* বিদ্যুৎ বিভাগের অবহেলায় প্রাণ গেল কলেজ ছাত্রের           * সিলেট সিটিতে জামায়াতের ধাক্কা, জাতীয় নির্বাচন নিয়ে শঙ্কায় বিএনপি           * বেশি বয়সে বিয়ে করেছিলেন যে অভিনেত্রীরা           * নিরাপত্তার অভাবে নওয়াজ ও মরিয়মকে সিহালা রেস্ট হাউসে নেওয়া হচ্ছে না           * ১২ঘণ্টার ব্যবধানে ডাকাতি মামলার আসামি গ্রেফতার           * দুই নৈশপ্রহরীকে খুন করে তিন দোকানে ডাকাতি           * অফিসে ঘুম পেলে কী করবেন?            * সন্তানসম্ভবা মায়েরা ভৌতিক স্বপ্ন দেখেন যে কারণে            * প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে যুবক ধরা           * ‘সংবর্ধনা প্রয়োজন নেই, আমি জনগণের সেবক’           * ১২ লাখ রুপির গয়না আত্মসাতের অভিযোগ           * ঝকঝকে সাদা দাঁতের জন্য অবশ্যই মেনে চলুন ৯টি নিয়ম           * ধাড়াক’ ছবিতে শ্রীদেবী-কন্যা জাহ্নবীর পারিশ্রমিক কত জানেন?           * হালুয়াঘাটের বিএনপি নেতা সালমান ওমরের সম্মাননা গ্রহণ            *  আওয়ামী লীগে যোগ দিচ্ছেন হাওয়া ভবনের আলী আসগার লবি            *  আজই প্রধানমন্ত্রীর মুখে ঘোষণাটা চান মওদুদ           *  নওগাঁয় একসাথে ছয় সন্তান প্রসব           *  গুপ্তধনের খোঁজে মিরপুরে এলাহী কারবার           * মিরপুরে বাড়ির নিচে ‘গুপ্তধনের’ সন্ধানে পুলিশের অভিযান           * ধার করা বই পড়ে উপজেলার সেরা দিনমজুরের মেয়ে কাকলী          
* বিশ্বের সবচেয়ে দামী গোলরক্ষক ব্রাজিলের অ্যালিসন            * থানায় গিয়ে বান্ধবীর বিয়ে ভাঙল তিন কিশোরী            * ফল বিপর্যয়ে ইংরেজি ও আইসিটি           

ডজন ডজন অভিযোগেও ব্যবস্থা নেয়নি ময়মনসিংহের পুলিশ !

স্টার রিপোর্টার | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১১, ২০১৮
ডজন ডজন অভিযোগেও ব্যবস্থা নেয়নি ময়মনসিংহের পুলিশ !

 প্রায় হাক ডজন খানি মামলার আসামী, পুলিশের দেয়া প্রতিবেদনে মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক ব্যবসায়ীদের শেলটার দাতা কতিথ নামধারী সাংবাদিকের বিরুদ্ধে স্থানীয় প্রশাসন আদৌ কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় সাংবাদিক সমাজের মাঝে ক্ষোবের সৃষ্টি হয়েছে। প্রশাসনের হাতে গুনা মাঝারী পর্যায়ের গুটি কয়েক কর্তার ব্যায় বাজার পাঠিয়ে ও বিভিন্ন পরবে উপডোকন দিয়ে নিজের অবস্থানকে শক্ত রেখেছেন বলে জানাগেছে।

প্রাপ্ত তথ্যে জানাগেছে, পতিতা পল্লীতে নারী বিক্রি, নারী অপহরণ, জাল-জালিয়াতি, চুরি ছিনতাইসহ প্রায় হাফ ডজন মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে। পতিতা পল্লীর পতিতা, সাংবাদিক ও পুলিশের সাবেক ডিআইজিসহ বিভিন্ন লোকে এসকল মামলা দিয়েছেন।

এ ছাড়াও প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজী, মাদক ব্যবসা ও তার কার্যালয়ে ময়মনসিংহ শহরের শীর্ষ মাদক ব্যবাসয়ী ও মাদক সেবীদের জলসা বসে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান। মাদক স¤্রাটদের সাথে তার দীর্ঘদিনের সখ্যতা। তার সহকারীরাও মাদক ব্যবসায়ী। তাদের নামে মামলা রয়েছে। তার সহ কর্মীর প্রায় সবাই পতিতা পল্লীর বাসিন্দা।

তার সহকর্মীদের বিয়ে বা অন্য কোন অনুষ্ঠানে অর্র্থ যোগানে পতিতা পল্লী থেকে চাঁদাবাজী করা হয়। এরা গভীরাত পর্যন্ত গাঙ্গিনাপাড় এলাকায় মদ্যপ অবস্থায়  ঘুরাফেরা করে। তারা নাকি মদের পারমিট রয়েছে ।

এদের অসাদ আচরনে রাস্তার টহল পুলিশেরাও বিব্রত হন। জানাযায় থানার ও ফাঁড়ি পুলিশের অনেকের সাথে তিনি তুই তোয়াক্কার আচারণ করে থাকে। বিদ্যার বহরহীন এই কতিথ সাংবাদিকের আচরনে অনেক পুলিশ অফিসার অতিষ্ঠ ও বিব্রত। কোতোয়ালী মডেল থানার সাবেক এ,এস,পি আব্দুর রশিদ এই কতিথ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে তিনটি রিপোট্র্ দিয়েছেলেন। এগুলো আর আলোর মুখ দেখেনি। নেয়া হয়নী আইনি প্রতিকার। এই কতিথ সাংবাদিক পুলিশ বিরোধী ভয়ংকর শুধাংসুকেও ছাড়িয়ে গেছেন।

    প্রাপ্ততথ্যে জানাগেছে, প্রতিদিন সকাল ৯টায় এই কতিথ সাংবাদিক পতিতা পল্লীর গেইটে একটি সেলুনে বসে থাকে দুপুর দুটা পর্যন্ত। এখানে করেন লিগার সোপ থেকে ৪/৫টি মদের বোতল তোলে চড়া দামে বিক্রি করে থাকে বলে অভিযোগ। প্রতিদিন এই রোটিনে তার চামচারাও পাশে থাকে। যা স্থানীয় একটি হোটেলের সিসি ক্যামেরায় বন্ধি থাকে।

এছাড়াও বিভিন্ন পতিতাদের হুমকী দিয়ে তিনি ব্যানসন সিগেরেট নিয়ে থাকেন। এশহরে প্রচার আছে, তাকে নাকি ১নং পুলিশ ফাঁড়ি থেকে প্রতিদিন ২ পেকেট ব্যানসন সিগেরেট দিতে হয়। না দিলে নাকি তিনি তাকে বদলী করে দেয়া হুমকি দেন। তার মিথ্যা অভিযোগে এ পুলিশ ফাঁড়ির অনেকেই থাকেন আতঙ্কিত। যে কোন বড় ধরনের মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার হলেই তার তদবির থাকে পুলিশের কাছে।

তিনিও কতিথ সমালোচিত ব্যক্তির মতই পুলিশের নামে বেনামে অভিযোগ করে থাকেন। এ পর্যন্ত তিনি বিভিন্ন লোকের নামে শ’খানেক জিডি ও মামলা করেছেন। কোনটাই প্রমান করতে পারেনি। শুধু পুলিশ নয়, সাংবাদিক, রাজনীতি বিদ, ব্যবসায়ীসহ বহু লোকজনই তার ব্যপক সমালোচনা করেন। এসকল অপরাধ প্রেমীদের প্রতিহত না করলে বা আইনী পদক্ষেপ না নিলে মাদক ব্যবসাসহ অপরাধ প্রবনতা বাড়বে বলে সুশীল সমাজের অভিমত।





আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close