* মিয়ানমারকে বর্জনের ডাক ১০ দেশের           *  এবার সাবেক ওসি ইউনুসের বিরুদ্ধে সাক্ষী দিচ্ছেন ৩২ পুলিশ সদস্য            *  ক্যাসিনো সম্রাটসহ ১০ জনের সম্পদ ক্রোক হচ্ছে            *  ব্যর্থ মন্ত্রীদের সরিয়ে দেয়া হবে: ওবায়দুল কাদের            *  শুধু আইন করে নারী নির্যাতন বন্ধ হবে না : প্রধানমন্ত্রী            * ভাঙ্গায় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পিকআপ খাদে ॥ নিহত ১           * ভাঙ্গায় সাংবাদিকদের সাথে নবাগত ওসির মতবিনিময়           * ‘দুর্নীতি দুর্বৃত্তায়নে সম্পৃক্তরা এখনই সতর্ক হয়ে যান’           * 'কী হতো বলে গেলে' তাহসানের ফেসবুক স্ট্যাটাস ভাইরাল           * খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে বিএনপির ফের কর্মসূচি           * শাজাহান খানকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম ইলিয়াস কাঞ্চনের           * কোরআন-হাদিস না ছাপিয়ে ইফা ডিজির ১৭ কোটি টাকা আত্মসাতের নিউজ ফেসবুকে ঘুরছে           * পলাতক জামায়াতের চার নেতাকর্মী গ্রেফতার           *  জ্বালানি আনতে ৩০৬ কোটি টাকায় লাইন নির্মাণ            * দুর্নীতিবাজদের শান্তিতে থাকতে দেবে না দুদক            * সুমার পর সোহেলের স্বর্ণজয়           *  পরীক্ষায় যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির বন্ধুত্বের সম্পর্ক            * মসিকের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ২০০০০ টাকা জরিমানা           *  ঘুম যার কম, ভুল তার বেশী!           *  চাঞ্চল্যকর মামলা বিচার পর্যন্ত তদারকির নির্দেশ আইজিপির          
*  শুধু আইন করে নারী নির্যাতন বন্ধ হবে না : প্রধানমন্ত্রী            * দুর্নীতিবাজদের শান্তিতে থাকতে দেবে না দুদক            * সুমার পর সোহেলের স্বর্ণজয়          

এশিয়ায় আড়াই লাখ পাইলটের নতুন চাকরি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বুধবার, আগস্ট ২৯, ২০১৮
এশিয়ায় আড়াই লাখ পাইলটের নতুন চাকরি

উড়োজাহাজ নির্মাণ প্রতিষ্ঠান বোয়িং পূর্বাভাস দিচ্ছে যে, আগামী দুই দশকে এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে হাজার হাজার পাইলট, টেকনিশিয়ান এবং কেবিন ক্রু দরকার হবে। সেখানে এত বেশি অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ঘটবে যে, মানুষের বিমান ভ্রমণ অনেক বাড়বে।

বোয়িংয়ের হিসেবে ২০৩৭ সাল নাগাদ এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে দুই লাখ ৪০ হাজার পাইলট এবং তিন লাখ ১৭ হাজার কেবিন ক্রুর চাহিদা তৈরি হবে। এদের অর্ধেকেরই চাকরি হবে চীনে।

এই অনুমান যদি সঠিক হয়, সেটি বিমান পরিবহন খাতে দক্ষ জনশক্তির সংকট আরও তীব্র করে তুলবে। কারণ এখনই যথেষ্ট দক্ষ পাইলটের ঘাটতি রয়েছে।

বোয়িং হিসেব করে দেখেছে কেবল চীনেই দরকার হবে এক লাখ ২৮ হাজার ৫০০ পাইলট। আর দক্ষিণ এশিয়ায় দরকার হবে ৪২ হাজার ৭৫০ জন পাইলটের। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় ৪৮ হাজার ৫০০ পাইলটের প্রয়োজন পড়বে।

বোয়িং নিজেই একটি পাইলট তৈরির কর্মসূচি চালায়। কিন্তু তারা যে পরিমাণ পাইলট প্রশিক্ষণ দিয়ে তৈরি করবে, সেটি এই খাতের চাহিদা মেটানোর জন্য যথেষ্ট নয়। বোয়িংয়ের ট্রেনিং অ্যান্ড প্রফেশনাল সার্ভিসেস এর ভাইস প্রেসিডেন্ট কিথ কুপার বলেন, পুরো অঞ্চলে পাইলটের চাহিদা বাড়তেই থাকবে এবং এবং আগামী কয়েক বছর ধরে তা চলবে।

বিশ্লেষকরা হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন যে, যদি যথেষ্ট পাইলট তৈরি করা না যায়, বিমান পরিবহন খাতের প্রবৃদ্ধি ব্যাহত হবে।

বোয়িংয়ের চিফ এক্সিকিউটিভ ডেনিস মুইলেনবার্গ বলছেন, চীন এবং যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে যে বাণিজ্য যুদ্ধ শুরু হয়েছে, সেটা উড়োজাহাজ নির্মাণের খরচ বাড়াতে পারে। তার মতে বিমান পরিবহন খাতের প্রবৃদ্ধি অনেকখানি নির্ভর করে মুক্ত বাণিজ্যের ওপর। সূত্র: বিবিসি





আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close