*  কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদক বিক্রেতা নিহত           *  মনোহরদীতে গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার           * ইসলামপুরে ট্রাক চাপায় চা ব্যবসায়ীর মৃত্যু           * বেনাপোল সীমান্ত থেকে নাইজেরিয়ান নাগরিক ও হুন্ডি ব্যাবসায়ী আটক           *  কেন্দুয়ায় গ্রাম পুলিশ সদস্যদের ওসি যেখানেই বিশৃঙ্খলা সেখানেই পুলিশ থাকবে            * ঝিনাইগাতীতে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ            * গফরগাঁও ২২০ বিএনপি নেতাকর্মীর আগাম জামিন           * প্রধানমন্ত্রীকন্যা পুতুলকে মন্ত্রিসভার অভিনন্দন           * মানুষ বলবে, শামীম ওসমান পাগল ছিল            * নতুন খবর দিলেন অপু বিশ্বাস            * যুক্তরাষ্ট্রে হাসপাতালে বন্দুকধারীর হামলা: নিহত ৪           * বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার পরিসংখ্যান           * আবুধাবিতে নিউজিল্যান্ডের রুদ্ধশ্বাস জয়           *  চার হাজারে ফোরজি ফোন দিচ্ছে রবি           *  দাদি হলেন মমতাজ           *  ছয় মাস পর্ন সাইট বন্ধের নির্দেশ হাইকোর্টের           * সাত খুন মামলার রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ           * হারানো সন্তানকে খুঁজে ফিরছেন বাবা-মা           *  ময়মনসিংহের নান্দাইলে দিনমজুরকে পিটিয়ে হত্যা           * নেত্রকোনায় পিএসসিতে অনুপস্থিত ৪ হাজার শিক্ষার্থী          
*  কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদক বিক্রেতা নিহত           *  মনোহরদীতে গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার           * ইসলামপুরে ট্রাক চাপায় চা ব্যবসায়ীর মৃত্যু          

ভৈরবে জব্বার জুট মিল বন্ধে ৭০০ শ্রমিক বেকার

ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি, | রবিবার, সেপ্টেম্বর ২, ২০১৮
ভৈরবে জব্বার জুট মিল বন্ধে ৭০০ শ্রমিক বেকার
কিশোরগঞ্জের ভৈরবে মালিকানাধীন জব্বার জুট মিল বন্ধ ঘোষণায় বেকার হয়ে পড়েছেন ৭০০ শ্রমিক-কর্মচারী।

শনিবার মালিক পক্ষ জুট মিল গেইটের নোটিশ দিয়ে বৃহৎ এই জুট মিলটি বন্ধ ঘোষণা করে।

পাটের বাজার দর বৃদ্ধি ও মিলে উৎপাদিত পাটের বস্তার মজুত বেড়ে যাওয়ার কারণে কর্তৃপক্ষ মিলটি বন্ধ করতে বাধ্য হন বলে জানা গেছে।

বর্তমানে মিলে ১৪ কোটি টাকা মূল্যের ১৫ লাখ পিস পাটের বস্তা মজুত থাকলেও এসব মজুদ মাল বিদেশে বিক্রি করা যাচ্ছে না। মজুত বস্তা রপ্তানিযোগ্য পণ্য হওয়াই এসব পাটের বস্তা দেশীয় বাজারেও বিক্রি করা সম্ভব নয় বলে মালিক পক্ষ জানিয়েছেন।

বন্ধের বিষয়ে জানতে চাইলে জব্বার জুট মিল মালিক আমীনুর রশীদ খান মামুন মোবাইল ফোনে জানান, জুট মিলে মজুত বেড়ে গেছে, গুদামে বস্তা রাখার মত জায়গা নেই। অপরদিকে পাটের বাজার দর মণ প্রতি ৫ টাকা বেড়েছে। বর্তমান বাজার থেকে ২ হাজার টাকা মণ দরে পাট কিনে উৎপাদন করলে প্রতিদিন লাখ লাখ টাকা লোকসান দিতে হবে। কাজেই শুধু শ্রমিকদের স্বার্থ দেখে আমি লোকসান দিয়ে মিল চালানো সম্ভব নয় বলে তিনি জানান।

তিনি বলেন, ঈদের আগে শ্রমিকদের বকেয়া টাকাসহ ঈদ বোনাস দিয়ে আমি মিলটি বন্ধ করেছি। পাটের মালিকদের পাওনাও আমি ঈদের আগেই পরিশোধ করেছি। কাজেই মজুত মাল বিক্রির পর আমি মিলটি পুনরায় চালু করার চেষ্টা করব।




আরও পড়ুন



সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close