* ময়মনসিংহে শিক্ষকদের আহাজারী থামবে কবে           * ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুন-আটক ১           * স্লিপ প্যারালাইসিস বা ‘বোবায়’ ধরলে করণীয়           * কানাডার জয়ে অপেক্ষা বাড়লো বাংলাদেশের           *  ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু কাল, তুরাগমুখী মুসল্লিরা           * রাজশাহীতে মহাসড়কে গতিরোধকের দাবিতে অবরোধ           * সরিাজদখিানে সরকারী অনুদান বহিীন রাস্তা নর্মিাণ করলনে এক ঝাঁক তরুণ           *  নড়াইলের সীমান্তবর্তী বাঁকড়ীতে কমরেড অমল সেন স্মরণমেলার উদ্বোধন করলেন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন           * ডোমারে মাদক স¤্রাট আনজারুল ফেনসিডিলসহ আটক চেয়ারম্যান, মেম্বারের সুপারিশে ছেড়ে দিলেন বিজিপি।           * গাজীপুরে গৃহবধূকে হত্যার দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন           * দুধের লিটার পাঁচ টাকা, এলাচের কেজি ৮৫!           * ভোলায় চাষ হচ্ছে সুগন্ধি ধান, যাচ্ছে মালয়েশিয়ায়           * রোহিঙ্গাদের কথা শুনতে ঢাকায় জাতিসংঘের দূত           *  ভোট স্থগিতে হাত সরকারেরই: ফখরুল           *  শীতকালীন অলিম্পিকে এক পতাকার নিচে দুই কোরিয়া           * আইসিসির বর্ষসেরা একাদশে নেই কোনও বাংলাদেশি           *  সালমান-ক্যাটরিনার ‘বিয়ে’           * নবম ওয়েজ বোর্ডে সাংবাদিকদের স্বার্থ গুরুত্ব পাবে : তারানা হালিম           *  শীতার্ত বৃদ্ধার গায়ে নিজের জ্যাকেট খুলে পরিয়ে দিলেন পুলিশ সদস্য            * গত পাঁচ-ছয় বছরে কোটি-কোটি টাকার বালু বিক্রি, নিশ্চুপ প্রশাসন বদলগাছীতে ড্রেজিং করে নদী থেকে বালু উত্তোলন, অভিযোগ আওয়ামী লীগের নেতাদের বিরুদ্ধে          
* ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুন-আটক ১           * ময়মনসিংহে এস আই মলয় চক্রবর্তীর বিলাসবহুল বাড়ী           * ত্রিশালে সজীবের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে এই নাশকতার অপচেষ্টা কেন ?          

মুক্তিযুদ্ধের সৈনিক এখন ভিক্ষুক

নিজস্ব প্রতিবেদক | শুক্রবার, ডিসেম্বর ৮, ২০১৭
মুক্তিযুদ্ধের সৈনিক এখন ভিক্ষুক
স্যার আমাকে ১০টি টাকা দেন। রুটি খাবো। খুব খিদে পেয়েছে। কদিন ধরে খায়নি কিছু’। সামনে কোনো ভদ্রলোক পেলে স্যালুট দিয়ে সৈনিকের অঙ্গভঙ্গিমায় নম্র ভাষায় ভিক্ষুকের মতো হাত বাড়িয়ে দেন।
 এমন এক পাগলবেশী মানুষের সন্ধান পাওয়া গেছে হালুয়াঘাট উপজেলার উত্তর খয়রাকুড়ি গ্রামে। নাম তার আনোয়ার হোসেন। পিতা মৃত আমিন উদ্দিন সিকদার।
 ভিক্ষাবৃত্তিই তার একমাত্র পেশা। কারও মন চাইলে টাকা দেন, আবার কেউ মুখ ফিরিয়ে নেন। স্বাধীনতাযুদ্ধের ৪৬ বছর পেরিয়ে গেলেও এখনো তিনি মুক্তিযোদ্ধা ভাতার দাবি জানিয়ে আসছেন। যেই লোকটির জন্ম হয়েছিল ১৯৫২ সালের ১২ই সেপ্টেম্বর। তার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ১৯৭০ সালের ২রা মে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী (আর্মি সিরিয়াল নং ১০৩৩৮৩৭)তে যোগ দিয়েছিলেন।
প্রথম ট্রেনিং নেন চিটাগাং। তারপর চলে যান পাকিস্তানের করাচিতে। তিনি জানান, তখন তার সঙ্গে ছিলেন মেজর মোজাম্মেল, মেজর বর্ধন, নায়েক সুবেদার খলিলুর রহমান, হাবিলদার হাছেন আলীসহ অনেকেই। একপর্যায়ে স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু হলে করাচির ডিআই খান সেন্ট্রাল জেলে তাদের বন্দি করে রাখা হয়।
 একই জেলে ২৫শে মার্চ কালো রাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকেও আটক করে রেখেছিলেন বলে সৈনিক আনোয়ার হোসেন জানান। অবশেষে দেশ স্বাধীন হলে ১৯৭৪ সালের ১৭ই ডিসেম্বর দেশে ফেরার সুযোগ পান। এরপর পুনরায় বাংলাদেশে সেনাবাহিনীতে মনোনিবেশ দেন।
 যশোহর ক্যান্টনমেন্টে চাকরি করাবস্থায় চাকরি ছেড়ে দেন। এরপর থেকে উল্টা দিকে ঘুরে যায় তার ভাগ্যের চাকা। নিয়তির কাছে হার মেনে জীবিন-সংগ্রামে এক দুর্বিসহ জীবন এসে তাকে গ্রাস করে। ভিক্ষাবৃত্তির মতো একটা পেশাকে আঁকড়ে ধরে পাগলবেশে চলে তার জীবন।
আনোয়ার বলেন, স্যার আমার একটাই দাবি, সরকার যেন আমার ভাতার ব্যবস্থা করে দেয়। আমিও তো যুদ্ধ করার জন্যে প্রস্তুত ছিলাম। আমাকে যদি বন্ধি করে না রাখা হতো তাহলে মুক্তিযুদ্ধে আমিও তো ঝাঁপিয়ে পড়তাম। লক্ষ্মীকুড়া গ্রামের মতিন বলেন, আর্মি থাকাবস্থায় আনোয়ার আর আমি একই অবস্থায় পাকিস্তানে বন্দি ছিলাম।
 কিন্তু আমাদের ভাগ্যে কোনো স্বীকৃতি আজও মিলেনি। তিনি বলেন, আমাদের একটাই দাবি- সরকার যেন আমাদের ভাতার ব্যবস্থা করে দেয়।





আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close