* সিরিয়া নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভুল টুইট           * চুরি করে পালানোর সময় পিকআপের তেল শেষ            * সেরা সুন্দরীকে দেয়া হবে ২০ লাখ টাকার মুকুট            * দুর্গাপুর-কলমাকান্দা সড়কে সংস্কার কাজ বন্ধ জনভূগান্তি চরমে           * কটিয়াদীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত           *  সেই ওসির বিরুদ্ধে মামলা           * ফুলবাড়ীতে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত           * ঝিকরগাছায় ইউপি চেয়ারম্যানের ৬ মাসের কারাদণ্ড            * ‘ত্রিশাল বার্তা’র সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা ত্রিশাল প্রেসক্লাবের নিন্দা ও প্রতিবাদ সভা           * ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উন্নয়ন কাজের ফলক উম্মোচন           * নড়াইলে মহিলা আ’লীগের নবগঠিত কমিটির নাম ঘোষণা            * বাল্যবিবাহ ও নারী শিশু নির্যাতন বন্ধে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত           * দুনীর্তিমুক্ত ও স্বচ্ছ পক্রিয়ায় শিক্ষক নিয়োগ মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে নেত্রকোনা জেলা প্রশাসন ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের উদ্যোগে প্রেস ব্রিফিং           *  মানুষ শান্তিতে ঘুমাবে আমরা জেগে থাকব তাদের নিরাপত্তায় ---- এডিশনাল ডিআইজি ড. মোঃ আক্কাছ উদ্দিন ভূইয়া            * নাইজেরিয়ায় মাদরাসা থেকে শিকলবন্দি ৬৭ জনকে উদ্ধার           * কাশ্মীরে বিক্ষোভ, আটক সাবেক মুখ্যমন্ত্রীর মেয়ে           * গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ে পদত্যাগের হিড়িক           * আদালতের এজলাসে ক্যাসিনো সম্রাটের ৪৫ মিনিট           *  সাদাতের হিলি সীমান্ত দিয়ে ভারতে পলায়ন ঠেকাল পুলিশ           * অনির্দিষ্টকালের জন্য কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ          
* অদ্ভূত নিয়ম বাতিল করলো আইসিসি           * আব্বাস-আলালসহ ৫৬ জনের বিচার শুরু           * সৌদির - ইরান মধ্যে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছে পাকিস্তান          

ঘৃণাসূচক চিহ্নের তালিকায় হাতের ‌‘ওকে’ চিহ্ন

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | সোমবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৯
ঘৃণাসূচক চিহ্নের তালিকায় হাতের ‌‘ওকে’ চিহ্ন

তর্জনী এবং বৃদ্ধাঙ্গুল একত্রে গোল করে দেখানো মানে ঠিক আছে- যা অনেকের কাছেই খুব জনপ্রিয় একটা ইমোজি। কিন্তু ঘৃণা বা মানহানিকর বক্তব্যের বিরোধী সংগঠন অ্যান্টি-ডিফামেশন লীগ (এডিএল) বলছে, অনেকে এই চিহ্নটি দিয়ে শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যবাদ প্রকাশ করে। ফলে এটিকে তারা ঘৃণাসূচক চিহ্নের অন্যতম বলে তালিকাভুক্ত করেছে।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের বিদ্বেষ-প্রতিরোধী গ্রুপগুলো বলছে, এই প্রতীকের অনেক বেশি ব্যবহারের ফলে এখন কোনো কিছুর অনুমোদন বা ‘ঠিক আছে’ জাতীয় বক্তব্যের প্রকাশও বলা যেতে পারে। সুতরাং এই প্রতীক যারা ব্যবহার করছে, তাদের সম্পর্কে চট করে সিদ্ধান্তের পৌঁছানো ঠিক হবে না বলেই তারা মনে করে।

এডিএলের ঘৃণাসূচক প্রতীকের তালিকায় আরো রয়েছে নিউ নাৎসি প্রতীক পোড়ানো, হ্যাপি মার্চেন্টের ছবি।

২০০০ সাল থেকে ‘ঘৃণার প্রকাশ’ তালিকা তৈরি করতে শুরু করে অ্যান্টি-ডিফামেশন লীগ। তাদের এই তালিকার উদ্দেশ্য হলো, মানুষ যাতে চরমপন্থিদের নানা চিহ্ন দেখে চিনতে পারে। এখন পর্যন্ত এই তালিকায় ২০০ বিষয় রয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে নাৎসি স্বত্বিকা এবং কু ক্লাক্স ক্লানের জ্বলন্ত ক্রুশ।

এডিএলের প্রধান জনাথন গ্রেনব্লাট বলেন, হয়তো অনেক বছর বা দশক ধরে চরমপন্থি লোকজন এসব প্রতীক ব্যবহার করে আসছে, কিন্তু তারা নিয়মিতভাবে নতুন নতুন প্রতীক, মেমে এবং শ্লোগান তৈরি করছে, যা দিয়ে তারা তাদের ঘৃণাসূচক মনোভাবের প্রকাশ ঘটায়। আমরা বিশ্বাস করি, এসব প্রতীক সম্পর্কে আইনপ্রয়োগকারী এবং পুলিশের পূর্ণাঙ্গ ধারণা থাকা উচিত। এর ফলে সমাজে বা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ঘৃণাকারী এসব ব্যক্তির উপস্থিতি সম্পর্কে প্রথমেই সতর্ক হওয়া যাবে।

ধারণা করা হয়, সতেরো দশকের দিকে যুক্তরাজ্যে প্রথম হাতের দুই আঙ্গুল একত্রে করে ‘ঠিক আছে’ প্রতীক ব্যবহার করা শুরু হয়।

এডিএল বলছে, ‘ওকে’ প্রতীকটি এখন নিজেদের জাহির করার জন্য ডানপন্থীদের কাছে জনপ্রিয় একটি প্রতীকে পরিণত হয়েছে, যারা প্রায়ই এ ধরণের চিহ্ন প্রকাশ করে সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করে থাকে।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্ট চার্চ মসজিদে যে ব্যক্তি ৫১জনকে গুলি করে হত্যা করেছিল, আদালতে নেয়ার পর তাকে এই ‘ওকে’ চিহ্ন প্রকাশ করতে দেখা যায়। হত্যাকাণ্ডের জন্য সে দোষী নয় বলে দাবি করে।

ডানপন্থী আন্দোলন বিশেষজ্ঞ, ইতিহাসবিদ ড. পল স্টোকার বলছেন, চরম ডানপন্থী ব্যক্তিদের একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য অন্যতম প্রতীক হলো এই ‘ওকে’ চিহ্নটি।

‘সেই সব লোকজনের জন্য এটা হচ্ছে একটা সাংকেতিক বার্তা যারা চরম ডানপন্থীদের কাজকর্ম সম্পর্কে জানে এবং বুঝতে পারে’, তিনি রেডিও নিউজবিটকে বলেছেন।

‘এই প্রতীক দিয়ে গোঁড়া সমর্থকদের বোঝানো হয় যে, তিনি তাদেরই একজন।’

এই লেখক বলছেন, চরমপন্থিদের মধ্যে এটা খুবই স্বাভাবিক একটি ব্যাপার যে, এই প্রতীকটি তারা প্রকাশ্য স্থানে দেখাচ্ছে এবং পরিষ্কারভাবে তার অর্থ ঘোষণা করছে।

‘ডানপন্থীদের মধ্যে নানা ধরণের প্রতীকের ব্যবহার বাড়ছে। তারা মূলত অনলাইনে সক্রিয় থাকে এবং সাংকেতিক বার্তা এবং মেমে ব্যবহার করে। এগুলো দেখে আপাতদৃষ্টিতে নির্দোষ বলে মনে হবে, কিন্তু আপনি যদি তাদের ভালো করে বিশ্লেষণ করেন, তাহলে বুঝতে পারবেন যে, এর বিশেষ মানে রয়েছে।’

অ্যান্টি-ডিফামেশন লীগ এটাও পরিষ্কার করে দিতে চায় যে, এ ধরণের চিহ্ন দেখানোর সবসময় যে শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যবাদের প্রকাশ, তা নাও হতে পারে। বরং এটাও হতে পারে যে, এর আসলেই অর্থ, ‘সব কিছু ঠিক আছে’।

‘এই আঙ্গুলের বার্তার অতিরিক্ত ব্যবহারের পেছনে এখন প্রথাগত উদ্দেশ্যও থাকতে পারে। ফলে কেউ যদি এই প্রতীকটি ব্যবহার করে, তাহলেই প্রথমেই এটা ধরে নেয়া ঠিক হবে না যে সে কাউকে ব্যাঙ্গ করার জন্য নাকি শ্বেতাঙ্গ আধিপত্য প্রকাশের চিন্তা থেকে প্রতীকটি ব্যবহার করছে।’ খবর: বিবিসি বাংলা।





আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close