* অন্ধকার জীবনের মাশুল গুনছেন মিয়া খলিফা           * কমিশন নিয়ে ওষধু লেখার কারণে ডাক্তারি পেশা নষ্ট হচ্ছে: হাইকোর্ট           * লবণের গুজব প্রতিরোধে মসজিদে মসজিদে মাইকিং           * গুজব... মিয়া খলিফা গর্ভবতী!           * জীবনে সফলতা পেতে ছয়টি ব্যর্থতার স্বাদ অবশ্যই নিন           * আগামী বছরে সরকারি চাকরিজীবিদের বেতন কমবে            * কোটি টাকার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে আবারো আলোচনায় অভিনেত্রী           * ধর্ষণে অতিষ্ঠ হয়ে যুবককে খুন করল পুরো পরিবার            * দোকানের সব লবণ জনতার মাঝে বিলিয়ে দিলেন এসিল্যান্ড            * পূবালী ব্যাংকের এটিএম বুথে টাকা চুরি            * এবার সেফুদার সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ           * দেবীগঞ্জে বোমা সদৃশ বস্তু উদ্ধার           *  এক কেজির বেশি লবণ কিনলেই আটক করছে পুলিশ            * লবণের দাম নিয়ে গুজবে আটক ১৪           * তারাকান্দায় নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার           *  লবণ ইস্যুতে পুলিশকে মাঠে নামার নির্দেশ            * রোহিঙ্গা ক্যম্পে এনজিও সংস্থা 'এফএইচ' এ চাকরি করছে ৭ রোহিঙ্গা-           * নেত্রকোনায় শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের জমির দলিল হস্তান্তর ও চেক বিতরণ           * সঞ্চয়ের টাকা আত্বাসাতের প্রতিবাদে সুনামগঞ্জে দু:স্থ মহিলাদের বিক্ষোভ মিছিল           * ২ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অভিযানে জরিমানা          
* দৃশ্যমান হতে যাচ্ছে পদ্মা সেতুর আড়াই কিলোমিটার           * মেয়ের বাবা হলেন তামিম           * পরিবহন আইন বাতিলের দাবিতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ          

চিলাহাটি রেলওয়ে ষ্টেশনে যাত্রীদের দূরবস্থার শেষ নেই

বখতিয়ার ঈবনে জীবন, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ | মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৯, ২০১৮
চিলাহাটি রেলওয়ে ষ্টেশনে যাত্রীদের দূরবস্থার শেষ নেই
 নীলফামারী জেলার সীমান্তে অবস্থিত রেলওয়ে ষ্টেশন চিলাহাটিতে যাত্রীদের আজ দূরবস্থার শেষ নেই। এই রেলওয়ে ষ্টেশনে যাত্রীদের সুবিধার চেয়ে অসুবিধাই বেশী। এক সময়ে এই চিলাহাটি ষ্টেশন জমজমাট থাকার পর পাক-ভারতের যুদ্ধের পর বন্ধ হয়ে যাওয়ায় প্রায় নাজেহাল অবস্থা  হয়ে পড়ে। দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অত্র অঞ্চলে মানুষের চলাচলের সবিধার জন্য গত ১৩/১৪ অর্থ বছরে ১৬০ কোটী টাকা ব্যায়ে পার্বর্তীপুর চিলাহাটি ৫৮ কি.মি রেলপথ সংষ্কার করা হয় যাহা ২০১৫ সালে শেষ হয়। এর পর প্রথমে চিলাহাটি- ঢাকা আন্তনগর নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি চলাচল শুরু করে। পরবর্তীতে রুপসা ও বরন্দ্রো এক্সপ্রেস সহ মোট ৬ টি ট্রেন চলাচল করে। বর্তমানে চিলাহাটি রেলষ্টেশনে প্রতিদিন প্রায় কয়েক হাজার যাত্রী যাওয়া আসা করে। সেই অনুপাতে যাত্রী সাধারন সুবিধার চেয়ে অসুবিধা ভোগ করেন বেশী। প্রথম শ্রেনীর যাত্রীদের ওয়েটিং রুম আছে কিন্তু তা ব্যবহার যোগ্য নয়। পানির ব্যবস্থা নেই, ওয়েটিং রুমে এখন কাথা কম্বল রাখার জায়গা হয়েছে। যাত্রীদের সবচেয়ে বিপদ জনক ও অসুবিধাটি হল রুপসা/সীমান্ত ট্রেনে যাত্রীদের ওঠা নামা করা। ট্রেন দুইটি প্রতিদিন ২ নম্বর লাইনে এসে ওখান থেকেই ছেড়ে চলে যায়। যাত্রীদের প্লাটফরম থেকে ৪ ফিট নিচে নেমে ১০ ফিট পেরিয়ে ৬ ফিট উচুতে ট্রেনে উঠতে হয়। যাহা বৃদ্ধা, নারী , শিশু, রোগী এমনকি সুস্থ সবল যাত্রীদেরও  ট্রেনে ওঠা নামা বিপদ জনক হয়ে দাড়ায় । যে কোন মুহুত্বে একজন যাত্রী উঠা বা নামার সময় পড়ে গিয়ে আহত হতে পারে। ইতি পূর্বে এই ভাবে নামতে উঠতে গিয়ে পড়ে গিয়ে কয়েক জনকে হাসপাতালে নিতে হয়েছে। এ ব্যপারে জনগন বহুবার কৃতপক্ষের নিকট আবেদন করেও কোন ফল পায়নি। এ ব্যপারে চিলাহাটি ষ্টেশন মাষ্টার হারুন রশিদ সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন যে, যেহেতু ট্রেনটি খুলনা থেকে চিলাহাটি আসার পর ৪৫ মিনিট সময় থাকে ছেড়ে যাওয়ার এ সময়ের মধ্যে ট্রেনটিকে ওয়াস ফিটে নিয়ে গিয়ে আবার ১ নম্বর লাইন থেকে ছেড়ে যাওয়ার সময় সংকুলন হয়না। তাই ট্রেনটি ২ নম্বর লাইনে দাড়ানো অবস্থায় ওয়াসফিট করে ওখান থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। যাত্রীদের অনেক সময় অসুবিধা হয় তাই এ ব্যপারে আমি উধ্বর্তন কৃতপক্ষকে জানিয়েছি।
চিলাহাটি রেলওয়ে ষ্টেশনে যাত্রীদের দূরবস্থার শেষ নেই
বখতিয়ার ঈবনে জীবন, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারী জেলার সীমান্তে অবস্থিত রেলওয়ে ষ্টেশন চিলাহাটিতে যাত্রীদের আজ দূরবস্থার শেষ নেই। এই রেলওয়ে ষ্টেশনে যাত্রীদের সুবিধার চেয়ে অসুবিধাই বেশী। এক সময়ে এই চিলাহাটি ষ্টেশন জমজমাট থাকার পর পাক-ভারতের যুদ্ধের পর বন্ধ হয়ে যাওয়ায় প্রায় নাজেহাল অবস্থা  হয়ে পড়ে। দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অত্র অঞ্চলে মানুষের চলাচলের সবিধার জন্য গত ১৩/১৪ অর্থ বছরে ১৬০ কোটী টাকা ব্যায়ে পার্বর্তীপুর চিলাহাটি ৫৮ কি.মি রেলপথ সংষ্কার করা হয় যাহা ২০১৫ সালে শেষ হয়। এর পর প্রথমে চিলাহাটি- ঢাকা আন্তনগর নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি চলাচল শুরু করে। পরবর্তীতে রুপসা ও বরন্দ্রো এক্সপ্রেস সহ মোট ৬ টি ট্রেন চলাচল করে। বর্তমানে চিলাহাটি রেলষ্টেশনে প্রতিদিন প্রায় কয়েক হাজার যাত্রী যাওয়া আসা করে। সেই অনুপাতে যাত্রী সাধারন সুবিধার চেয়ে অসুবিধা ভোগ করেন বেশী। প্রথম শ্রেনীর যাত্রীদের ওয়েটিং রুম আছে কিন্তু তা ব্যবহার যোগ্য নয়। পানির ব্যবস্থা নেই, ওয়েটিং রুমে এখন কাথা কম্বল রাখার জায়গা হয়েছে। যাত্রীদের সবচেয়ে বিপদ জনক ও অসুবিধাটি হল রুপসা/সীমান্ত ট্রেনে যাত্রীদের ওঠা নামা করা। ট্রেন দুইটি প্রতিদিন ২ নম্বর লাইনে এসে ওখান থেকেই ছেড়ে চলে যায়। যাত্রীদের প্লাটফরম থেকে ৪ ফিট নিচে নেমে ১০ ফিট পেরিয়ে ৬ ফিট উচুতে ট্রেনে উঠতে হয়। যাহা বৃদ্ধা, নারী , শিশু, রোগী এমনকি সুস্থ সবল যাত্রীদেরও  ট্রেনে ওঠা নামা বিপদ জনক হয়ে দাড়ায় । যে কোন মুহুত্বে একজন যাত্রী উঠা বা নামার সময় পড়ে গিয়ে আহত হতে পারে। ইতি পূর্বে এই ভাবে নামতে উঠতে গিয়ে পড়ে গিয়ে কয়েক জনকে হাসপাতালে নিতে হয়েছে। এ ব্যপারে জনগন বহুবার কৃতপক্ষের নিকট আবেদন করেও কোন ফল পায়নি। এ ব্যপারে চিলাহাটি ষ্টেশন মাষ্টার হারুন রশিদ সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন যে, যেহেতু ট্রেনটি খুলনা থেকে চিলাহাটি আসার পর ৪৫ মিনিট সময় থাকে ছেড়ে যাওয়ার এ সময়ের মধ্যে ট্রেনটিকে ওয়াস ফিটে নিয়ে গিয়ে আবার ১ নম্বর লাইন থেকে ছেড়ে যাওয়ার সময় সংকুলন হয়না। তাই ট্রেনটি ২ নম্বর লাইনে দাড়ানো অবস্থায় ওয়াসফিট করে ওখান থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। যাত্রীদের অনেক সময় অসুবিধা হয় তাই এ ব্যপারে আমি উধ্বর্তন কৃতপক্ষকে জানিয়েছি।




আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close