* শীতকালে শুষ্ক ও ফাটা ত্বকের ঘরোয়া সমাধান           *  ইতিহাস গড়ে জিতল বাংলাদেশ           *  দণ্ডিতদের ভোটে আসার পথ আটকাই থাকল           *  গোলাম মাওলা রনির মনোনয়নপত্র বাতিল           * হিরো আলমের প্রার্থিতা বাতিল           *  ইবি অধ্যাপক নূরী আর নেই           * কেন্দুয়ায় চিথোলিয়া গ্রামে বসেছিল রাতব্যাপী লালন সংগীতের আসর           * গাজীপুরে মরুভূমি ফুল এর মানবন্ধন           *  শান্তিচুক্তির ২১ বছর পাহাড়ে থামেনি ভাতৃঘাতী সংঘাত           *  প্রতিপক্ষকে প্রথমবার ফলোঅন করালো বাংলাদেশ           *  ১৫০ সিসির নতুন পালসার আনল বাজাজ           *  গাঁজা সেবনের দায়ে যুবকের জেল           *  সেরা ডিজিটাল ব্যাংকের পুরস্কার পেল সিটি ব্যাংক           * দেশে পৌঁছেছে ‘হংসবলাকা’            * মোদি কেমন হিন্দু, প্রশ্ন রাহুলের            * মিরাজের ঘূর্ণিতে ফলোঅনে উইন্ডিজ           * কাঠবোঝাই ট্রাক চাপায় প্রাণ গেল তিন শ্রমিকের           * নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত           * আলাস্কায় ভয়াবহ ভূমিকম্প, ৬ ঘণ্টায় ৪০ বার কম্পন           * জাতিসংঘের মিশনে বিমান বাহিনীর ২০২ সদস্যের কঙ্গো গমন          
* দেশে পৌঁছেছে ‘হংসবলাকা’            * মোদি কেমন হিন্দু, প্রশ্ন রাহুলের            * মিরাজের ঘূর্ণিতে ফলোঅনে উইন্ডিজ          

ঝিনাইদহ বাজার গোপালপুর গ্রামের বাক প্রতিবন্ধি এখন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ি

ঝিনাইদহ | সোমবার, ফেব্রুয়ারী ১৯, ২০১৮
ঝিনাইদহ বাজার গোপালপুর গ্রামের বাক প্রতিবন্ধি এখন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ি
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বাজার গোপালপুর গ্রামের বাক প্রতিবন্ধি রিপন হোসেন এখন কারো মুখাপেক্ষি নয়। কথা না বলতে পারলেও চায়ের দোকান করে দীর্ঘ কয়েক বছর ব্যবসা করে চলেছেন। এরই মধ্যে কয়েক বছর ব্যবসা করে প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন। সংসারে এসেছে স্বচ্ছলতা-শান্তি। বাজারের বেশ কিছু সাধারন ব্যবসায়িরা জানান, সদর উপজেলার মধুহাটি ইউনিয়নের বাজার গোপালপুর গ্রামের মতিয়ার রহমানের ছেলে রিপন হোসেন জন্ম থেকেই বাক-প্রতিবন্ধি। লেখা পড়ার প্রতি ছিল তার মাত্রাধিক আগ্রহ। কিন্তু কথা বলতে না পারার কারনে সে বেশি দুর এগোতে পারেনি। শিখেছেন সকল হিসাব নিকাশ ও ব্যক্তি বর্গের নাম লেখা। ছেলের এমন অবস্থায় পরিবারের অবিভাবকেরা ছিল চিন্তিত। এক পর্যায়ে গ্রামের বাজারেই একটি চায়ের দোকান দিয়ে সে ব্যবসা শুরু করেন। প্রথম দিকে ব্যবসা করতে পারা আর না পারা নিয়ে চিন্তায় ছিল তার অভিভাবকেরা। কিন্তু প্রথম দিকে একটু সমস্যা মনে হলেও ধিরে ধিরে স্বাভাবিক ব্যাক্তির মতই ব্যবসা করে চরেছেন। দোকানের সকল বিক্রেতা ক্রেতাদের সাথে ইশারা, ইঙ্গিত আর লেখনীর মাধ্যমে সকল হিসাব নিকাশ করছেন। স্বাভাবিক আর দশ জন ব্যবসায়ির মতই সে ব্যবসা করছেন। এখন তার সংসারে এসেছে স্বচ্ছলতা। স্থানীয় ব্যবসায়ি মহিউদ্দিন জানান, বাক প্রতিবন্ধিদের প্রতি অবহেলা না করে অভিভাবকেরা তার সন্তানকে সঠিক ভাবে পরিচালনা করলে তারাও সমাজের আরো দশজন ব্যাক্তির মত স্বভাবিক ভাবে জীবন-যাপন করতে পারেন এটাই তার প্রমান করে।




আরও পড়ুন



সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close