* সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল মা ও শিশুর           * গাজীপুরে নিরপেক্ষ নির্বাচন করবে ইসি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী           * পুলিশের বিশেষ অভিযানে গ্রেফতার-২১           * এখন শুধু ভোটের অপেক্ষা: কেন্দ্রে যাচ্ছে সরঞ্জাম           * দেখা হলো কথা হলো না           * ভেজাল ওষুধ ও তৈরির উপকরণসহ মা-ছেলে আটক           * দেশের ১৩টি রেলওয়ে স্টেশনে ওয়াই-ফাই সেবা চালু           * ভাগ্য খুলছে নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের           * বাবা-মা প্রেমিককে পছন্দ না করলে যা করবেন           * হোটেলের বিছানার চাদর-বালিশ সাদা হয় কেন?            * আর্জেন্টিনা দলে অন্তর্কলহের খবরে ক্ষিপ্ত মাচেরানো            * নাশকতার মামলায় খালেদা জিয়ার জামিনের রায় মঙ্গলবার           * ‘চুম্বন’ থাকায় সরে দাঁড়ালেন জয়া           * সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর            * ছোট ভাই ও বড় ভাইয়ের মাঝে বউ বদল           * আবারও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট হলেন এরদোয়ান           * আষাঢ়ের দাবাদহে তপ্ত বরেন্দ্রঞ্চল           * ময়মনসিংহ রেঞ্জে শ্রেষ্ঠ পুলিশ অফিসারদের পুরষ্কার বিতরন           * জীবন দিয়ে হলেও ভোট কারচুপি ঠেকাবো: হাসান সরকার           * ঐতিহ্যপূর্ন মৃৎ শিল্পের যৌবন হারানোর পথে          
* এখন শুধু ভোটের অপেক্ষা: কেন্দ্রে যাচ্ছে সরঞ্জাম           * সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর            * আবারও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট হলেন এরদোয়ান          

কেন্দুয়ায় মাছ ও ফসল রক্ষা বাড়লা খাল খননের দাবীতে কৃষক সমাজের বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার | মঙ্গলবার, মার্চ ১৩, ২০১৮
কেন্দুয়ায় মাছ ও ফসল রক্ষা বাড়লা খাল খননের দাবীতে কৃষক সমাজের বিক্ষোভ

নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলার পাইকুড়া ইউনিয়নে দেশীয় জাতের মাছ বৃদ্ধি ও বোরো ফসল রক্ষা বাড়লা খালের খনন কাজে বাধা সৃষ্টি করায় বিক্ষুব্ধ হয়েছেন কৃষক সমাজ। পাঁচটি গ্রামের শত শত কৃষক পরিবারের সদস্যরা ভরাট এই খালটি পুনঃখননের চালিয়ে যাবার দাবী জানাচ্ছেন, এ দাবীতে কৃষক সমাজ সোমবার খালের পাড়ে বিক্ষোভ ও মাবনবন্ধন করেন।

জানা যায়, মৎস্য অধিদপ্তরের উদ্যোগে জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্পের আওতায় নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার পাইকুড়া ইউনিয়নের বাড়লা খাল খননে চলতি অর্থ বছরে ৩৮ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। বাড়লা গ্রামের সামনে ত্রিমোহনা নামক স্থান থেকে এখালের খনন কাজ শুরু করা হয় কিছুদিন আগে।

দুটি প্রকল্প কমিটি গঠন করে এ কাজ চলছে। প্রতিদিন শ্রমিকরা ভরাট খাল থেকে মাটি কেটে খালের দুপাশে তুলছেন। একটি প্রকল্প কমিটির সভাপতি কৃষক সবুজ মিয়া অপরটির সভাপতি কৃষক ফজলুর রহমান। পাইকুড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আজিজুর রহমান আরজু জানান, বাড়লা, হাড়াকান্দি, চিটুয়া নওপাড়া ও মজলিশপুর মৌজায় বাড়লা খালের অবস্থান।

এই খালের দুই পাশে বাড়লা, বালিয়া, উন্দ্রি, পিত্রাইল ও চারিয়া বিলের প্রায় ৬শ হেক্টর একফসলি বোরো জমিতে আবাদ করেন মজলিশপুর, খালিজুড়া, বাড়লা, চিটুয়া নওপাড়া ও পেমই গ্রামের কৃষকরা। সোমবার দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখাযায়, কৃষকরা খালের খননকাজ চালিয়ে যাবার জন্যে বিক্ষোভ ও মানবন্ধন তৈরি করেছেন খালপাড়ে।

মজলিশপুর গ্রামের কৃষক মতিউর রহমান, কাজল মিয়া, চন্দন মিয়া, শরিফ মিয়া, রতন মিয়া, সুমন মিয়া, কাঞ্চন মিয়া, বাদল মিয়া, হেলাল মিয়া, সোহগ মিয়া, আবুল হোসেন, রতন মিয়া,  চিটুয়া নওপাড়া গ্রামের এন্টাস ভূঞা, খালিজুড়া গ্রামের হাসু মিয়া মিয়া, পেমই গ্রামের হাদিস মিয়া জানান, এই বাড়লা খালটি ভরাট হয়ে গিয়েছিল। খালটি সরকারের উদ্যোগে সম্পূর্ণ ভাবে খনন করার কাজ চলছে। এই খালটি খনন করা হলে আমাদের বিলের সব জমির ফসল রক্ষা হবে। কৃষক মতিউর রহমান বলেন, বৈশাখ মাসে সামান্য বৃষ্টি হলেই ভরাট খাল দিয়ে পানি চলাচল করেনা।

এর ফলে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়ে বোরো জমির পাকা ধান তলিয়ে যায়। কৃষক হান্নান মিয়া জানান, গত বৈশাখ মাসে আগাম বন্যা ও জলাবদ্ধতায় তাদের সব ফসলি জমি পানির নিচে তলিয়ে গেছে। তারা এক মুষ্ঠি ধানও ঘরে তুলতে পারেননি। মজলিশপুর গ্রামের কৃষক কাঞ্চন মিয়া জানান, আমাদের গ্রামের এলাহি নেওয়াজ খাল খননে আদালতে অভিযোগ দিয়ে যে বাধার সৃষ্টি করছেন তা আমরা কৃষকরা মানিনা। এই বিলগুলোতে এলাহি নেওয়াজের এক শতাংশ জমিও নেই।

প্রকল্প কমিটির সভাপতি সবুজ মিয়া অভিযোগ করে বলেন, এলাহি নেওয়াজ এই প্রকল্পের কাজ করাতে হলে চাঁদা দাবী করেছিলেন, তা না দেওয়ায় তিনি আদালতে একটি অভিযোগ দিয়েছেন। কৃষক বাদল মিয়া সহ সব কৃষকরা এক সঙ্গে উচ্চস্বরে বলেন, আমরা এই খালে দেশীয় মাছ চাষ করতে চাই, একই সঙ্গে আমাদের ফসল রক্ষার জন্য খালটির খনন কাজ শেষ করারও দাবী করছি। তারা বলেন, এই খালটি খনন হলে সূতি নদীতে গিয়ে বিলের পানি খাল দিয়ে প্রবাহিত হবে। এতে খালে মাছ চাষও হবে বোরো জমির ফসল রক্ষাও হবে।

জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্পের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো: মাহবুবুল আলম জানান, এই প্রকল্পটির অনেক গুরুত্ব রয়েছে। প্রকল্পের কাজ সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন হলে এই খালে এক দিকে যেমন মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে, অপর দিকে খাল দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়ে ফসল রক্ষার ফলে কৃষকের মুখে হাসি ফুটবে। এদিকে এলাহি নেওয়াজের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।





আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close