্ভাবনী বিগ্রেডের নেতৃত্বে যৌন হয়রানি বাল্য বিয়ে বন্ধ

মোঃ খায়রুল আলম রফিক | শনিবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৭
ডিসির নির্দেশনায় ত্রিশালের ইউএনও’ উদ্ভাবনী
বিগ্রেডের নেতৃত্বে যৌন হয়রানি বাল্য বিয়ে বন্ধ

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্মৃতি বিজড়িত ত্রিশাল উপজেলা । শিক্ষানগরী ময়মনসিংহ জেলার এই ত্রিশাল উপজেলায় এক অনুকরণীয় অনুসরনীয় হিসাবে যৌন হয়রানি ও বাল্য বিয়ে বন্ধে কাজ করে যাচ্ছেন একদল ছাত্রী ।

ত্রিশালের ইউএনও আবু জাফর রিপনের উদ্ভাবন । ১২জনের সমন্বয়ে গঠিত ‘ যৌন হয়রানি ও বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ বিগ্রেড’ নামের  এই বাহিনীর কমান্ডার অর্থাৎ নেতৃত্ব দিচ্ছেন ‘ তৃপ্তি ’ নামের দশম শ্রেণিতে পড়–য়া একজন ছাত্রী । বিগ্রেডের ১২ জনই স্কুলের দশম থেকে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী  বেশি দিন হয়নি বিগ্রেডটির যাত্রা । মাত্র ২ সপ্তাহ আগের কথা ।

এই দুই সপ্তাহে ৫টি বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন, ‘ যৌন হয়রানি ও বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ বিগ্রেডটি । মাত্র ২ সপ্তাহের ব্যবধানে ত্রিশাল উপজেলার সর্বত্র এখন সকাল হলে দেখা যায় পরিপাটি হয়ে একই ধরনের পোশাকে দল বেঁধে মেয়েরা স্কুলে যাচ্ছে। বিকাল হলে তারা আবার দল বেঁধেই বাড়ি ফিরছে। কিছুদিন আগেও আগেও এই দৃশ্য তেমন চোখে পড়ত না। আর এটা হয়েছে শুধু এই উপজেলায় তৃপ্তির নেতৃত্বে

‘ যৌন হয়রানি ও বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ বিগ্রেড’ বাল্যবিয়ে বন্ধ হচ্ছে বলেই। বাল্যবিয়ে যে সমস্যা এখনো বাংলাদেশে অন্যতম বড় সমস্যা। মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোল অর্জনেও প্রধান প্রতিবন্ধকতা বাল্য বিয়ে।

এই ‘বাল্যবিয়ে সমস্যাকে’ অনেকটা ঝেঁটিয়ে বিদায় করে দিচ্ছে ত্রিশাল উপজেলা । এই অসম্ভবকে সম্ভব করতে অগ্রনী ভূমিকা পালন করছেন, ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো: খলিলুর রহমানের অদম্য চেষ্টা। ডিসির নিঃস্বার্থ প্রচেষ্টা আর ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু জাফর রিপনের প্রশাসনিক কঠোরতা এবং

  ‘ যৌন হয়রানি ও বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ বিগ্রেড’ উদ্ভাবনী বাল্যবিয়ে মুক্ত করা সম্ভব হচ্ছে এই উপজেলায়। ঘটনার শুরু মাত্র ২ সপ্তাহ আগে । জেলার সর্বত্র বাল্যবিয়ে ঠেকাতে এগিয়ে যান ডিসি খলিলুর রহমান ।

ডিসির নির্দেশনার ইউএনওগণ বিয়ে বন্ধ করতে গিয়ে ইতিপূর্বে বর ও কনে দুই পক্ষেও সামাজিক প্রতিবন্ধকতার শিকারও হয়েছেন ।বিয়ে উপলক্ষে খরচও হয়ে গেছে । বিয়ে বন্ধ করলেও ঐ বিয়ের আয়োজন খরচ বিষয়টি ভাবিয়েছে ।

এসব ভাবনা থেকেই জেলা প্রশাসক মো: খলিলুর রহমান ২ সপ্তাহ আগে ত্রিশালে ইউএনও আবু জাফর রিপনের মাধ্যমে ‘ যৌন হয়রানি ও বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ বিগ্রেডকে ’ তৈরি করেন । বিগ্রেডের ১২ জন মেয়ের হাতে তুলে দেন ১২টি বাই সাইকেল । এই বাই সাইকেল নিয়ে ‘ যৌন হয়রানি ও বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ বিগ্রেড’ ছুঁটে চলেছেন, উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল থেকে সর্বত্র ।

কৌশলে বাল্য বিয়ের খবর পেলেই বিষয়টি ইউএনও অর্থাৎ প্রশাসনকে অবগত করেন । এতে, বাল্য বিয়ের আয়োজনের আগেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে বাল্য বিয়ে । বিয়ের আয়োজকরা বিয়ে বাবদ আর খরচও করতে পারছেন না । এর আগেই বাল্য বিয়ে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে । ‘ যৌন হয়রানি ও বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ বিগ্রেডের সফলতা মাত্র ২ সপ্তাহেই ত্রিশালে সর্বত্র ।জেলা প্রশাসক মো: খলিুলুর রহমান বলেন,

সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে মতবিনিময় করে জানতে পারেন, ত্রিশাল উপজেলার অন্যতম একটি সমস্যা বাল্যবিয়ে। কিন্তু বাল্যবিয়ে যে একটি অপরাধ তা অনেক মানুষেই জানেন না। এ জন্য ইউএনও আবু জাফর  রিপনের মাধ্যমে বাল্যবিয়ে-মুক্ত উপজেলা গঠনের লক্ষে উপজেলার ইউনিয়নের নিকাহ নিবন্ধক ,

মসজিদের ইমাম এবং তাদের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল ফোন নম্বরসহ একটি ডাটাবেজ তৈরি করেন। এরপর প্রত্যেকের নামে বাল্যবিয়ে নিরোধ আইন, বাল্যবিয়ের কুফল এবং বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে তাদের ভূমিকার কথা উল্লেখ করেন ।

উপজেলার প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানদের সঙ্গে পৃথকভাবে মতবিনিময় সভা করে বাল্যবিয়ে-মুক্ত ত্রিশাল উপজেলা গঠনে যার যার অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখার জন্য অনুরোধ করেন। অপরদিকে ডায়নামিক পরিকল্পনা করে গঠন করেন‘ যৌন হয়রানি ও বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ বিগ্রেড’ । তাদেও কাজকে গতিশিল করতে বিগ্রেডের প্রত্যেককে সরবরাহ করেন বাইসাইবেল ।

তৃপ্তি বিগ্রেডের অক্লান্ত পরিশ্রমে সফলতা আসছে । বাল্য-বিয়ের হার এখন ত্রিশাল উপজেলায় দিন দিন কমছে । এছাড়াও যৌন হয়রানি বন্ধে সাইকেল নিয়ে এই মেয়েরা সচেতনতা বাড়াতেও ভূমিকা রাখছে ।বিগ্রেডটির লিডার তৃপ্তি জানান, আমিসহ আমার টিমের ১২জন সামাজিক এই কাজ করে আনন্দ পাচ্ছি ।

মাত্র ২ সপ্তাহে ৫টি বাল্য বিয়ে বন্ধের বিষয়ে বলেন, ঐসব মেয়েদের পরিবারের সদস্যরা তাদের বিয়ের আয়োজন করেন। ঐমেয়েরা প্রথমে রাজি না থাকলেও পরে পারিবারিক চাপের কাছে নতি স্বীকার করেন। তবে তাদের আতœীয়-স্বজন ও নিকট আতœীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে যাই আমরা ।বিষয়টি ইউএনও আবু জাফর রিপন স্যারকে জানাই ।

স্যার বাল্যবিয়ের নানা নেতিবাচক দিক সম্পর্কে তাদেরকে বুঝিয়ে ঐসব বাল্য বিয়ে বন্ধ করতে সক্ষম হন ।ইউএনও আবু জাফর রিপন বলেন, কন্যাশিশুর বিয়ে এ উপজেলায় একটি ব্যাধিতে পরিণত হয়েছিল।

বাল্যবিয়ের কারণে এক সময় অনেক প্রতিভাবান ছাত্রী অসময়ে ঝরে পড়েছে। আমরা এবং সমাজের অনেক সচেতন মানুষের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এবং এই বিগ্রেডের নিষ্ঠা একাগ্রতায় সেই সমস্যা দূর করা সম্ভব হচ্ছে । ব্যাধি সারাতে মাননীয় জেলা প্রশাসক দিকনির্দেশনা দিয়েছেন পরিশ্রম করেছেন এবং বিগ্রেড তৈরির ফলস্বরূপ আজ বাল্যবিয়ে-মুক্ত হচ্ছে এই উপজেলা।





আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close