* পিবিআইয়ের রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করেছে সাংবাদিকরা মচিমহায় কোন ঘটনা ঘটেনি            * ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের ৭৫ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন           * ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন           * যমুনার পানি বিপদসীমা ছুঁই ছুঁই           * ‘পরকীয়া জানাজানি হওয়ায়’ গৃহবধূর আত্মহত্যা           * খাগড়াছড়িতে ৮০০ ইয়াবাসহ আটক ২           * মাদক কারবারিদের নতুন ‘হিটলিস্টে’ সাংসদসহ প্রভাবশালীরা           * সাশ্রয়ী দামের ল্যাপটপ আনলো লেনোভো           * ছিনতাইকারীকে তরুণীর পেটানো ভিডিও ভাইরাল           *  চাঁদপুরের পদ্মা ও মেঘনায় ইলিশের আকাল           *  তিন জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৫           * ‘আড়াই লাখ বাংলাদেশি পাকিস্তানের নাগরিকত্ব পাবেন’           *  মানে মনোযোগী আরমান           * শ্রীলঙ্কাকে বিদায় করে সুপার ফোরে আফগানিস্তান           * ভুটানের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন ময়মনসিংহ মেডিকেলের ছাত্র           * মেয়ের গায়ে হলুদের দিন মায়ের মৃত্যু            * নদীভাঙন : পূর্বপ্রস্তুতি না নেয়ায় প্রধানমন্ত্রীর ক্ষোভ            * দুর্বৃত্তদের অতর্কিত হামলা ও গুলিতে দুই হিজড়াসহ চারজন আহত            * আবারো শুদ্ধাচার পুরস্কার পেলেন গফরগাঁও ইউএনও           * ভারতে পাচারকালে চার শিশুসহ রোহিঙ্গা নারী আটক          
* পিবিআইয়ের রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করেছে সাংবাদিকরা মচিমহায় কোন ঘটনা ঘটেনি            * ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের ৭৫ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন           * ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন          

আনন্দে ভাসছে ২৫৮ পরিবার’

নিজস্ব প্রতিবেদক | বুধবার, মে ২, ২০১৮
আনন্দে ভাসছে ২৫৮ পরিবার’

যশোরের বাঘারপাড়ায় গৃহহীন পরিবারকে ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার। বাঘারপাড়া উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ২৫৮টি পরিবার পাচ্ছে আধাপাকা ঘর। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি পরিবারকে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে এসব ঘর। অপরগুলোর নির্মাণ কাজ চলছে দ্রুত গতিতে। ঘর পেয়ে আনন্দে ভাসছে গৃহহীন পরিবারগুলো। এজন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তারা।  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত সবার জন্য বাসস্থান নিশ্চিত করতে যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলায় নেয়া হয় গৃহনির্মাণ প্রকল্প। আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের অধীনে প্রথমে জমি আছে ঘর নাই এমন ১৩২টি পরিবারকে ঘর তৈরি করে দেয়ার কাজ চলছে। এর মধ্যে জহুরপুর ইউনিয়নে ২১টি, বন্দবিলায় ২৫টি, রায়পুরে ৩২টি, নারিকেলবাড়িয়ায় ২৫টি, ধলগ্রামে ২৮টি ও দোহাকুলা ইউনিয়নে একটি পরিবারকে এ ঘর দেয়া হয়েছে।

প্রতিটি ঘর নির্মাণে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এক লাখ টাকা। এ পর্যন্ত প্রায় ১১২টি ঘরের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। উপজেলায় আরও ১২৬টি ঘরের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। বেশ কয়েকটি ঘর হস্তান্তরও করা হয়েছে। ঘর পেয়ে খুশি বন্দবিলা ইউনিয়নের বড়খুদরা গ্রামের মৃত ফারুক হোসেনের স্ত্রী ভিক্ষুক আয়তন নেছা। তিনি বলেন, এখন আর বৃষ্টিতে ভিজে ঘুমাতি হবেনা। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া এই ঘর স্মৃতি হয়ে থাকপি।’ তার মতো আনন্দে ভাসছেন একই ইউনিয়নের দক্ষিণ চাঁদপুর গ্রামের হেলেনা বেগম। তিনি বলেন, এতদিন সোলার (পাটকাঠি) ঘরে থাকতাম। আমার একটি পাকা ঘর হবে, কল্পনাও করিনি। একই কথা জানালেন গোলাপী খাতুন নামের আরেক নারী। তিনি জানান, জীবনে ভাল কোন ঘরে ঘুমাতি পারিনি। বাকি জীবনটা অন্তত ভাল একটি ঘরে কাটাতি পারবো।

নারিকেলবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবু তাহের আবুল সরদার বলেন, ঘর পেয়ে খুশি হৃতদরিদ্র পরিবারের সদস্যরা। প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তারা।

এ বিষয়ে ঘর নির্মাণ কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহানাজ বেগম বলেন, প্লান ও ডিজাইন অনুযায়ী ঘরগুলি নির্মাণ করা হচ্ছে। নির্মাণ কাজ সঠিকভাবে করার জন্য কমিটির সদস্যদের নিয়ে নিয়মিত দেখভাল করছি। দ্বিতীয় কিস্তিতে বরাদ্ধ পাওয়া ১২৬টি ঘরের কাজও শুরু হয়েছে। দ্রুত কাজ শেষ হবে।





আরও পড়ুন



প্রধান সম্পাদকঃ
ড. মো: ইদ্রিস খান

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

সিয়াম এন্ড সিফাত লিমিটেড
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close