* মৃত্যুর ১৪ দিন পর কবর থেকে তাসলিমার লাশ উত্তোলন           *  বরগুনার এসপি এবার বললেন, ‘স্বীকারোক্তি তো পুলিশের কাছে হয় না, হয় জজের কাছে’            *  দুর্নীতির অভিযোগে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী আব্বাসি গ্রেফতার           * পূর্বধলায় ছেলে ধরা সন্দেহে ১ জন আটক            * শিশুর কাটা মাথা নিয়ে মদ খেতে গিয়েছিলেন ওই যুবক           * ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ ওয়াসার ‘লুকোচুরি’           * ১০৩ টাকায় পুলিশে চাকরি, গফরগাঁও থানায় সংবর্ধনা           *  কেউ পাস করেনি ১ বেসরকারি কলেজে ময়মনসিংহের ৩ সরকারি কলেজে এইচএসসি’র ফল বিপর্যয়           * ত্রিশালের উন্নয়নে সকলকে কাজ করতে হবে ---------- বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিন সরকার           * বাল্য বিবাহ রোধে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে ------------মোজাহারুল হক শহীদ           * নেত্রকোনায় অজ্ঞাত যুবকের ব্যাগে শিশুর মাথা, গণপিটুনিতে হত্যা           *  মুক্তাগাছা থানা পুলিশের নাম ভাঙিয়ে দালালদের দৌরাত্ম্য           * অচেতন শিশু নিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি, কথিত বাবাকে পুলিশে দিয়ে হাসপাতালে ছুটলেন এএসপি           *  এইচএসসি’র ফলাফলে জিপিএ-৫ কমেছে ময়মনসিংহের সেরা ১২ কলেজ থেকে ১,১৩৭জন জিপিএ-৫ পেয়েছে           *  ময়মনসিংহ ডিবি’র পৃথক অভিযানে ৮১ পিস ইয়াবা ও ২৯ গ্রাম সহ গ্রেফতার ০৫           * মিন্নি পাঁচ দিনের রিমান্ডে           *  ইকোপার্ক উন্নয়ন অনিয়মের অভিযোগে কুষ্টিয়ার ডিসিকে শোকজ           * যে কারণে গ্রেফতার হলেন মিন্নি           * বরগুনা স্টাইলে টঙ্গীতে কিশোর খুন মায়ের আর্তনাদে কাঁদলেন র‌্যাব কর্মকর্তারাও            * দিয়াবাড়ির অস্ত্র রহস্য তিন বছর পরও অজানা          
* শিশুর কাটা মাথা নিয়ে মদ খেতে গিয়েছিলেন ওই যুবক           * দিয়াবাড়ির অস্ত্র রহস্য তিন বছর পরও অজানা           * ত্রিশালে বাধাগ্রস্থ উন্নয়ন রাজনৈতিক বিরোধের সুযোগে সরকারি কর্মকর্তাদের দুর্নীতি          

বাবার ঋণের কিস্তি যোগাতে পড়াশোনা বন্ধ বেলালের

মুনিরুজ্জামান মুনির, নন্দীগ্রাম (বগুড়া) | রবিবার, এপ্রিল ৮, ২০১৮

বাবার ঋণের কিস্তি যোগাতে পড়াশোনা বন্ধ বেলালের
বগুড়ার নন্দীগ্রামে বাবার লোনের কিস্তির টাকা জোগাড় করতে বন্ধ হয়ে গেল মেধাবী বেলাল হোসেনের (১২) পড়াশোনা। উপজেলার সদর ইউনিয়নের দলগাছা গ্রামে অত্যন্ত গরিব ঘরে জন্ম তার। মা-বাবা ও ছোট এক ভাই নিয়ে তাদের পরিবার। তার বাবা লুৎফর রহমান পেশায় একজন ভ্যানচালক।

পড়াশোনার পর ভালো একটি চাকরি করে সংসারের অভাব দূর করবে-এ স্বপ্ন নিয়েই বিদ্যালয়ে যাওয়া শুরু করে বেলাল। অভাব তাদের সংসারে নিত্য সঙ্গী। যার কারণে বেলাল শিশুকাল থেকেই বিদ্যালয়ে আসার আগে ও পরে বিভিন্ন কাজ করে সংসারে অর্থিক সহায়তা করে। এভাবেই চলতে থাকে তার পড়াশোনা।

২০১৭ সালে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপণী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে সাফল্যের সঙ্গে উত্তীর্ণ হয় বেলাল। এরপর বড় হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে ভর্তি হয় উপজেলার ভাটরা খাঁন চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ে। মাত্র দুই মাস স্কুল করার পর বন্ধ হয়ে যায় তার পড়াশোনার স্বপ্ন।

সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায়, সংসারের স্বচ্ছলতার জন্য বেলালের মা বিনা বেগম একটি এনজিও থেকে ৩০ হাজার টাকা লোন নিয়ে স্বামী লুৎফর রহমানকে একটি অটোভ্যান কিনে দেন। এরপর হঠাৎ একদিন লুৎফর রহমান সবার অজান্তে অটোভ্যানটি বিক্রি করে গ্রামছাড়া হয়। খবরটি এনজিও কর্মকর্তারা জানার পর লোনের টাকা পরিশোধ করার জন্য বিনা বেগমকে চাপ দিলে দিশেহারা হয়ে পড়েন বেলালের মা।

মায়ের এমন কষ্ট দেখে পড়াশোনা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয় বেলাল। কিস্তির টাকা পরিশোধ করার জন্য দুই বেলা খাওয়া ও প্রতিদিন ১০০ টাকা পারিশ্রমিকে চাকরি নেয় উপজেলার শিমলা বাজারের একটি খাবার হোটেলে।

কথা হয় বেলাল হোসেনের সঙ্গে। সে বলে, ‘পড়াশোনা কখনও বুড়ো হয় না। অভাবে পড়ে পড়াশোনা বন্ধ রেখেছি। বাবা সমিতি থেকে কিস্তি নিয়ে অটোভ্যান কিনেছিলেন। এরপর তিনি ওই ভ্যান রিকশা করে তিনি এলাকা ছাড়া হয়েছেন। সমিতির কিস্তির টাকা পরিশোধ করার সামর্থ নেই আমার মায়ের। তাই কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে হোটেলে চাকরি নিয়েছি।’

বেলালের ভাষ্য, ‘কিস্তির টাকা পরিশোধ হলেই হোটেলের চাকরি ছেড়ে দিয়ে আবার স্কুলে যাব। আমি পড়াশোনা শিখতে চাই।’

পড়াশোনা শিখে মা-বাবার সংসারে দরিদ্রতা জয়ের স্বপ্ন দেখে বেলাল।

তার মা বিনা বেগম ঢাকাটাইমসকে জানান, সংসারে অভাবের জন্য স্বামীকে সমিতি থেকে লোন নিয়ে একটি অটোভ্যান কিনে দিই। কিন্তু আমার স্বামী সেই ভ্যান সবার অজান্তে বিক্রি করে এলাকাছাড়া হয়েছেন। এখন সেই কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে আমার ছেলে লেখাপড়া বন্ধ করে দোকানের কর্মচারীর কাজ করছে।

তিনি আরও বলেন, মা-ছেলে মিলে কাজ করে কিস্তির টাকা পরিশোধ করছি। আমার ছেলের লেখাপড়ার জন্য আমি সবার সহযোগিতা চাই।

দলগাছা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলী আজম জানান, শিশু শ্রেণি থেকেই মেধাবী ছিল বেলাল। প্রতি শ্রেণিতে সে সব সময় প্রথম স্থান অধিকার করেছে।

তিনি আরও জানান, সে প্রায় দেরিতে স্কুলে আসতো। এর কারণ জানতে চাইলে নির্বাক হয়ে চেয়ে থাকতো বেলাল। পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সে স্কুলে আসার আগে ও পরে তার বাবার সংসারের স্বচ্ছলতার জন্য বিভিন্ন কাজ করে আর্থিক সহযোগিতা করে। আমি তার সফলতা কামনা করি।




আরও পড়ুন



১. প্রধান উপদেষ্টা ঃ এড. সাদির হোসেন (হাইকোর্ট আইনজীবি)
২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close