* নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে এক সন্তানের জননীকে গণধর্ষণ           *  যশোরের দুই নারীকে ভারতের পতিতালয়ে বিক্রি            * জঙ্গি দমনে পুলিশের ভূমিকা প্রশংসিত হয়েছে: আইজিপি           * পেঁয়াজের নতুন নাম দেয়া উচিত ‘উন্নয়ন’ ফল: পার্থ           * যত শাস্তি দেন, বড় শাস্তি পেয়ে গেছি: ওসি মোয়াজ্জেম           * পুলিশের কৃতিত্বে মাদক জঙ্গিবাদ ময়মনসিংহে নেই বললেই চলে -স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী           *  হিংসা-বিদ্বেষ ও মলিনতামুক্ত অন্তর লাভে যে দোয়া পড়বেন            * স্ট্রোক গোসলের সময় বেশি হয়           *  ভিয়েতনামে ঘূর্ণিঝড় নাকরির আঘাত, ছুটছে বঙ্গোপসাগরের দিকে            * ফুলপুরে অফিস কক্ষে ভূমি কর্মকর্তার 'ইয়াবা' সেবন           * যে কোন কিছুর বিনিময়ে মাদক নির্মূল চাই -উখিয়ায় পুলিশ সুপার           *  কবি হাবিবা আক্তার সাজিদা’র ‘যে আলোয় তোমায় দেখি’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন           * বদলগাছীর ঐতিহাসিক পাহাড়পুরে বিশ্ববিদ্যালয় নির্মাণের দাবি এলাকাবাসীর           * ৭ কাস্টমস কমিশনারকে একযোগে বদলি           * জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ৪ জন আহত! হাসপাতালে ভর্তি           * ফুলবাড়ীতে দুরারোগ্যে আক্রান্ত কন্যা শিশু নদী            * কুলিয়ারচরে ইউএনও’র বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা ও সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন           * ভারতের সুপ্রিম কোর্টের রায়ের প্রতিবাদে নেত্রকোনায় খেলাফত যুব আন্দোলনের বিক্ষোভ            * জঙ্গি-সন্ত্রাস নির্মূল, মাদক নিয়ন্ত্রণে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী           * চলন্ত গাড়িতে চালকের মৃত্যু: কান্নায় ভেঙ্গে পড়লেন যাত্রীরা          
* খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে ১৪০১ পৃষ্ঠার আপিল আবেদন           *  মিঠুনকে হারিয়ে চাপে বাংলাদেশ           * পিকেএসএফ উন্নয়ন মেলা উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী          

বাবার ঋণের কিস্তি যোগাতে পড়াশোনা বন্ধ বেলালের

মুনিরুজ্জামান মুনির, নন্দীগ্রাম (বগুড়া) | রবিবার, এপ্রিল ৮, ২০১৮

বাবার ঋণের কিস্তি যোগাতে পড়াশোনা বন্ধ বেলালের
বগুড়ার নন্দীগ্রামে বাবার লোনের কিস্তির টাকা জোগাড় করতে বন্ধ হয়ে গেল মেধাবী বেলাল হোসেনের (১২) পড়াশোনা। উপজেলার সদর ইউনিয়নের দলগাছা গ্রামে অত্যন্ত গরিব ঘরে জন্ম তার। মা-বাবা ও ছোট এক ভাই নিয়ে তাদের পরিবার। তার বাবা লুৎফর রহমান পেশায় একজন ভ্যানচালক।

পড়াশোনার পর ভালো একটি চাকরি করে সংসারের অভাব দূর করবে-এ স্বপ্ন নিয়েই বিদ্যালয়ে যাওয়া শুরু করে বেলাল। অভাব তাদের সংসারে নিত্য সঙ্গী। যার কারণে বেলাল শিশুকাল থেকেই বিদ্যালয়ে আসার আগে ও পরে বিভিন্ন কাজ করে সংসারে অর্থিক সহায়তা করে। এভাবেই চলতে থাকে তার পড়াশোনা।

২০১৭ সালে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপণী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে সাফল্যের সঙ্গে উত্তীর্ণ হয় বেলাল। এরপর বড় হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে ভর্তি হয় উপজেলার ভাটরা খাঁন চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ে। মাত্র দুই মাস স্কুল করার পর বন্ধ হয়ে যায় তার পড়াশোনার স্বপ্ন।

সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায়, সংসারের স্বচ্ছলতার জন্য বেলালের মা বিনা বেগম একটি এনজিও থেকে ৩০ হাজার টাকা লোন নিয়ে স্বামী লুৎফর রহমানকে একটি অটোভ্যান কিনে দেন। এরপর হঠাৎ একদিন লুৎফর রহমান সবার অজান্তে অটোভ্যানটি বিক্রি করে গ্রামছাড়া হয়। খবরটি এনজিও কর্মকর্তারা জানার পর লোনের টাকা পরিশোধ করার জন্য বিনা বেগমকে চাপ দিলে দিশেহারা হয়ে পড়েন বেলালের মা।

মায়ের এমন কষ্ট দেখে পড়াশোনা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয় বেলাল। কিস্তির টাকা পরিশোধ করার জন্য দুই বেলা খাওয়া ও প্রতিদিন ১০০ টাকা পারিশ্রমিকে চাকরি নেয় উপজেলার শিমলা বাজারের একটি খাবার হোটেলে।

কথা হয় বেলাল হোসেনের সঙ্গে। সে বলে, ‘পড়াশোনা কখনও বুড়ো হয় না। অভাবে পড়ে পড়াশোনা বন্ধ রেখেছি। বাবা সমিতি থেকে কিস্তি নিয়ে অটোভ্যান কিনেছিলেন। এরপর তিনি ওই ভ্যান রিকশা করে তিনি এলাকা ছাড়া হয়েছেন। সমিতির কিস্তির টাকা পরিশোধ করার সামর্থ নেই আমার মায়ের। তাই কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে হোটেলে চাকরি নিয়েছি।’

বেলালের ভাষ্য, ‘কিস্তির টাকা পরিশোধ হলেই হোটেলের চাকরি ছেড়ে দিয়ে আবার স্কুলে যাব। আমি পড়াশোনা শিখতে চাই।’

পড়াশোনা শিখে মা-বাবার সংসারে দরিদ্রতা জয়ের স্বপ্ন দেখে বেলাল।

তার মা বিনা বেগম ঢাকাটাইমসকে জানান, সংসারে অভাবের জন্য স্বামীকে সমিতি থেকে লোন নিয়ে একটি অটোভ্যান কিনে দিই। কিন্তু আমার স্বামী সেই ভ্যান সবার অজান্তে বিক্রি করে এলাকাছাড়া হয়েছেন। এখন সেই কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে আমার ছেলে লেখাপড়া বন্ধ করে দোকানের কর্মচারীর কাজ করছে।

তিনি আরও বলেন, মা-ছেলে মিলে কাজ করে কিস্তির টাকা পরিশোধ করছি। আমার ছেলের লেখাপড়ার জন্য আমি সবার সহযোগিতা চাই।

দলগাছা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলী আজম জানান, শিশু শ্রেণি থেকেই মেধাবী ছিল বেলাল। প্রতি শ্রেণিতে সে সব সময় প্রথম স্থান অধিকার করেছে।

তিনি আরও জানান, সে প্রায় দেরিতে স্কুলে আসতো। এর কারণ জানতে চাইলে নির্বাক হয়ে চেয়ে থাকতো বেলাল। পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সে স্কুলে আসার আগে ও পরে তার বাবার সংসারের স্বচ্ছলতার জন্য বিভিন্ন কাজ করে আর্থিক সহযোগিতা করে। আমি তার সফলতা কামনা করি।




আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close