* গাজীপুরে প্রশাসনের আপত্তিতে জেলা ইজতেমা প্রথম দিনেই সম্পন্ন           * কাঁদতে কাঁদতে পরীক্ষা দিলো তৈশী           * নেত্রকোনা-৩ অবশেষে মানিকের ভাগ্যেই জুটবে নৌকা এ আশাই তৃণমূলের           * সাত বছরের সাজার বিরুদ্ধে খালেদার আপিল           *  খুলনা-২ শেখ জুয়েলের জন্য মাঠ ছাড়লেন এমপি মিজান           *  ইয়াবাসহ বহিষ্কৃত এএসআই গ্রেপ্তার           *  ভোটেও নেই ফালু           *  কুড়িগ্রামে পারিবারিক কলহের জেরে বৃদ্ধের আত্মহত্যা           *  নেত্রকোণায় তরুণীর লাশ উদ্ধার           *  সংসদে আটটি আসন দাবি হিজড়াদের           * প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা শুরু           *  দীপিকার জন্য সুখবর           *  নিষেধাজ্ঞা মোকাবেলায় বহুমুখী পরিকল্পনা রয়েছে: ইরান           *  সবার আগে সেমিতে পর্তুগাল           * পালিয়ে বিয়ের পর লাশ হলেন মল্লিকা            * ভোট বর্জন ভুল ছিল: ড. কামাল           * বেনাপোল সীমান্ত থেকে বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল উদ্ধার           * জামাল খাসোগি হত্যা: ১৭ সৌদি নাগরিকের ওপর নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের           * মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় আজীবন কাজ করেছেন মওলানা ভাসানী           * আমার স্ত্রী সত্যিই দারুণ: জাস্টিন বিবার          
*  খুলনা-২ শেখ জুয়েলের জন্য মাঠ ছাড়লেন এমপি মিজান           *  কুড়িগ্রামে পারিবারিক কলহের জেরে বৃদ্ধের আত্মহত্যা           *  নেত্রকোণায় তরুণীর লাশ উদ্ধার          

বিয়ের আগে ভেবে দেখুন আরেকবার!

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | | মঙ্গলবার, জুলাই ১৭, ২০১৮
বিয়ের আগে ভেবে দেখুন আরেকবার!
আংটি-বদল হয়ে যাবার পর অনেকেই তাড়াহুড়ো করে বিয়ের কথা ভাবেন। মনে করেন, সঙ্গী তো পেয়েই গেছে, তাহলে দেরি কেন? কিন্তু বিয়ের আগে নিজের সম্পর্ক নিয়ে কিছুটা হলেও চিন্তা করা উচিৎ। আপনি যাকে বিয়ে করছেন, তার সাথে সারা জীবন কাটাতে পারবেন তো?

বিশেষজ্ঞদের মতে, সঙ্গীর কিছু আচরণ দেখে বোঝা যায় সম্পর্কে গুরুতর ফাটল রয়েছে। এমন অবস্থায় বিয়ে করাটা বোকামি। এসব লক্ষণ দেখতে পেলে সঙ্গীর সাথে আলোচনা করতে হবে এবং সমস্যা সমাধানের পরেই বিয়ের ব্যাপারে অগ্রসর হতে হবে।  এসব লক্ষণ হলো-

১) তিনি আপনাকে প্রাধান্য দেন না

আপনারা দুজনে কোথাও বেড়াতে যাবার পরিকল্পনা করেছেন। অথচ বন্ধুদের ফোন পেয়েই আপনার সঙ্গী আপনাকে রেখে তাদের সাথে আড্ডা দিতে চলে গেলেন। অথবা আপনারা দুজনে মিলে রোমান্টিক ডিনার উপভোগ করছেন, এর মাঝে আপনার সঙ্গীর ফোন এলো এবং তিনি আপনাকে উপেক্ষা করেই ফোনে কথা বলতে থাকলেন। এতে বোঝা যায় আপনাকে প্রাধান্য দিচ্ছে না আপনার হবু স্বামী বা স্ত্রী।

সংবাদ মাধ্যম হাফিংটন পোস্টকে ম্যারেজ অ্যান্ড ফ্যামিলি থেরাপিস্ট অ্যারন অ্যান্ডারসন বলেন, ‘মানুষ অনেক কারণেই বিয়ে করে। ভালোবাসা ছাড়াও অন্য কোন কারণ থাকতে পারে এর পেছনে। আপনাকে শুধুই সুবিধা পাওয়ার জন্য বিয়ে করবে, এমন কারও সাথে জড়িয়ে পড়ার আগে ভেবে দেখুন।  নিশ্চিত হন, তারা আপনাকে প্রাধান্য দেয় কিনা। নয়তো সারা জীবনই আপনাকে কষ্ট পেতে হবে।’

২)  আপনাদের মাঝে যোগাযোগ ভালো নয়

জরুরী ব্যাপারে আপনাদের মাঝে আলোচনা হয় না তেমন। যৌনতা, পারিবারিক ব্যাপার বা আর্থিক সমস্যা- এসব নিয়ে খোলাখুলি আলোচনা জরুরী। অথচ বেশিরভাগ সময়েই আপনার সঙ্গী এগুলো নিয়ে অযথাই ঝগড়া করেন বা এড়িয়ে যান। এমন হলে বুঝবেন, আপনাদের ভবিষ্যৎ নড়বড়ে। এসব ব্যাপার নিয়ে আলোচনা করতে না পারলে এখনই আপনাদের বিয়ে করা ঠিক হবে না।

সাইকোথেরাপিস্ট টিনা টেসিনা হাফিংটন পোস্টকে বলেন, ‘কঠিন বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলুন। বিয়ের পর সারা জীবনই এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে হবে।’ যদি এসব আলোচনা কঠিন মনে হয়, তবে ম্যারিজ কাউন্সিলিং করাতে পারেন। যদি তাতেও কাজ না হয়, তাহলে হয়তো আপনাদের বিয়ে করা উচিৎ হবে না।

৩) তিনি আপনার সাথে প্রতারণা করেছেন

আপনার সঙ্গী যদি আপনার সাথে সম্পর্কে থাকা অবস্থাতেই অন্য নারী বা পুরুষের সাথে প্রেম করেন, তাহলে অবশ্যই সম্পর্কটি নিয়ে ভেবে দেখা উচিৎ আপনার। অনেক সময়েই সঙ্গী এ কাজটির পর অনুশোচনা বোধ করেন, তা একটি ভালো লক্ষণ।  থেরাপিস্ট কার্ট স্মিথ হাফিংটন পোস্টকে বলেন, ‘বিয়ের আগেই নিশ্চিত হয়ে নেওয়া উচিৎ যে সঙ্গী এ কাজটি আবার করবে না। এ বিষয়ে সন্দেহ থাকলে বিয়ে পেছানোই ভালো।’

৪) আপনার সঙ্গী মাদকাসক্ত

শুধু মাদক নয়, অ্যালকোহল বা জুয়া খেলায় আসক্তি থাকলেও বিয়ে পেছানোর কথা ভাবুন। আপনার সঙ্গীটি যদি এই আসক্তি থেকে বের হয়ে আসার ব্যাপারে বদ্ধপরিকর হয়, তাহলে সমস্যা নেই। কিন্তু এ ব্যাপারে নিশ্চিত হবার আগে পর্যন্ত বিয়ে না করাই ভালো।

৫) কিছুদিন আগেই তাদের জীবন বড় একটি পরিবর্তন এসেছে

হয়তো আপনার হবু স্বামী বা স্ত্রীর সম্প্রতি চাকরি চলে গেছে, বদলি হয়েছে, বাবা বা মায়ের চিকিৎসা চলছে বা কাছের কেউ মারা গেছেন। এমন অবস্থায় বিয়ের কথা না ভাবাই ভালো। বিয়ে ভেঙে দেবার দরকার নেই। কিন্তু তার জীবন স্বাভাবিক হয়ে আসা পর্যন্ত বিয়ে পিছিয়ে দিন।  এমন সময়ে বিয়ে করলে হয়তো কখনোই আর স্বাভাবিক হবে না আপনাদের জীবন।

৬) সঙ্গী আপনাকে নিয়ন্ত্রণ করতে চায়

মাঝে মাঝে সবারই দিনটা খারাপ যায়। তখন তিনি অসহিষ্ণু আচরণ করতে পারেন। কিন্তু এমন ঘটনা যদি অহরহই ঘটে তাহলে বুঝতে হবে, তিনি মানুষটিই এমন। তিনি রুঢ় আচরণের মাধ্যমে আপনাকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করতে পারেন। তা মতান্তরে এক ধরণের মানসিক অত্যাচারই বটে। তার এসব আচরণকে এড়িয়ে যাবেন না। ভাবুন, আপনি কি আসলেই অত্যাচারি একজন মানুষকে বিয়ে করতে চান?

৭) তিনি মানসিক সমস্যায় ভুগছেন

সঙ্গী মানসিক সমস্যায় ভুগলে তার সাথে বিয়ে বা সম্পর্ক ভেঙে দেবার কোনো প্রয়োজন নেই। কিন্তু তিনি এ সমস্যাকে নিয়ন্ত্রণে আসার আগেই যদি বিয়ের জন্য তাকে চাপ দেন, তাহলে সমস্যা আরও প্রকট হতে পারে। তার পাশেই থাকুন, তাকে সেরে উঠতে সাহায্য করুন। তিনি মানসিকভাবে সুস্থ হয়ে উঠলে বিয়ে করতে পারেন।

৮) তিনি অতিরিক্ত গোপনীয়তা বজায় রাখেন

আপনি হুট করেই জানতে পারলেন, আপনাকে না জানিয়ে প্রাক্তন প্রেমিক বা প্রেমিকার সাথে দেখা করেছেন আপনার সঙ্গী। কেমন লাগবে তখন? সঙ্গী যদি ব্যাপারটা অস্বীকার করে, তা আরও অসহনীয় হয়ে ওঠে। যে মানুষটিকে বিয়ে করছেন, তার ওপর বিশ্বাস থাকাটা জরুরী। আপনার যদি মনে হয় তিনি বিশ্বাসের মর্যাদা রাখতে পারছেন না, তাহলে বিয়ে পিছিয়ে দেওয়াই ভালো।  ‘যে কোনো সম্পর্কে পারস্পরিক বিশ্বাস থাকা জরুরী,’ বলেন টিনা টেসিনা।

৯) শারীরিক সম্পর্কে সমস্যা দেখা দিয়েছে

সঙ্গী যদি আপনার সাথে শারীরিক সম্পর্কের ব্যাপারে কোনো রকম আলোচনায় উৎসাহী না হয়, তা একটি বড় সমস্যা।  বিয়ের আগে এ ব্যাপারে আলোচনা করে নেওয়া জরুরী। এমন অবস্থায় বিয়ে করে ফেললে সমস্যা কমবে না, বরং বাড়বে।

সূত্র: হাফিংটন পোস্ট





আরও পড়ুন



সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close