* শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা পছন্দ না করলে বাড়ি চলে যাব: চবি উপাচার্য            * অধ্যক্ষকে পানিতে ফেলার মূল হোতাসহ গ্রেপ্তার ৫           * ইরানে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভে নিহত ১২           * চলছে অভিযোগের তদন্ত সদর দপ্তরে দায়িত্বহীন এসপি হারুন            * দৃশ্যমান হতে যাচ্ছে পদ্মা সেতুর আড়াই কিলোমিটার           * আর্জেন্টিনায় এভাবেও মাদক পাচার হয়!            * মেয়ের বাবা হলেন তামিম           * আবারও নাম্বার টেনের জাদু, নিশ্চিত হার এড়াল আর্জেন্টিনা           * আমি ভাল আছি, কেউ চিন্তা করো না: নুসরাত           * পরিবহন আইন বাতিলের দাবিতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ           * পেয়াজসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য নিয়ন্ত্রণে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা            *  একাধিক শারীরিক সম্পর্কে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে            * গাঁজার বস্তার ওপর ঘুমিয়ে গেলো পাচারকারী           * বস্তিতে বড় হয়েও এখন হাতে ২২ লাখ টাকার ঘড়ি!           * সর্দি-কাশির সঙ্গে লড়াই করে রসুন চা           * পার্টটাইম ইয়াবা ব্যবসায়ী!           * পেঁয়াজের ঝাঁঝ না কাটতেই ‘লবণের কেজি ১০০ টাকা’ গুজব!            * সন্তান জন্মদানের এক মিনিট আগেও জানতেন না তিনি গর্ভবতী!            * 'উন্নয়নের পুণ্যে প্রধানমন্ত্রীর বেহেস্ত যাওয়ার হক আছে'           * সৃজিত-মিথিলার বিয়ে          
* দৃশ্যমান হতে যাচ্ছে পদ্মা সেতুর আড়াই কিলোমিটার           * মেয়ের বাবা হলেন তামিম           * পরিবহন আইন বাতিলের দাবিতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ          

ধানমণ্ডিতে জোড়া খুন, গৃহকর্মীকে সন্দেহ

স্টাফ রিপোর্টার | রবিবার, নভেম্বর ৩, ২০১৯
 ধানমণ্ডিতে জোড়া খুন, গৃহকর্মীকে সন্দেহ

ধানমণ্ডিতে জোড়া খুনের ঘটনায় বাসার সিসিটিভির ফুটেজ দেখে কাজে যোগ দেয়া নতুন গৃহকর্মীকে সন্দেহ করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। শুক্রবার দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সময়ের সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করেছে পুলিশ। ফুটেজে দেখা যায়, ৬টা ১০ মিনিটে সালোয়ার কামিজ পরা প্রায় ৩০ বছর বয়সী এক যুবতী একটি ব্যাগ নিয়ে সিঁড়ি দিয়ে নামছেন।

তখন তার চোখমুখে ভীতিভাব লক্ষ্য করা গেছে। চতুর্থ তলার সিঁড়ি বেয়ে তৃতীয় তলার লিফটের সামনে যান তিনি। সেখানে গিয়ে দেখেন লিফটটি ওপরে উঠছে। নিচে নামতে দেরি হবে। এরপর তিনি বাকি পথ সিঁড়ি দিয়ে নেমে চলে যান।

গেটের সামনে গিয়ে তিনি এক নিরাপত্তা রক্ষীর সঙ্গে কথা বলেন। এরপর সড়কের ডানপাশ দিয়ে তিনি হাঁটতে হাঁটতে তার গন্তব্যে চলে যান। এ জোড়া খুনের ঘটনায় আইন-শৃংখলা বাহিনী ওই গৃহকর্মীকে মূল সন্দেহভাজন আসামি হিসাবে ধারণা করছে। তবে এ ঘটনায় ওই গৃহকর্মীকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। তাকে আটক করা গেলে খুনের সঙ্গে আর কেউ জড়িত আছে কী-না তা উদঘাটিত হবে বলে মনে করছে পুলিশ।

নিহতের স্বজনরা গণমাধ্যমকে শুক্রবার রাতে জানিয়েছিলেন যে, বাসা থেকে একটি আইফোনসহ ৩ টি মোবাইল ফোন খোয়া গেছে। গতকাল শনিবার তারা পুলিশকে জানিয়েছেন যে, ওই ৩ টি আইফোন পাওয়া গেছে। বাসার জিনিসপত্র কিছু তেমন চুরি হয়নি বলে তারা জানিয়েছেন। নিহতের স্বজনরা জানিয়েছেন, আফরোজা বেগম তার সমস্ত টাকা পয়সা ও গয়না তার বড় মেয়ে দিলরুবার কাছে জমা রাখতেন। একারণে পলাতক গৃহকর্মী মোটা অংকের টাকা বা গয়না নিয়ে যেতে পারেনি। তবে বাসার আলমারি ভাঙ্গা অবস্থায় ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, পলাতক গৃহকর্মী চুরির উদ্দেশ্যেই আলমারি ভেঙ্গেছিলো।

এদিকে, নিহত দুইজনের লাশের ময়নাতদন্ত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে সম্পন্ন হয়েছে। ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক জানিয়েছেন, দুইজনের গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন ছিল। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় কোন মামলা করা হয়নি। তবে পুলিশ জানিয়েছে, বাদীর অভিযোগ পেলেই মামলা দায়ের হবে।

শুক্রবার রাতে পুলিশ ধানমন্ডির ২৮ নম্বর রোডের ২১ নম্বর বাড়ির চতুর্থ তলার একটি ফ্ল্যাট থেকে আফরোজা বেগম ও তার গৃহকর্মী দিতির লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের জামাতার গাড়ি চালক বাচ্চু, বাড়ির ইলেক্ট্রিশিয়ান বেলায়েত ও এক নিরাপত্তারক্ষীকে আটক করেছে। সূত্র জানায়, আটক বাচ্চুকে গৃহকর্মীর ঠিকানা প্রদানকারী ওই বাসার পাশের এক পান দোকানিকে আটক করেছে র‌্যাব। তবে র‌্যাবের কোন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বিষয়টি স্বীকার করেননি।

এ বিষয়ে ধানমন্ডি জোনের পুলিশের এডিসি আবদুল্লাহিল কাফি মানবজমিনকে জানান, ‘ওই বাসার সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। নতুন এক গৃহকর্মী ওই বাসায় কাজে যোগ দিয়েছিলেন।

পুলিশের ধারণা, ওই গৃহকর্মী দুইজনকে গলাকেটে পালিয়েছেন। তাকে ধরতে অভিযান চলছে।’ ধানমন্ডি জোনের পুলিশের এক ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তা জানান, সন্দেহ করা হচ্ছে সেই গৃহকর্মী শুক্রবার সকালে ওই বাসায় নতুন কাজে যোগ দিয়েছিলেন। নতুন কাজে যোগ দেয়ার কারণে বাসার লোকজন তার পূর্ণাঙ্গ ঠিকানা নিতে পারেনি।

এছাড়াও যে ফ্ল্যাটে খুনের ঘটনা ঘটেছে ওই ফ্ল্যাটে কোন পুরুষ থাকতেন না। শুধু আফরোজা বেগম তার গৃহকর্মী দিতিকে সঙ্গে নিয়ে থাকতেন। এজন্য তার ঠিকানা নেয়ার জন্য কেউ তাগিদ দেয়নি। ঘটনাস্থলে দেখা গেছে যে,

বাসার চতুর্থ তলা থেকে দ্বিতীয় তলা পর্যন্ত ছোপ ছোপ রক্তের দাগ লেগে ছিল। তৃতীয় তলার লিফটের সামনেও রক্তের দাগ লেগে ছিল। এছাড়াও নিহত আফরোজার বেডরুমে একটি আলমারি ছিল। পুলিশের ধারনা খুনের সঙ্গে জড়িত ওই গৃহকর্মী ফ্ল্যাটে হাঁটাহাঁটি করার কারণে তার পায়ে রক্ত লেগে যাওয়ায় সিঁড়ি ও লিফটের সামনে রক্তের দাগ লেগে ছিল।

সূত্র জানায়, আটক বাচ্চুও ওই গৃহকর্মীকে চিনে না বলে পুলিশকে জানিয়েছেন। বাচ্চু জানিয়েছে যে, বাসার পাশের পান দোকানদার সুমনের কাছ থেকে তিনি ওই গৃহকর্মীর ঠিকানা পান।

একারণে পুলিশ তাকে খুনের সঙ্গে খুব একটা সন্দেহ করছে না। তবে সন্দেহভাজন গৃহকর্মী গ্রেপ্তার না হওয়া পর্যন্ত তাদের থানায় আটক রাখা হবে। এ ঘটনার সঙ্গে আর কেউ জড়িত আছে কী-না তাকে আটক করা গেলে জানা যাবে। নিহতের লাশের ময়নাতদন্তকারী ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রভাষক ডা: কবীর সোহেল মানবজমিকে জানান, ‘নিহত দুইজনের গলায় আঘাতের চিহ্ন ছিল। তাদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদের গলায় আঘাত করা হয়েছে।





আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close