* বাজেয়াপ্ত গাঁজা পোড়াল পুলিশ, নেশায় বুঁদ এলাকাবাসী            * কুমারিত্ব প্রমানে বাজারে এলো ‘আই ভার্জিন পিল’            * পেঁয়াজ বর্জনের ঘোষণা দিয়ে শপথ!           * ৩ ডাক্তার ও মেডিকেল ছাত্রীর কথোপকথন           *  ২৩ মাস ধরে গর্ভবতী!            * জান্নাত ও জাহান্নামের পরিচয় এবং সুখ-শাস্তির বিবরণ           *  জিমে গিয়ে মালিকের হাতে ধর্ষণের শিকার তরুণী            * শ্যালকের স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার           * ইতিহাসের পাতায় অধিনায়ক কোহলি            * গফরগাঁওয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট মাকে বাঁচাতে গিয়ে মেয়ের মৃত্যু           * এবার বিয়েতে পেঁয়াজ উপহার           * পেঁয়াজ খাওয়া ছেড়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী           *  নকল সরবরাহ করার দায়ে ৫ শিক্ষকের কারাদণ্ড।           *  স্মৃতিতে সিডর নতুন করে বাঁচার নিরন্তন চেষ্টা           * শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মদিন নেত্রকোণায় অনুষ্ঠিত           *  ছাত্রলীগের মারধরে আহত রাবি শিক্ষার্থী ; ৩দফা দাবিতে উত্তাল ক্যাম্পাস !           * দিনাজপুরে ফার্নিচার ব্যবসায়ী থেকে কোটিপতি           * ময়মনসিংহ জেলা মটরযান কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুল সালাম সাঃ সম্পাদক চানু নির্বাচিত            * কলমাকান্দায় অপ-প্রচারের বিরুদ্ধে মানববন্ধন           *  স্কুল ছাত্রী অপহরণের পর ধর্ষণ, ইউপি সদস্য আটক          
* চারদিনের সফরে আজ আমিরাত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী           * কুড়িগ্রামে কোটিপতি ডাক্তার অমিত কুমার বসুর চিকিৎসা বাণিজ্য            *  বাড়ছে লিড, বাড়ছে বাংলাদেশের ভয়           

গফরগাঁওয়ের গর্ব ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল এমপি

মাজাহারুল হক, গফরগাঁও | শুক্রবার, জুন ১৪, ২০১৯
গফরগাঁওয়ের গর্ব ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল এমপি

তরুণ এমপি কিশোর বয়সে জনসেবায় পা রেখেই তরুণ বয়সে ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের লাখ লাখ  মানুষের মন জয় করে নেন ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল । এরপর থেকেই ওই আসনে দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন গফরগাঁও তথা ময়মনসিংহের প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে। চলতি সংসদে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে নির্বাচিত সংসদ সদস্য তিনি। ইতিপূর্বেও সাফল্যের সঙ্গে এমপি হিসাবে নিজের মেয়াদ শেষ করেন।

আমাদের কন্ঠের সাথে এক সাক্ষাতকারে ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল এমপি বলেন, আমার বাবা মরহুম আলতাফ হোসেন গোলন্দাজ ছিলেন বাংলাদেশের রাজনীতিতে অত্যন্ত পরিচিত ও পর পর তিনবার নির্বাচিত এমপি ।

পিতার হাত ধরেই মূলত মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে জনমত তৈরির কাজে আত্মনিয়োগ করি। পিতার মাধ্যমেই প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার আগ্রহ ভেতরে ছিল। একটা সময় ধীরে ধীরে আওয়ামী লীগের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের কর্মকান্ডে নিজেকে যুক্ত করি।

ছাত্র রাজনীতিতে যেমন গফরগাঁওয়ের মানুষের কাছে প্রিয় হয়ে উঠেছিলাম, এমপি হিসাবে গফরগাঁওয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে গিয়েও মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি। অনেকে রাতের অন্ধকারে মুখে মাফলার বা গামছা পেঁচিয়ে আমার সঙ্গে দেখা করে সাহস জুগিয়ে গেছেন। সাধারণ মানুষের ভালোবাসা পেয়েছিলাম বলেই নানা প্রতিকূলতা মোকাবেলা করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে পেরেছি।

বাাবেল বলেন, আমি এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকার মানুষকে রাজনীতিসচেতন করার চেষ্টা করেছি। মানুষকে বুঝিয়েছি রাজনীতি কেমন হওয়া উচিত। রাজনীতি যে টাকা-পয়সা কামানোর মাধ্যম নয়, সেই শিক্ষা দেওয়ার চেষ্টা করেছি।’

জানা গেছে, বাবার মতোই বিপুল জনপ্রিয় এমপি বাবেল এলাকার উন্নয়ন, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়ন নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি ।
২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে তিনি বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছেন। গফরগাঁওয়ের জনগণ তাকে অনেক ভালোবাসে, স্নেহ করে, সম্মান করে। জনগনের কাছে তার এটাই সবচেয়ে বড় পাওয়া। তার প্রতি জনগণের প্রত্যাশাও অনেক, তিনি বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সৈনিক হিসেবে তার এলাকার মানুষের প্রত্যাশা পূরণে সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল বলেন, আব্বার কাছ থেকেই মূলত আমার রাজনীতির হাতেখড়ি। তিনি অত্যন্ত দূরদর্শী রাজনীতিবিদ ছিলেন। এলাকার মানুষকে নিজের জীবনের চেয়েও বেশি ভালোবাসতেন। মানুষজনও তাঁকে অত্যধিক ভালোবাসত, সম্মান করত। তিনি আমাকে বলে গেছেন, যতদিন বাঁচি ততদিন যেন মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখি। আমার চলার পথে সব সময়ই আব্বার প্রভাব আমি টের পাই।

শতভাগ উন্নয়ন শেষ করতে পেরেছি, এমন দাবি করব না। তবে আমার প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার গফরগাঁওয়ের প্রতি বরাবরই সুদৃষ্টি ছিল, আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে বলে আমি বিশ্বাস করি। ইতোমধ্যে বহু উন্নয়ন কাজ শেষ করেছি, পৌরসভাসহ গ্রামাঞ্চলে বহু উন্নয়ন কাজ চলমান আছে।

বিশেষ করে বহু রাস্তাঘাট, ব্রিজ, কালভার্ট নির্মাণ ও স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসার অবকাঠামো উন্নয়ন গত তিন বছরে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে পেরেছি। এটা সম্ভব হয়েছে, প্রশাসনের আন্তরিকতা ও আমার দলীয় নেতাকর্মীদের আন্তরিক সহযোগিতার কারণে। আরো বেশকিছু উন্নয়ন কাজের পরিকল্পনা হাতে আছে।
সত্যি কথা বলতে কি এক সময় গফরগাঁওয়ের খুব কম মানুষ ট্রেনের টিকিট কাটত, কিন্তু এখন কেউ টিকিট কাটা ছাড়া ট্রেনে ওঠে না। অথচ দুঃখের বিষয় গফরগাঁওয়ের জন্য সিট খুব কম বরাদ্দ। আমি এমপি হিসেবে বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। তাঁরা আমাকে আশ্বাস দিয়েছেন দ্রুতই সিট বাড়াবেন। একই সঙ্গে স্টেশনটিকে প্রথম শ্রেণি করারও পরিকল্পনা আছে।

উপজেলার আইন-শৃঙ্খলার সার্বিক পরিস্থিতি ভালো। মানুষ নিশ্চিন্তে রাত-বিরাতে পথ চলতে পারে, বাড়িতে ঘুমাতে পারে, চোর-ডাকাতের কোনো উৎপাত নাই। পুলিশ প্রশাসনকে বলে দেয়া আছে, আমি কোনো সন্ত্রাসীকে ছাড় দেব না। অন্যায় করে কেউ পার পাবে না। আমি সব সময় ন্যায়ের পক্ষে, অন্যায়ের বিপক্ষে।

আমাদের সরকারের নীতিই হচ্ছে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স। প্রধানমন্ত্রী থেকে মন্ত্রী, এমপি, জেলা পরিষদ, উপজেলা পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বার এবং সিটি করপোরেশন ও

পৌরসভার মেয়র-কাউন্সিলরসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সবাই সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার আছেন। একাত্তরের পরাজিত শক্তি ও তাদের দোসররা বিভিন্ন সময় এই দেশকে অশান্ত করে ফায়দা লোটার চেষ্টা করেছে, কিন্তু চূড়ান্ত বিচারে সফল হতে পারেনি, এবারও পারবে না। আমি বলব, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য একটা সুন্দর ও উন্নত বাংলাদেশ চাইলে সরকারের পাশাপাশি দেশের সবারই সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে এখনই রুখে দাঁড়ানো উচিত।

রাজনীতির ভেতর বহু অরাজনৈতিক লোকজন ঢুকে গেছে, এটা সত্যি। দেশকে এ অবস্থা থেকে উত্তরণ ঘটানোর জন্যই তরুণ মেধাবীদের বেশি করে রাজনীতিতে আসতে হবে। তাহলে অরাজনৈতিক ব্যক্তিরা সুযোগ পাবে না। আমার প্রাণের দল আওয়ামী লীগ সব সময়ই তরুণ নেতৃত্বকে মূল্যায়ন করে থাকে। তরুণ সমাজের উদ্দেশে বলব, আপনারাই আগামীতে

বাংলাদেশ চালাবেন, তাই ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকতে হবে। আসুন, গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ায় অবদান রাখার মাধ্যমে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে দলমত নির্বিশেষে একযোগে আত্মনিয়োগ করি। গফরগাঁওয়ে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষজন জানান,

শিক্ষা, শান্তি, প্রগতি তথা জনসেবায় আমরা পেয়েছি ফাহমী গোলন্দাজ বাবেলকে । ব্যক্তি হিসাবে তিনি অত্যন্ত সৎ, শিক্ষিত ও যোগ্য জনপ্রতিনিধি । তার মাধ্যমে হচ্ছে গফরগাঁওয়ের মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন। তিনি সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত গফরগাঁও গঠনে কাজ করে যাচ্ছেন ।
গফরগাঁওয়ের সার্বিক উন্নয়নে এমপি বাবেলের সফলতায় আমরা গফরগাঁওবাসী গর্বিত ।





আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close