*  কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদক বিক্রেতা নিহত           *  মনোহরদীতে গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার           * ইসলামপুরে ট্রাক চাপায় চা ব্যবসায়ীর মৃত্যু           * বেনাপোল সীমান্ত থেকে নাইজেরিয়ান নাগরিক ও হুন্ডি ব্যাবসায়ী আটক           *  কেন্দুয়ায় গ্রাম পুলিশ সদস্যদের ওসি যেখানেই বিশৃঙ্খলা সেখানেই পুলিশ থাকবে            * ঝিনাইগাতীতে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ            * গফরগাঁও ২২০ বিএনপি নেতাকর্মীর আগাম জামিন           * প্রধানমন্ত্রীকন্যা পুতুলকে মন্ত্রিসভার অভিনন্দন           * মানুষ বলবে, শামীম ওসমান পাগল ছিল            * নতুন খবর দিলেন অপু বিশ্বাস            * যুক্তরাষ্ট্রে হাসপাতালে বন্দুকধারীর হামলা: নিহত ৪           * বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার পরিসংখ্যান           * আবুধাবিতে নিউজিল্যান্ডের রুদ্ধশ্বাস জয়           *  চার হাজারে ফোরজি ফোন দিচ্ছে রবি           *  দাদি হলেন মমতাজ           *  ছয় মাস পর্ন সাইট বন্ধের নির্দেশ হাইকোর্টের           * সাত খুন মামলার রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ           * হারানো সন্তানকে খুঁজে ফিরছেন বাবা-মা           *  ময়মনসিংহের নান্দাইলে দিনমজুরকে পিটিয়ে হত্যা           * নেত্রকোনায় পিএসসিতে অনুপস্থিত ৪ হাজার শিক্ষার্থী          
*  কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদক বিক্রেতা নিহত           *  মনোহরদীতে গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার           * ইসলামপুরে ট্রাক চাপায় চা ব্যবসায়ীর মৃত্যু          

সকল মহলের গ্রহণযোগ্য সম্ভাব্য প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা মানিক

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া | সোমবার, অক্টোবর ২২, ২০১৮
সকল মহলের গ্রহণযোগ্য সম্ভাব্য প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা মানিক

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নেত্রকোনা-৩ (আটপাড়া-কেন্দুয়া) নির্বাচনী এলাকায় সম্ভাব্য সব প্রার্থীরা মাঠ ছেড়ে এখন কেন্দ্রে অবস্থান করছেন। আর কদিন পরেই বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হবে মনোনিত প্রার্থীদের তালিকা। কিন্ত সে তালিকায় কার ভাগ্যে শিকে ছিড়ে তা নিয়ে খুবই কঠিন সময় কাটাচ্ছেন সম্ভাব্য সব প্রার্থীরা। অনেকেই বলছেন, যার ভাগ্যে লিখা আছে, তিনিই হবেন আওয়ামীলীগের মনোনীত দলীয় প্রার্থী। নির্বাচনী মাঠে প্রায় ডজন খানেক প্রার্থী নিজ নিজ কৌশলে গণসংযোগ, পথসভা, উঠানবৈঠক, সভা-সমাবেশ, শো-ডাউন করে নিজেদের পরিচিতি তুলে ধরছেন। পাশাপাশি চাইছেন নৌকায় ভোট। এক বছরের তথ্য অনুসন্ধ্যানে দেখা গেছে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে মাঠে নতুন মুখের দাবীই অনেকের। নতুন মুখের প্রার্থী হিসেবে বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট মো: সাইদুর রহমান মানিকের নামটি সকল শ্রেণি পেশার মানুষের মুখে মুখে ফিরছে।  একজন গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি ও প্রার্থী হিসেবে ইতিমধ্যেই তিনি নিজেকে মেলে ধরতে পেরেছেন। হিন্দু, মুসলিম সহ সকল ধর্ম বর্ণের মানুষের কাছে প্রিয় মানুষ হিসেবে পরিচিতি ঘটেছে মানিকের। তাছাড়া সদ্য সমাপ্ত শারদীয় দূর্গোৎসবে তিনি কেন্দুয়া ও আটপাড়া উপজেলার ৭৯টি পূঁজা মন্ডপেই তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে কয়েক লাখ টাকা আর্থিক অনুদান দিয়েছেন। দলীয় নেতাকর্মী, মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকদের নিয়ে অধিকাংশ পূঁজা মন্ডপ পরিদর্শনও করেছেন মানিক। সাজিউড়া দেব মন্দির পূঁজা উদযাপন কমিটির সভাপতি উৎপল বিশ্বাস জয়, সাধারন সম্পাদক কৃষ্ণ সরকার ও অর্থ সম্পাদক রাজন দেবনাথ, হরিসভা সঙ্গের সভাপতি সত্যেন্দ্র দেবনাথ ও সাধারন সম্পাদক বিজয় বিশ্বাস জানান, তিনি আমাদের মন্দিরে এসে সকল মানুষের সঙ্গে যে ভাবে প্রাণে প্রাণে মিশেছেন, সকলের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন,  এজন্য তিনি আমাদের নিকট চির স্মরণীয় হয়ে থাকবেন। আমরা চাই এমন একজন নেতা বা এম.পি যিনি সকল মানুষকেই ভালোবাসবেন। পূঁজা উদযাপন কমিটির নেতারা বলেন, মো: সাইদুর রহমান মানিক একজন অসাম্প্রদায়িক ও সার্বজনীন ব্যক্তি হিসেবে সমাজে তার পরিচয় তুলে ধরতে পেরেছেন। কেন্দুয়া হরি সভা দূর্গা মন্দির কমিটির সভাপতি ডা. দীলিপ পোদ্দার বলেন, মুক্তিযোদ্ধা সাইদুর রহমান মানিক মন্দিরে পূঁজা পরিদর্শনে এসে আমাদের সকলের সঙ্গে হাসিমুখে যে সব আচরন করেছেন, তার আচরনে আমরা খুবই সন্তুষ্ট। আমার মতে তিনি একজন অসাম্প্রদায়িক ও সার্বজনীন মানুষ হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করতে পেরেছেন। রোয়াইলবাড়ি ইউনিয়নের আমতলা সরকারবাড়ী দূর্গা মন্দির কমিটির সভাপতি অজিত সরকার চন্দন জানান, সাইদুর রহমান মানিক পূঁজা মন্ডপ পরিদর্শনে এসে আমাদের সঙ্গে খুবই ভালো আচরন করেছেন। তিনি বলেন, আমার মতে তিনি একজন অসাম্প্রদায়িক ব্যক্তি একথা বলতে কোন দ্বিধা নেই। দনাচাপুর কালীবাড়ি মন্দির কমিটির সভাপতি প্রসাদ দত্ত প্রনব জানান, মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে মো: সাইদুর রহমান মানিক সকল পুঁজারী ও এলাকাবাসির ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন। তিনি এসে দীর্ঘক্ষন সময় দিয়েছেন মন্দির প্রাঙ্গনে এবং দূর্গা পূঁজা সম্পর্কে তার তাত্বিক আলোচনা সকল মহলের হৃদয় কেরেছে। একই ভাবে কেন্দুয়া উপজেলার বিভিন্ন পূঁজা মন্ডপ পরিদর্শনের আগের দিন আটপাড়া উপজেলার বিভিন্ন পূঁজা মন্ডপ পরিদর্শন করে সকলের হৃদয় কেরেছেন। মঙ্গলসিদ্ধ ভিটাবাড়ি জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মো: ওয়ালিউল্লাহ ও আমাটি পশ্চিমপাড়া জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ রফিকুল ইসলাম তাদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, র্ধম যার যার উৎসব সবার এ বাণীটির সত্যিকার অর্থেই তার আচরন দিয়ে প্রমাণ করেছেন তিনি প্রধানমন্ত্রীর এ বাণীটি হৃদয়ে ধারন করেছেন। রোয়াইলবাড়ী ইউনিয়নের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হাবিবুর রহমান বলেন, সাধারন জনগণের পক্ষ থেকে জোরালো দাবী আছে মানিক ভাই যাতে নৌকা প্রতীক পান। সাধারন জনগণ বলেন, আমরা এরকম ব্যক্তিকেই এম.পি হিসেবে দেখতে চাই যিনি শুধু নেতা না সাধারন মানুষের সঙ্গেও প্রাণখুলে কথা বলেন এবং মিশেন। এর মধ্যে সাইদুর রহমান মানিক এক বছরেই কৃষক শ্রমিক মেহনতি ও সাধারন মানুষের বন্ধু হতে পেরেছেন। কেন্দুয়া উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষক ও কর্মচারী কল্যান সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক শাহজাহান মিয়া বলেন, প্রথম দিন দেখে এবং তার কথা শুনে মনে হয়েছে তিনি একজন ভালো মানুষ। সার্বজনীন একজন ব্যক্তি হিসেবে তিনি নিজেকে সমাজে তুলে ধরতে পেরেছেন। আটপাড়া উপজেলার বানিয়াজান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও আটপাড়া সদর কালী মন্দিরে অনুষ্ঠিত দূর্গা পূঁজা কমিটির সভাপতি উজ্জল দত্ত জানান, মুক্তিযোদ্ধা সাইদুর রহমান মানিক পূঁজা পরিদর্শনে এসেছিলেন বুধবার, আমরা সকলে মিলে তাকে হৃদয়ের গভীর ভালবাসা দিয়ে বরণ করেছি। তিনি আমাদের সঙ্গে প্রাণে প্রাণে মিশে অনেক ভালো আচরন করেছেন। আমরা প্রধানমন্ত্রীর নিকট দাবী করি মুক্তিযোদ্ধা সাইদুর রহমান মানিকের মতো একজন অসাম্প্রদায়িক ব্যক্তির হাতে স্বাধীনতার প্রতীক নৌকা তুলে দেয়া দরকার। তিনি বলেন, আমরা সাইদুর রহমান মানিকের ব্যবহারে বলেছি, আমরা আপনার পাশে আছি এবং থাকব চিরদিন। তেলিগাতী ইউনিয়নের মাছ ব্যবসায়ী আনাম মিয়া, আল্লাদ মিয়া, দুলাল মিয়া, রামসিদের শচিন বর্মন, দেয়ারার নিতাই বর্মন, শ্রীরামপুরের মাহবুব ও শ্রীপুরের আব্দুল মজিদ জানান, মাছের ব্যবসা করি এজন্য আমাদের সাথে অন্য প্রার্থীরা হাতও মিলায়না কথাও বলেন না। কিন্তু মানিক সাইব এসে আমাদের সাথে হাত মিলাইছেন নৌকায় ভোট চাইচেন। দেখলাম তার মধ্যে কোন হিংসা নাই। মানিক সাইবের মতন লোককেই আমরা নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই। আটপাড়া উপজেলার তেলিগাতী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক মঞ্জুরুল হক মঞ্জু বলেন, হিন্দু, মুসলিম, ধনি, গরিব, জেলে, তাঁতি, কামার, কুমার, শিক্ষক, মুক্তিযোদ্ধা, কৃষক, শ্রমিক সহ সকল পেশার মানুষের সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধা মো: সাইদুর রহমান মানিকের একটা সু-সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। একবছরেই তিনি ১০ বছরের কাজ করে ফেলেছেন । গ্রামে গঞ্জের মানুষ তার মত মানুষকেই আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে দেখতে চায়। তিনি সকলের কাছেই একজন গ্রহণযোগ্য সম্ভাব্য প্রার্থী। প্রতিটি গ্রামে গ্রামে তার শত শত নেতাকর্মী সমর্থক আছে। তারা সকলেই মানিক ভাইয়ের জন্য আল্লাহর কাছে দুহাত তুলে প্রার্থনা করছেন তিনিই যেন নৌকা মার্কার প্রার্থী হয়ে নির্বাচনী এলাকায় আসেন। বলাইশিমুল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক (প্রস্তাবিত) আতিকুর রহমান তালুকদার চুন্নু বলেন, মানিক ভাইয়ের সঙ্গে গণ সংযোগে না গেলে বুঝা যাবে না তিনি কতখানি জনপ্রিয় ব্যাক্তি। আতিকুর রহমান বলেন, হিন্দু সম্প্রদায়ের দূর্গা পূঁজায় গিয়ে মানিক ভাই সকলকে মাতিয়ে তুলেছেন, সকলের সঙ্গে তার হাসিমুখা আচরন দিয়ে ভালবাসা আদায় করেছেন। তিনি প্রমাণ করেছেন, নিজে একজন অসাম্প্রদায়িক ব্যক্তি। যেমন মসজিদে যাচ্ছেন, দিচ্ছেন অনুদান আবার বলছেন ইসলাম ধর্মের কুরআন হাদিসের আলোক উল্লেখযোগ্য ব্যাখ্যা, তেমনি মন্দিরে গিয়েও বলছেন হিন্দু সাস্ত্র মতে ধর্মের কথা এবং দিচ্ছেন দান অনুদানও। কেন্দুয়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মো: বজলুর রহমান বলেন, যার মুখে সব সময় হাসি পাই তিনি আমাদের মানিক ভাই, তার জন্যই শেখ হাসিনার নিকট আগামী নির্বাচনের নৌকা প্রতীক চাই। বজলুর রহমান বলেন, একমাত্র সাইদুর রহমান মানিক নৌকা প্রতীক পেলেই আওয়ামীলীগে সকল গ্রুপ, সকল ভেদাভেদ ভুলেগিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার বিজয়ে কোমড় বেঁধে মাঠে কাজ করবেন এবং নৌকার বিজয় নিশ্চিত করা সম্ভব বলে তিনি শতভাগ আশা প্রাকাশ করেন।




আরও পড়ুন



সম্পাদক ও প্রকাশকঃ
মোঃ খায়রুল আলম রফিক

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ৬৫/১ চরপাড়া মোড়, সদর, ময়মনসিংহ।
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close