*  ত্রিশালে বিসমিল্লাহ্‌ ফুডস্'র আড়ালে নোংরা পরিবেশে পণ্য তৈরি !           *  ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স রোগীদের চরম ভোগান্তি           * ময়মনসিংহ সদর উপজেলা শাখা যুবলীগের আয়োজিত আলোচনা সভা ও কেক কাটা অনুষ্ঠানে মেয়র টিটু            * অবৈধ ভাবে বাংলাদেশে প্রবেশের সময় শিশুসহ ২৪ নারী-পুরুষ আটক           * নির্বাচন আর পেছানোর সুযোগ নেই : সিইসি            * আসিয়া বিবিকে আশ্রয় দিতে চায় কানাডা           * ধোনির সঙ্গে দিন কাটাতে চান পাকিস্তানের সানা           * আস্থা রাখুন : ফখরুল            * আলোর মুখ দেখছেন বিমানের ১৩৭ কেবিন ক্রু            * মাদারীপুরে স্পিডবোট ডুবি, তিন যাত্রীর লাশ উদ্ধার           * ভোট পেছানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ           * গাজায় প্রবেশ করে ইসরায়েলি বাহিনীর হামলা, নিহত ৭           * বগুড়ায় নৌকা চান অপু           *  ফরিদগঞ্জে হত্যা মামলায় পিতা-পুত্রের যাবজ্জীবন           * খেলায় মনোযোগ দাও, সাকিবকে প্রধানমন্ত্রী           * ধেয়ে আসছে ‘গাজা’, ২ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত           * দরজা খুলতেই নওয়াজ ঝাঁপিয়ে পড়েন           * তিন উইকেট হারিয়ে লাঞ্চ বিরতিতে বাংলাদেশ           * অনাহারে নয়, সমৃদ্ধির পথে এগোবে ইরান           *  জানুয়ারির আগেই রাজশাহী হবে পলিথিনমুক্ত          
* নির্বাচন আর পেছানোর সুযোগ নেই : সিইসি            * আসিয়া বিবিকে আশ্রয় দিতে চায় কানাডা           * ধোনির সঙ্গে দিন কাটাতে চান পাকিস্তানের সানা          

বিভাগের সম্মান রক্ষার্থে ইবিতে মানববন্ধন

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | বুধবার, জুলাই ১১, ২০১৮
বিভাগের সম্মান রক্ষার্থে ইবিতে মানববন্ধন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রী নিপীড়নের ঘটনায় বিভাগের সম্মান রক্ষার্থে মানববন্ধন করেছে ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার দুপুরে ক্যাম্পাসের প্রশাসন ভবনের সামনে এ মানববন্ধন করে তারা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষক সহকারী অধ্যাপক সঞ্জয় কুমার সরকার নিজ বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্রীকে নিপীড়ন ও মানসিক হেনস্থা করেন বলে অভিযোগ ওঠে। ওই শিক্ষার্থী মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে। পরে ওই ছাত্রীকে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে কর্তৃপক্ষ। বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে সর্বমহলে অভিযুক্ত শিক্ষকের শাস্তির জোর দাবি ওঠে। শনিবার থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা ওই শিক্ষকের বিচার দাবি করে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন শুরু করে।

পরদিন রবিবার বেলা সাড়ে ১১টায় শিক্ষার্থীরা একই দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে। মিছিলটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ওই বিভাগের সামনে গেলে বিভাগের শিক্ষার্থীদের বাধার মুখে পড়ে। পরে প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান ঘটনাস্থলে গেলে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের বহিরাগত বলে অভিযোগ করে। পরে প্রক্টর আন্দোলনকারী দুই শিক্ষার্থীর পরিচয়পত্র কেড়ে নেন।   

মঙ্গলবার বিভাগের সম্মান বাঁচাতে ঘটনার পঞ্চম দিনে অভিযুক্ত শিক্ষকের পক্ষে মানববন্ধন করে ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। তবে মানববন্ধনে ২য় বর্ষের কোন শিক্ষার্থী অংশ নেয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, ‘বিভাগের কিছু শিক্ষক টিউটোরিয়াল ও নম্বরের ভয় দেখিয়ে তাদের মানববন্ধনে পাঠিয়ে দেয়।’

আন্দোলনে অংশ নেয়া বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ও শেখ হাসিনা হল ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়াংঙ্কা দাবি করেন, সঞ্জয় স্যারের কোন অপরাধ নেই। তিনি নির্দোষ। প্রশাসনের কাছে ৮ জুলাই বিভাগে হামলাকারীদের বিচারের দাবি জানাই। ঘটনার ২দিন পর মানববন্ধন করছেন কেন ..? এ প্রশ্নের জবাবে তিনি কোন সৎ উত্তর দিতে পারেনি।

বিভাগের সভাপতি সহকারী অধ্যাপক সুতাপ কুমার জানান, ঘটনার দিন আমি আমার কক্ষে ছিলাম। শিক্ষার্থীরা মিছিল নিয়ে বিভাগের সামনে এসেছিল। পরে প্রক্টর তাদের বিভাগ থেকে সরিয়ে দেয়। তবে আজকে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেছে এ বিষয়টি আমি জানি না।





আরও পড়ুন



সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close