* ভাঙ্গায় দৈনিক বাঙ্গালী খবর পত্রিকার ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন           * দুই বোনকে গণধর্ষণ, ইউপি সদস্য গ্রেফতার           * ইন্টারনেট স্যাটেলাইট বানাচ্ছে ফেসবুক           * মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলা           * যৌনাঙ্গে আঘাত করে স্বামীকে হত্যা           * নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সঙ্গে সংলাপ হবে না : কাদের           * শেরপুরে স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি গ্রেফতার            * ভালুকায় দেবর- ভাবির পরকীয়ার বলি বাবা- মা           * ইসলামে যাদের সঙ্গে বিবাহ হারাম           * তরুণীকে গেস্টহাউসে আটকে রেখে ৫০ জনের গণধর্ষণ            * মান্নার ছেলে নায়ক হবেন নাকি নির্মাতা?            * বিয়ের তোড়জোড় করায় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা            * ব্রেকআপের পরেও কি বন্ধুত্ব বজায় রাখা উচিৎ?           * সৌদি ও দুবাই থেকে ফিরলেন ১০৫ শ্রমিক           * বাবার ধর্ষণেই প্রথম সন্তানের জন্ম দেন তিনি           *  চাচাতো ভাইকে কুপিয়ে হত্যার পর আত্মসমর্পণ           *  স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, বৌভাতের অনুষ্ঠান থেকে বর আটক           * আলিয়াকে টেক্কা দিলেন জাহ্নবী           * তিন পেসার নিয়ে টাইগার একাদশ!           * উন্নয়নে কাদের আঁতে ঘা লাগে, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর          
* তিন পেসার নিয়ে টাইগার একাদশ!           * উন্নয়নে কাদের আঁতে ঘা লাগে, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর           * ভারী বর্ষণে ভিয়েতনামে নিহত ১০          

ঝিনাইগাতীতে বধ্যভূমিগুলো আজো সংরক্ষণ করা হয়নি

মুহাম্মদ আবু হেলাল | বুধবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৭
ঝিনাইগাতীতে বধ্যভূমিগুলো আজো সংরক্ষণ করা হয়নি

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার বধ্যভূমি গুলো ৪৬ বছরেও সংরক্ষণ করা হয়নি। ফলে অযত্মে আর অবহেলায় বধ্যভূমি গুলো গো-চারণ ভূমিতে পরিণত হয়েছে।

এ উপজেলার বধ্যভূমি গুলো হচ্ছে, আহমদনগর, জগতপুর, বগাডুবি, কাটাখালি, ঘাগড়া কোনাপাড়া, রাঙ্গামাটি। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় পাকহানাদার বাহিনী ও স্থানীয় রাজাকার, আলবদর’রা শতশত মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের সদস্যদের নির্বিচারে হত্যা করে এসব বধ্যভূমি গুলোতে গণকবর দেয়।

স্বাধীনতার ৪৬ বছরেও এসব বধ্যভূমি গুলো অরক্ষিত অবস্থায় পড়ে আছে। সরকার বা স্থানীয়ভাবে বধ্যভূমিগুলো আজো সংরক্ষণের উদ্যোগ নেয়া হয়নি। বধ্যভূমি গুলোর পাশে আজো নির্মিত হয়নি মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্তম্ভ।

ঘাগড়া কোনাপাড়া বধ্যভূমির পাশে এলজিইডি’র অর্থায়নে একটি স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করা হলেও তা অসম্পূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। স্মৃতিস্তম্ভটি রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে তা এখন গো-চারণ ভূমি।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন ও ভবিষৎ প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে অবহিত করতে হলে এসব বধ্যভূমি গুলো সংরক্ষণ করা প্রয়োজন বলে দাবী করেন স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা।  




 




আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close