* ওমরাহ পালন করলেন প্রধানমন্ত্রী           * ওবায়দুল কাদেরের উদারতা!           *  জেএসসি পরীক্ষা বাংলায় ভালো করার সহজ উপায়           * নেইমারকে দশ নম্বর জার্সি পরতে বাধ্য করা হয়           *  ১২৫ সিসির নতুন স্ট্রিট ফাইটার           * জ্বর-শ্বাসকষ্ট নিয়ে ধর্মমন্ত্রী হাসপাতালে           * আর কত হারবে হাথুরুর শ্রীলঙ্কা?            * চোখের সামনেই মেয়ের হত্যাকারীর ফাঁসি দেখলেন জয়নাবের বাবা            * জোটের পরিসর নিয়ে সিদ্ধান্ত পরে : কাদের            * শেখ হাসিনাকে আবার ক্ষমতায় দেখতে চান সৌদি বাদশাহও           * ‘রুপালি গিটার’ ছেড়ে চলে গেলেন আইয়ুব বাচ্চু           * মাধবদীর ‘জঙ্গি আস্তানায়’ ১৪৪ ধারা জারি           * বিশ্বকাপের ট্রফি এখন ঢাকায়           * এবার সৌদি সম্মেলন বয়কটের সিদ্ধান্ত গুগলের           * দুই জোটই আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ           * আজ রিয়াদে ব্যস্ত দিন কাটবে প্রধানমন্ত্রীর           * জুয়াড়িদের গুলিতে আহত সাংবাদিক অন্তর চিকিৎসার অভাবে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে           * সুনামগঞ্জে ১৮০ বোতল ভারতীয় মদসহ বিক্রেতা আটক           * দাম জানা গেল নকিয়া ৭.১ ফোনের           * পালিত হচ্ছে বিশ্ব খাদ্য দিবস          
* ওমরাহ পালন করলেন প্রধানমন্ত্রী           * ওবায়দুল কাদেরের উদারতা!           * আর কত হারবে হাথুরুর শ্রীলঙ্কা?           

মেয়েকে ছেলে বানিয়ে মচিমহায় তুলকালাম কান্ড

স্টাফ রিপোর্টার | শুক্রবার, জানুয়ারী ৫, ২০১৮
মেয়েকে ছেলে বানিয়ে মচিমহায় তুলকালাম কান্ড

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অমনোযোগিতা গাফিলতি কাজের প্রতি অনিহা প্রকাশ, রোগী এবং রোগীদের আত্বীয় স্বজনদের প্রতি অশালীন ব্যবহার দ্বীঘদিনের । এ নিয়ে একাদিকবার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ডাক্তার নার্স সরকারী কর্মচারীদের সাথে মিটিং সভা করল্ওে আদৌ ফলদায়ক কিছু ঘটেনি বরং হাসপাতালে আসা রোগী সমস্যা দিনদিনেই বাড়ছে ।

দুভোর্গে পড়েছে গ্রাম থেকে আসা নিরহ রোগী সাধারণ । এনিয়ে মিডিয়াও সরব হয়েছে বারবার । তবে গত ২০১৭ সনের ১০ ডিসেম্বর একটি দিনের ঘটনা সব ঘটনাকে ছাপিয়ে একটি কথিত সিনেম্যাটিক ঘটনার জম্ম দিয়েছে ।ওইদিন ১০ ডিসেম্বর মচিমহায় পাপিয়া নামের একজন গৃহবধূ লেভার ওয়ার্ডে ভর্তি হয় এবং একটি কন্যা সন্তানের জম্ম দেন ।

জানাযায়,সদ্য প্রসূত কন্যাটির অবস্থা খারাপ হলে তাকে ২৫ নং  শিশু ওয়ার্ডে নিয়ে যাওয়া হয় । জানাগেছে, ১০ দিন পর মা ও শিশু কন্যাটিকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয় । এ সময় রোগীনির আতœীয় স্বজনরা লক্ষ্য করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সকল কাগজপত্রেই মেয়ের স্থলে ছেলে উল্লেখ করা হয়েছে । এতে পাপিয়া এবং তার আত্বীয় স্বজন কিংকতব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েন ।

বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে ময়মনসিংহে কর্মরত মিডিয়া কর্মীরাও বিষয়টি লুফেনেন। এ সময় শহরে তোলপাড় সৃষ্টি হয় । পরবর্তীতে মচিমহায় কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে নড়েচরে বসেন ।

পরে মচিমহা কর্তৃপক্ষ তিনসদস্য কমিটি গঠন করে মেয়ে কিভাবে ছেলে হলো তা নিয়ে তদন্তে নামেন পুলিশ এবং একটি মামলা রজু করেন । একটি সূত্র জানান,তদন্তে ধারাবাহিকতায় ডিএনএ ,এর প্রশ্নটি সামনে আসে । পরবর্তীতে ডিএনএ টেস্ট পরিক্ষায় গৃহবধূ পাপিয়া যে কন্যা সন্তানই জম্ম দিয়েছেন সেটা প্রমানিত হয় ।

অথচ মচিমহা কর্তৃপক্ষ একবারও তদারকী করার প্রয়োজন বোধ করলেন না যে,প্রসূতির ছেলে না মেয়ে হয়েছে কিন্তুক সংশ্লিষ্ট বিভাগের প্রতিটি কাগজপত্রে ছেলে উল্লেখ করে ডাক্তার সেটাই সার্টিফাই করে গেলেন । সূত্র জানায়,বিষয়টি এতোটাই হাস্যকর এবং লজ্জাস্কর যে মচিমহায় কর্মরত চিকিৎসক নার্স কর্মচারী কর্মকর্তাগন প্রতিজনেই সন্তান জম্ম দেবার মত একটি স্পর্শকাতর বিষয়কে নেহায়্যে হেলাফেলায় দুর্বল দায়িত্ব পালন করে গেলেন ।

সূত্র জানান,এই ঘঠনার পরপরেই মামলা হয় আন্দোলন হয় তদন্ত কমিটি গঠিত হয় সর্বোপরি ভোগান্তি হয় এবং মিডিয়ায় তোলপাড় হয় কিন্তুক ঘটনাটি ছিল একেবারেই সাধারন অথচ মচিমহা কর্তৃপক্ষ এবং সংশ্লিষ্ট ডাক্তার নার্সরা মেয়েকে ছেলে বানিয়ে সিনেমার মত একটি তোলকালাম ঘটনার জম্ম দিলেন যা সিরিয়াস কিন্তুক হাস্যরমে ভয়পুর । শহরের মানুষ বলছেন,মচিমহার কর্তৃপক্ষ প্রায়ই ভৌতিক কান্ডের জম্ম দিয়ে নিরহ সাধারন মানুষকে বিপাকে ফেলছেন । তাদের শুভবুদ্ধির উদয় কী কোনদিনেই হবেনা অভিমত ময়মনসিংহবাসী ।





আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close