*  আ.লীগে যোগ দেয়ার অপেক্ষায় বিএনপির অনেকে: কাদের           *  ইন্টারপুলের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত           *  উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা কেউ থামাতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী           * ইসলামপুরে ট্রাকচাপায় চা দোকানির মৃত্যু           *  কোম্পানীগঞ্জে পাথর ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা           * বেচে দেয়া শিশুকে ফিরে পেলেন মা           *  নরসিংদীর সংঘর্ষের ঘটনায় তিন হত্যা মামলা           *  নোয়াখালীতে যুবদলের তিন নেতা গ্রেপ্তার           *  কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদক বিক্রেতা নিহত           *  মনোহরদীতে গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার           * ইসলামপুরে ট্রাক চাপায় চা ব্যবসায়ীর মৃত্যু           * বেনাপোল সীমান্ত থেকে নাইজেরিয়ান নাগরিক ও হুন্ডি ব্যাবসায়ী আটক           *  কেন্দুয়ায় গ্রাম পুলিশ সদস্যদের ওসি যেখানেই বিশৃঙ্খলা সেখানেই পুলিশ থাকবে            * ঝিনাইগাতীতে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ            * গফরগাঁও ২২০ বিএনপি নেতাকর্মীর আগাম জামিন           * প্রধানমন্ত্রীকন্যা পুতুলকে মন্ত্রিসভার অভিনন্দন           * মানুষ বলবে, শামীম ওসমান পাগল ছিল            * নতুন খবর দিলেন অপু বিশ্বাস            * যুক্তরাষ্ট্রে হাসপাতালে বন্দুকধারীর হামলা: নিহত ৪           * বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার পরিসংখ্যান          
* ইসলামপুরে ট্রাকচাপায় চা দোকানির মৃত্যু           *  কোম্পানীগঞ্জে পাথর ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা           *  নরসিংদীর সংঘর্ষের ঘটনায় তিন হত্যা মামলা          

হাওর রক্ষায় পিআইসি গঠন হয়নি, উদ্বিগ্ন কৃষক

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি, | বুধবার, নভেম্বর ২৯, ২০১৭
হাওর রক্ষায় পিআইসি গঠন হয়নি, উদ্বিগ্ন কৃষক
সুনামগঞ্জের এক-ফসলি বোরো ধানের হাওরগুলো রক্ষায় পিআইসি গঠন করার কথা থাকলেও এখনো কমিটি গঠন করা শেষ হয়নি। ফলে লাখ লাখ কৃষক উৎবেগ, উৎকণ্ঠার মধ্যে সময় পার করছেন।

জেলার তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, ধর্মপাশা, বিশ্বম্ভরপুর, দিরাই, শাল্লা, ছাতক, দোয়ারা বাজারসহ ১১টি উপজেলার ৩৬টি বৃহত্তর হাওরে ১৭টি উপ-প্রকল্পসহ মোট ৫৩টি হাওরের ৯১৪পিআইসি গঠনের কথা।

এবার পিআইসি গঠনের দায়িত্ব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নেতৃত্বাধীন কমিটির। কিন্তু প্রকল্প কমিটি গঠনের সময়সীমা ৩০ নভেম্বর ঘরের দোয়ারে। কিন্তু আজও গঠন হয়নি কমিটি।

পাউবো সূত্রে জানা যায়, পাউবোর সুনামগঞ্জ (পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণ) বিভাগ-১ এর অধীনে উন্নয়ন প্রকল্পে ১৪০টি ও অনুন্নয়ন রাজস্ব খাতের ৩৭২টি, বিভাগ-২এর অধীনে উন্নয়ন খাতের ২৩১ ও অনুন্নয়ন খাতে ২২০টিসহ মোট ৯১৪পিআইসি গঠন করার কথা। উন্নয়ন খাতে পিআইসি হবে সুনামগঞ্জ পওর ১-এর অধীনে সদর উপজেলায় ৩টি, অনুন্নয়ন বাজেটে ৪৭টি। বিশ্বম্ভরপুরে উন্নয়নে ১১টি, অনুন্নয়নে ২২টি। তাহিরপুরে উন্নয়নে ৩৩টি, অনুন্নয়নে ৭৫টি। জামালগঞ্জে উন্নয়নে ২১টি, অনুন্নয়নে ১০৬টি। ধর্মপাশায় উন্নয়নে ৭২টি, অনুন্নয়নে ৭৭টিসহ মোট ৪৬৭টি।
সুনামগঞ্জ পওর বিভাগ ২-এর অধীনে পিআইসি হবে দিরাইয়ে উন্নয়নে ৪০টি, অনুন্নয়নে ৭০টি। শাল্লায় উন্নয়নে ৮৪টি, অনুন্নয়নে ৫২টি। দক্ষিণ সুনামগঞ্জে উন্নয়নে ৩২টি, অনুন্নয়নে ২৭টি। জগন্নাথপুরে উন্নয়নে ৩৪টি, অনুন্নয়নে ৪৮টি। ছাতকে উন্নয়নে ৯টি, অনুন্নয়নে ৩টি ও দোয়ারা বাজারে উন্নয়নে ৩২টি, অনুন্নয়নে ২০টিসহ মোট ৪৪৭টি পিআইসির মাধ্যমে এবার হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মাণ করা হবে।

পিআইসি গঠনে এবার নীতিমালায় পরিবর্তন আসছে। আগে ইউপি চেয়ারম্যান-মেম্বররা পিআইসির সভাপতি হতেন। পাঁচ সদস্যের পিআইসিতে স্থানীয় সংদস সদস্য মনোনীত ৩ জন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনোনীত ১ জন থাকতেন। অনেক ক্ষেত্রে সদস্য মনোনয়নের বিলম্বের কারণে পিআইসি গঠন ও বাঁধের কাজ শুরু হতে দেরি হতো।

নতুন নীতিমালা অনুযায়ী হাওরপারের কৃষকদের দিয়েই পিআইসি গঠন করা হবে। এর সদস্যসংখ্যা হবে ৫ থেকে ৭ জন। কমিটিতে একজন সভাপতি, ১জন সদস্যসচিব ও অন্যরা সদস্য হবেন। বাঁধের কাছের জমির প্রকৃত মালিকদের সমন্বয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পিআইসি গঠন করবেন। প্রয়োজনে ভূমি অফিস, কৃষি অফিস ও স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের সঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পরামর্শ করবেন।
নীতিমালা অনুযায়ী কোনো ব্যক্তি একাধিক পিআইসির সভাপতি ও সদস্য হতে পারবেন না। তবে বিশেষ ক্ষেত্রে সদস্য হতে পারবেন।

কিন্তু নীতিমালা হলেও এখনো কমিটি গঠন হয়নি। কুষকরা আশঙ্কা করছেন, এবারও কালক্ষেপণ করে কমিটি গঠন করা হলে তাদের দুঃখের শেষ থাকবে না। রফিকুল ইসলাম, সাদেক আলীসহ হাওরবাসী কৃষকদের ভাষ্য, গত বছর ওপারের ঢল আর বাঁধ ভাঙা পানিতে একরকম সর্বস্বান্ত হয়েছেন তারা। এবার আর তেমনটা হতে চান না তারা। নিধর্অরিত ৩০ নভেম্বরের মধ্যে পিআইসি গঠন করে বাঁধ রক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানান তারা।

এখনো পিআইসি গঠিত না হওয়ার কথা স্বীকার করেন সংশ্লিষ্ট দপ্তর ও প্রশাসন। সুনামগঞ্জ পাউবোর বিভাগ পওর ১-এর নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বক্কর সিদ্দিকি ভূঁইয়া ও পওর বিভাগ ২-এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সাহিনুজ্জামান বলেন, নতুন নীতিমালা অনুযায়ী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে সব পিআইসি গঠন করার কথা। আশা করছেন খুব শিগগির পিআইসি গঠনের তালিকা পেয়ে যাবেন তারা।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূর্ণেন্দ্র দেব জানান, ‘পিআইসি গঠন করা এখনো হয়নি। দ্রুত সভা  করে পিআইসি গঠন করাসহ সব কাজ সমাধানে সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি।’




আরও পড়ুন



সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close