* শীতকালে শুষ্ক ও ফাটা ত্বকের ঘরোয়া সমাধান           *  ইতিহাস গড়ে জিতল বাংলাদেশ           *  দণ্ডিতদের ভোটে আসার পথ আটকাই থাকল           *  গোলাম মাওলা রনির মনোনয়নপত্র বাতিল           * হিরো আলমের প্রার্থিতা বাতিল           *  ইবি অধ্যাপক নূরী আর নেই           * কেন্দুয়ায় চিথোলিয়া গ্রামে বসেছিল রাতব্যাপী লালন সংগীতের আসর           * গাজীপুরে মরুভূমি ফুল এর মানবন্ধন           *  শান্তিচুক্তির ২১ বছর পাহাড়ে থামেনি ভাতৃঘাতী সংঘাত           *  প্রতিপক্ষকে প্রথমবার ফলোঅন করালো বাংলাদেশ           *  ১৫০ সিসির নতুন পালসার আনল বাজাজ           *  গাঁজা সেবনের দায়ে যুবকের জেল           *  সেরা ডিজিটাল ব্যাংকের পুরস্কার পেল সিটি ব্যাংক           * দেশে পৌঁছেছে ‘হংসবলাকা’            * মোদি কেমন হিন্দু, প্রশ্ন রাহুলের            * মিরাজের ঘূর্ণিতে ফলোঅনে উইন্ডিজ           * কাঠবোঝাই ট্রাক চাপায় প্রাণ গেল তিন শ্রমিকের           * নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত           * আলাস্কায় ভয়াবহ ভূমিকম্প, ৬ ঘণ্টায় ৪০ বার কম্পন           * জাতিসংঘের মিশনে বিমান বাহিনীর ২০২ সদস্যের কঙ্গো গমন          
* দেশে পৌঁছেছে ‘হংসবলাকা’            * মোদি কেমন হিন্দু, প্রশ্ন রাহুলের            * মিরাজের ঘূর্ণিতে ফলোঅনে উইন্ডিজ          

বেনামী অভিযোগকারীদের এবার ক্ষমা চাওয়া উচিত -----মোঃ খায়রুল আলম রফিক

নিজস্ব প্রতিবেদক | মঙ্গলবার, অক্টোবর ৯, ২০১৮

বেনামী অভিযোগকারীদের এবার ক্ষমা চাওয়া উচিত
-----মোঃ খায়রুল আলম রফিক

দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিনের পাঠক প্রিয়তা দিন দিন বেড়ে যাওয়ার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে পত্রিকা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বেনামী অভিযোগ । অভিযোগ করার পর সংশ্লিষ্ট অভিযোগকারীদের মাঝেই আতঙ্ক বিরাজ করে বলে জানাগেছে ।

জানাগেছে, ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার, রেঞ্জ ডিআইজি, জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপারের কাছে ইতিপূর্বেও অসংখ্য মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন অভিযোগ করে লিখিত অভিযোগ দেন অচেনা লোকজন ।

পুর্বে যদিও এসব অভিযোগের একভাগ সত্যতা পায়নি সংশ্লিষ্টগণ । কর্মকর্তাদের তদন্তকালে মানুষের আগ্রহ থাকায় দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন উঠে আসে আলোচনার শীর্ষে । টাটকা এবং সত্য ঘটনার প্রকাশ করায় পাল্লা দিয়ে বাড়ে পত্রিকার পাঠক সংখ্যা । অভিযোগ রয়েছে, বেনামী অভিযোগকারীরা পত্রিকা কর্তৃপক্ষকে ব্ল্যাকমেইল করে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার চক্রান্ত বলে মনে করছেন সুধী ও সচেতন মহল ।

পত্রিকার বিরুদ্ধে বেনামী অভিযোগকারীদের আবেদন নিবেদনের সত্যতা খুঁজতে দফায় দফায় অভিযানও ব্যর্থতায় পর্যবেশিত হয়েছে, এখনও হচ্ছে , ভবিষৎওয়ে হবে । কারণ পত্রিকাটি সত্যের পক্ষে  ।

বেনামে আসা  অভিযোগগুলির বিষয়বস্তুও শতভাগই ভুয়া। সম্প্রতি আবারও তৎপর হয়ে উঠেছে এই চক্রটি । ইতিমধ্যে তারা ৫ শতাধিক  বেনামি উড়োচিঠি জমা দিয়েছে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে । যদিও দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা বলছেন, পত্রিকাটির  ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক , প্রকাশক, সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্ট স্টাফদের কোন গাফিলতি প্রমানিত হয়নি ।

তবে , ধারনা করা হচ্ছে , বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের কারণে কেউ ক্ষতিগ্রস্ত  হলেই ময়মনসিংহ প্রতিদিন পত্রিকা কর্তৃপক্ষের নামে মিথ্যা মামলা ও মিথ্যা অভিযোগ লিখে চিঠি পাঠিয়ে দিচ্ছে উপরোক্ত দপ্তরে । সংশ্লিষ্ট বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণ ময়মনসিংহ প্রতিদিনকে বলেন, নামে-বেনামে কোনো অভিযোগ পেলে গুরুত্ব সহকারে সেটি আমলে নেওয়া হয়।

কর্তৃপক্ষ মনে করলে যে কোনো অভিযোগের তদন্ত করতে পারে। পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক খায়রুল আলম রফিক বলেন, পত্রিকা এবং আমাদের সুনামহানি করতে একটি বিশেষ মহল এই ষড়যন্ত্র করেছে।’ বেনামী এইসব অভিযোগ তোলার পর যারা নিজেদের আড়াল করছে তাদের তাদের ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন খায়রুল আলম রফিক ।

তিনি বলেন, ‘এই মিথ্যা অভিযোগ তৈরি করছে ঐসব দুর্নীতিবাজ যারা সরকারকে ফাঁকি দিয়ে , সাধারণ মানুষকে বিপদে ফেলে বিএনপি ও জামাতপন্থীরা এসব অভিযোগ দায়ের করছে । দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন বিষয়ে তাদের অভিযোগগুলিতে সুনির্দিষ্ট-বিস্তারিত কিছু নেই, যা সুস্পষ্টভাবেই বানানো। রয়েছে কেবল বেনামী সূত্র ।

তাদের দাবির পক্ষেও প্রমাণ দিতে পারছে না । এদিকে অভিযোগ যত পড়ছে , তত মিথ্যা প্রমাণ হচ্ছে অভিযোগকারীরাই । এতে দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিনের ব্যাপকতা ছুঁয়ে গেছে প্রত্যন্ত অঞ্চলে থাকা পাঠক, হকার, শুভানুধ্যায়ীদেরও। তাঁরা জানিয়েছেন, দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিনের প্রতি তাঁদের ভালোবাসা, ভালোলাগার কথা জানিয়েছেন । 

গ্রামের মানুষের কাছে প্রতিদিন সকালে দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন পৌঁছে দিয়ে মানুষের অভিব্যক্তির কথা। তারা বলছেন, অতি অল্প সময়েই দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন ব্যাপক পথ পাড়ি দিয়েছে । জন্মলগ্ন থেকে দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন ময়মনসিংহের মাটি ও মানুষের কথা বলেছে। বৃহত্তর ময়মনসিংহের মানুষের কাছেও দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন একটি আবেগ ও অনুভূতির নাম।

দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন শুরু থেকেই ময়মনসিংহের নানা সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে কথা বলেছে। ঐতিহাসিক ময়মনসিংহের জনপদ যে ধারায় পথচলা শুরু করেছে দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন সেই পথের সারথী। দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন পত্রিকায় ময়মনসিংহের নানা ঘটনা সবসময় গুরুত্ব পেয়েছে।

ভবিষ্যতে ময়মনসিংহ প্রতিদিন অতীতের ন্যায় ময়মনসিংহ এলাকার সমস্যা সংকট সম্ভাবনা নিয়ে সংবাদ পরিবেশন করলে ময়মনসিংহ প্রতিদিন এখানে আরো জনপ্রিয় হবে। পাঠক মহল বলছেন, দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন পাঠকদের মনে জায়গা করে নিয়েছে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে। অল্প সময়েই জানামতে এই পত্রিকাটিতে এমন কিছু বাকি নেই যা ময়মনসিংহ প্রতিদিনে প্রকাশিত হয়নি। যেমন দেশ বিদেশের রম্য রচনা খবর, কৌতুক কণিকা,

চিঠিপত্র, তথ্য কণিকা, খেলাধুলাসহ সাহিত্য, সম্পাদকীয়-উপসম্পাদকীয় কলাম, বিভিন্ন ধর্মীয় লেখা এক কথায় ভাষা শৈল্পিকতায় পাঠক আকৃষ্ট করার মত এক ঝাঁক দক্ষ ও উচ্চ শিক্ষিত সাংবাদিকদের বস্তুনিষ্ট সাংবাদিকতায় ও সবার একান্ত প্রচেষ্টায় দৈনিক ময়মনসিংহ প্রতিদিন এক অনিন্দ্য নন্দর ঝকঝকে একটি রঙিন পত্রিকা।

ময়মনসিংহে অনেক পত্রিকা থাকলেও মানে-গুণে ময়মনসিংহ প্রতিদিনই সেরা ময়মনসিংহ বিভাগ তথা বৃহত্তর ময়মনসিংহে। এসব বেনামী অভিযোগকারীদের চিহ্নিত করে তাদের ষড়যন্ত্র জনসন্মুখে তুলে ধরারও আহবান জানিয়েছেন বিভিন্ন মহল ।





আরও পড়ুন



সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close