* বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগ রাবি শাখার আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু           * গাজীপুর কাপাসিয়া যানজট নিরসনে ট্রাফিক ব্যবস্থা চালু           * গাজীপুরে প্রশাসনের আপত্তিতে জেলা ইজতেমা প্রথম দিনেই সম্পন্ন           * কাঁদতে কাঁদতে পরীক্ষা দিলো তৈশী           * নেত্রকোনা-৩ অবশেষে মানিকের ভাগ্যেই জুটবে নৌকা এ আশাই তৃণমূলের           * সাত বছরের সাজার বিরুদ্ধে খালেদার আপিল           *  খুলনা-২ শেখ জুয়েলের জন্য মাঠ ছাড়লেন এমপি মিজান           *  ইয়াবাসহ বহিষ্কৃত এএসআই গ্রেপ্তার           *  ভোটেও নেই ফালু           *  কুড়িগ্রামে পারিবারিক কলহের জেরে বৃদ্ধের আত্মহত্যা           *  নেত্রকোণায় তরুণীর লাশ উদ্ধার           *  সংসদে আটটি আসন দাবি হিজড়াদের           * প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা শুরু           *  দীপিকার জন্য সুখবর           *  নিষেধাজ্ঞা মোকাবেলায় বহুমুখী পরিকল্পনা রয়েছে: ইরান           *  সবার আগে সেমিতে পর্তুগাল           * পালিয়ে বিয়ের পর লাশ হলেন মল্লিকা            * ভোট বর্জন ভুল ছিল: ড. কামাল           * বেনাপোল সীমান্ত থেকে বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল উদ্ধার           * জামাল খাসোগি হত্যা: ১৭ সৌদি নাগরিকের ওপর নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের          
*  খুলনা-২ শেখ জুয়েলের জন্য মাঠ ছাড়লেন এমপি মিজান           *  কুড়িগ্রামে পারিবারিক কলহের জেরে বৃদ্ধের আত্মহত্যা           *  নেত্রকোণায় তরুণীর লাশ উদ্ধার          

তোমাকে ভালবাসি হে নবী!

মুফতি মুহাম্মদ আবু সালেহ : | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৫, ২০১৭
তোমাকে ভালবাসি হে নবী!

হযরত মুহাম্মদ সা.। একজন ব্যক্তিই নন- জীবন্ত একটি আদর্শ। একটি বিপ্লব। পৃথিবী আজ অবদি কত মানুষ – মহামানুষ দেখেছে, কত নামীদামী মানুষের সংস্পর্শ পেয়েছে; কিন্তু নবী মুহাম্মদ শুধু একজনই পেয়েছে।

সৃষ্টিক‚লে চরিত্রের সর্বোচ্চ সিংহাসন যিনি দখল করেছেন, তিনি হলেন হযরত মুহাম্মদ সা.। উত্তমচরিত্রের ফুল ফুটিয়ে পৃথিবীকে যিনি চমকে দিয়েছেন, তিনি হলেন হযরত মুহাম্মদ সা.। যার আদর্শে পৃথিবী আজও অবাক, তিনি হযরত মুহাম্মদ সা.।

মানবচরিত্রের তিনটি স্তর রয়েছে। এক. খুলুকে হাসান। দুই. খুলুকে কারীম। তিন. খুলুকে আজীম। পৃথিবীতে যত নবী রাসুল এসেছেন, তাদের কেউ ছিলেন খুলুকে হাসান এর অধিকারী।

কেউ ছিলেন খুলুকে কারীমের অধিকারী। চরিত্রের সর্বোচ্চ স্তর খুলুকে আজীমের অধিকারী ছিলেন একমাত্র নবী মুহাম্মদ সা.। সুতরাং তিনি শুধু সবার সেরা নন, বরং তিনি হচ্ছেন সব সেরাদের সেরা।

পবিত্র কুরআনে সুরা নুনের এক আয়াতে আল্লাহ তায়ালা দৃঢ়তার সাথে বলেন, ‘হে নবী! নিশ্চয় আপনি সুমহান চরিত্রের অধিকারী।’ অন্য আয়াতে বলা হয়েছে, ‘নিশ্চয় তোমাদের জন্য নবী মুহাম্মদ সা. এর মাঝে রয়েছে উত্তম আদর্শ।

যার চরিত্র সম্পর্কে ¯্রষ্টার পক্ষ হতে এমন সার্টিফিকেট দেয়া হয়েছে, তার চরিত্র মাধুরীর উৎকৃষ্টতা প্রমাণ করতে দ্বিতীয় আর কোন দলিলের প্রয়োজন নেই। রাসুল সা. এর ইন্তেকালের পর হযরত আয়েশা রা. কে রাসুলের চরিত্র সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, তোমরা কি কুরআন পড়োনি? পবিত্র কুরআনই হচ্ছে তার চরিত্র।

অর্থাৎ রাসুল সা. তার পুরো জীবনকে কুরআনী চরিত্রে সাঁজিয়েছিলেন। রাসুল সা.এর উত্তমচরিত্র পবিত্র কুরআন হাদিসের এবারতেই সীমাবদ্ধ নয়, বরং এর প্রতিফলন ঘটেছিল নবীজীবনের বাস্তবাঙ্গনে। তায়েফবাসী তাঁকে বিনা কারণে আঘাতের পর আঘাত করেছে। ছোট বড় পাথর গায়ে ছুড়ে মেরেছে।

আঘাতে আঘাতে দেহ, এমনকি জুতাসহ রক্তাক্ত করেছে। রাসুল সা. সবকিছু মেনে নিয়েছেন। তাদের জন্য রহমতের দুআ করেছেন। বলেছেন, তারা আমাকে চিনে না।

রাসুলকে কষ্ট দিতে যে বুড়ি রাস্তায় কাটা বিছিয়ে রাখতো- একদিন কাটা দেখতে না পেয়ে রাসুল সা. তার খবর নিতে গেলেন। বুড়ি কোনো সমস্যায় পড়েছে কি না? আহ!

নবীজীর চরিত্রের উচ্চতার এরচেয়ে বড় উদাহারণ আর কী হতে পারে? যে মক্কাবাসী রাসুলকে এতো কষ্ট দিয়েছে, চরম নির্যাতন করেছে তার সাথীদের। মক্কাবিজয়ের দিন এ জালেমদের জন্যই তিনি সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করলেন।

প্রতিশোধের ছিটেফোঁটাও আদায় করেননি কারো থেকে। আমি হলফ করে বলতে পারি, এমন চরিত্রের মানুষ পৃথিবী দ্বিতীয় আর কাউকে দেখেনি।

আল্লাহ তায়ালা রাসুল সা. কে যেমন দিয়েছিলেন রূপের সৌন্দর্য, তেমনি দিয়েছিলেন চারিত্রিক উৎকৃষ্টতা। রূপে গুণে মিলে তিনি একজন পূর্ণাঙ্গ মানুষ। তাঁর চরিত্রে একটুকুনও কমতি ছিল না। তাই তিনি সবার সেরা। আমরা চোখ বন্ধ করে নির্দ্বিধায় বলতে পারি, তিনি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব।

আমরা বিনাবাক্যে মেনে নিতে পারি তাঁর আদর্শ। জীবনের বাঁকে বাঁকে অনুকরণ করতে পারি তাঁর চরিত্রের। আফসোস! বর্তমান প্রজন্মের অনেকেই জানেনা এ মহামানবের চারিত্রিক উৎকৃষ্টের কথা। জানতে চায় না, কেমন ছিল নবীজীবনের চরিত্রের বাগান! নিজের জীবনকে তারা সাঁজাতে চায় না মুহাম্মদী চরিত্রে। ধিক!

শত ধিক তাদেরকে, যারা তাদের জীবনে মূল্যায়ন করতে জানেনি শ্রেষ্ঠ মানবের মহান এ আদর্শের। আমি ধন্য! মহা ধন্য! এমন নবীর উম্মত হতে পেরে। হে নবী! আমি মুগ্ধ! চরম মুগ্ধ! তোমার অবাক করা আদর্শে। আমার ইচ্ছে করে চিৎকার করে বলতে, তোমাকে ভালবাসি হে নবী!





আরও পড়ুন



সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close