* কুড়িগ্রামে কোটিপতি ডাক্তার অমিত কুমার বসুর চিকিৎসা বাণিজ্য            * এখনও স্ত্রী সুমির দেখা পাননি স্বামী নুরুল ইসলাম           * শিশু চুরি করে এক হাজার টাকায় বিক্রি           * ঠোঁটে কালো দাগ? দূর করুন সহজে           * মধুর রাতে স্বামী-স্ত্রীর ‘যা জানা’ দরকার           * দৃষ্টিহীনের চরিত্রে সোনম           *  মালয়েশিয়াগামী ১১৯ রোহিঙ্গা উদ্ধার            *  বাড়ছে লিড, বাড়ছে বাংলাদেশের ভয়            * ছুটির দিনে আয়কর মেলায় করদাতাদের ঢল           * জাতীয় সম্মেলনে বিএনপিকে দাওয়াত দেবে আ.লীগ           * পরীক্ষার খাতা দেখছেন প্রভাষকের শালিকা!            * এসপি হারুনের অপকর্মের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে শুরু করেছে ব্যবসায়ীরা            * ‘ব্যারিস্টার সুমন প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসতে মামলা করেন’            * গরু আনতে গিয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের শিকার           *  এবার বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল চট্টলা এক্সপ্রেস            *  মাটির ওপর ট্রেন চালাতে পারি না, মেট্রো চালাব কীভাবে            *  রেল দুর্ঘটনার পেছনে চক্রান্ত আছে কিনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব            * নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে এক সন্তানের জননীকে গণধর্ষণ           *  যশোরের দুই নারীকে ভারতের পতিতালয়ে বিক্রি            * জঙ্গি দমনে পুলিশের ভূমিকা প্রশংসিত হয়েছে: আইজিপি          
* কুড়িগ্রামে কোটিপতি ডাক্তার অমিত কুমার বসুর চিকিৎসা বাণিজ্য            *  বাড়ছে লিড, বাড়ছে বাংলাদেশের ভয়            * ছুটির দিনে আয়কর মেলায় করদাতাদের ঢল          

জেলায় জেলায় ডেঙ্গুরোগী

নিজস্ব প্রতিবেদক | রবিবার, জুলাই ২৮, ২০১৯
জেলায় জেলায় ডেঙ্গুরোগী
রাজধানীর পাশাপাশি বিভিন্ন জেলা শহরেও শনাক্ত হয়েছেন বিপুল সংখ্যক ডেঙ্গু রোগী। এদের সিংহভাগই ঢাকায় এসে সংক্রমিত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। এ অবস্থায় তারা স্থানীয়দের আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

আক্রান্তদের মধ্যে কক্সবাজারে মারা গেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের ছাত্রী ইউ খাইন নু। যশোরে মারা গেছেন নড়াইল সদর উপজেলার রুকসানা পারভীন রানী।

আট জেলায় দেড়শ জনেরও বেশি মানুষের আক্রান্ত হওয়ার তথ্য মিলেছে। তাদের মধ্যে কয়েকজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন, এখনো হাসপাতালে ভর্তি শতাধিক।

ঢাকা ও ঢাকার বাইরের বিভিন্ন জেলার হাসপাতালগুলোর ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে ঢাকাটাইমস প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর।

চাঁদপুরে ৪৩ রোগী শনাক্ত

চাঁদপুরের সিভিল সার্জন অফিস জানায়, ৪৩ জন রোগী পাওয়ার পর ১৫ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। বাকিরা চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে। তবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোনো রোগী ভর্তি হয়নি।

কুষ্টিয়ায় ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি ১০

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে শুক্রবার থেকে শনিবার পর্যন্ত ১০ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে গত ২০ দিনে ২৭ জন রোগী শনাক্ত করা হলেন।

এদের মধ্যে ছয়জন এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। বাকি চারজন চিকিৎসা শেষে ফিরে গেছেন।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, গত তিন দিন ধরে রোগীর সংখ্যা বেড়ে গেছে। প্রতিদিন গড়ে ৫-৬ জন রোগী শনাক্ত হচ্ছে।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক নূরুন নাহার বলেন, কেবল শুক্রবারেই ১০ জন ডেঙ্গু রোগীকে শনাক্ত করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে তিন রোগী

গত ২৪ ঘণ্টায় (শনিবার দুপুর পর্যন্ত) ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে তিনজন সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানান সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক নাদিম সরকার।

আক্রান্তরা হলেন- সদর উপজেলার দেবিনগর ইউনিয়নের ধোলারীহাট গ্রামের শরিফুল ইসলাম, পৌর এলাকার বালুবাগানের শাহিন, একই উপজেলার কালিনগর গ্রামের শাহিন।

চিকিৎসক নাদিম সরকার বলেন, তিনজনই ঢাকায় থাকা অবস্থায় ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হন। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে পরে শুক্রবার সদর হাসপাতালে ভর্তি হন।

আরো কয়েকজন জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন। তাদের ভর্তি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে বলেও জানান চিকিৎসক নাদিম।

যশোরে এক জনের মৃত্যু

নড়াইল সদর উপজেলার রুকসানা পারভীন রানী যশোর ইবনে সিনা হাসপাতালে গত ১৯ জুলাই ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। আশঙ্কাজনক অবস্থায় খাজুরা এলাকার ইলিয়াস হোসেনকে বৃহস্পতিবার ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়।

যশোর জেনারেল হাসপাতালে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ডেঙ্গুজ্বরে রোগী হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন মণিরামপুর উপজেলার দাবুখালী গ্রামের নাজমা বেগম, সদর উপজেলার পুলেরহাট এলাকার সোহেল, রূপদিয়ার দেয়াপাড়ার নওয়াব আলী, যশোর শহরের ষষ্ঠীতলা পাড়ার আলমগীর ফারুক, পোস্ট অফিসপাড়ার অভিজিত, বাঘারপাড়া উপজেলার খাজুরার মির্জাপুর এলাকার ইলিয়াস হোসেন, মণিরামপুর উপজেলার নইলে গ্রামের আসিফ রায়হান।

এর আগে যশোর জেনারেল হাসপাতালে আরো ১২ জন ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করেন চিকিৎসকরা।

ডেপুটি সিভিল সার্জন হারুন অর রশিদ বলেন, আক্রান্তরা কোনো না কোনোভাবে ঢাকায় অবস্থান করেছেন। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত মনে করে যশোরে গ্রামের বাড়িতে চলে এসে হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

লক্ষ্মীপুরে শনাক্ত ছয় জন

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন ছয়জন। শনিবার বিকাল পর্যন্ত এসব রোগী শনাক্ত করা হয় বলে জানিয়েছেন সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন।

এদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় হোসেন আহমেদ নামে একজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

অপর আক্রান্তরা হলেন- সদর উপজেলার চরমনসা এলাকার হোসেন আহমদ, পৌরসভার বাঞ্চানগর এলাকার স্কুলশিক্ষার্থী ফাহিম হোসেন, লাহারকান্দির মাহাবুবুর রহমান, পশ্চিম-লক্ষ্মীপুরের মাহফুজুর রহমান এবং একই উপজেলার বাসিন্দা রোকেয়া বেগম ও হৃদয় হোসেন।

চট্টগ্রামের একটি ইটভাটায় শ্রমিকের কাজ করতেন হোসেন আহমেদ। ১০ দিন ধরে তিনি প্রচ- জ্বরে ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর ডেঙ্গুজ্বর শনাক্ত করে চিকিৎসক।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, গত কয়েকদিন ধরে জ্বরে আক্রান্ত হয়ে বেশকিছু রোগী ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে শনিবার বিকালে পর্যন্ত ছয়জনের শরীরে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

নোয়াখালীতে নয়জন

গত কয়েকদিনে নোয়াখালীর বিভিন্ন উপজেলা ও পাশের জেলা থেকে ডেঙ্গু জীবাণু নিয়ে কয়েকজন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে প্রায় সবাই ঢাকা থেকে ফিরে জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

শনিবার সকাল পর্যন্ত নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নয়জন রোগী ভর্তি হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সৈয়দ মহিউদ্দিন আব্দুল আজিম।

এদের মধ্যে তিন জন হাসপাতালে ভর্তি হন গত ২৪ ঘণ্টায়। সবাই ঢাকা থেকে জ্বরে আক্রান্ত হয়ে নোয়াখালীতে এসে হাসপাতালে ভর্তি হন। বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার পর ভালোর দিকে রয়েছেন তারা।

সুনামগঞ্জে দুইজন

জেলায় ডেঙ্গু আক্রান্ত দুজন রোগী শনাক্ত করেছেন জেলা সদরের চিকিৎসকরা। তাদের মধ্যে একজন কলেজ শিক্ষার্থী ও অপর আক্রান্তের পরিচয় প্রকাশ করেননি চিকিৎসকরা।

সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক রফিকুল ইসলাম জানান, দুই জনই ঢাকা থেকে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে আক্রান্ত কলেজ ছাত্রকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অপর রোগী সদর হাসপাতালের চিকিৎসক বিষ্ণু প্রসাদ চন্দের তত্ত্বাবধানে নিজ বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এ ছাড়া বগুড়ায় এখন পর্যন্ত ২৮ জন রোগী শনাক্তের তথ্য এসেছে শুক্রবারই। আরো বেশ কিছু জেলায় আক্রান্তের তথ্য মিলেছে।

২০০০ সালে দেশে প্রথম ডেঙ্গু রোগ শনাক্ত হয়। তবে চলতি বছর রোগীর সংখ্যা রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত ২৫ জনেরও বেশি মানুষের মৃত্যুর তথ্য মিলেছে। আর সরকারি হিসেবেই আক্রান্ত ১০ হাজার।

বাংলাদেশের চেয়ে বাজে অবস্থায় আছে ফিলিপাইন, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর। নারগিরদের সতর্ক করেছে চীন, ভিয়েতনাম।




আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close