* জাতিসংঘের প্রতিনিধিরা সুন্দরবনে           *  বহু দম্পতির ডিভোর্সের কারণ এই মারাত্মক রোগ!            * জেসিয়া যখন ভাইরাল           * এর আগে কখনো এতটা নার্ভাস হইনি: মিথিলা           * ত্রিশালে ছয় ইটভাটাকে ৩৪ লাখ টাকা জরিমানা           *  এক চুমুকেই মন খারাপের দাওয়াই , আবার …            * ১১ লক্ষ টাকার ইয়াবাসহ যুবক আটক           * যে ৫ অঙ্গ বড় হলে নারীদের সৌভাগ্যবতী ভাবা হয়!           * গ্রাহকের ৫ কোটি লুট করলেন ব্যাংক কর্মকর্তা, ২ কোটি নিয়ে প্রেমিকা বিদেশ           * স্ত্রীদের সঙ্গে রাসূল (সা.) এর আচরণ ও বিনোদন           *  এই মুহূর্তে সংঘাতে জড়াতে চাই না: মির্জা ফখরুল            *  ছেলের খরচ দেন না শাকিব, অভিযোগ অপুর            * নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে বললেন ওবায়দুল কাদের           * ডিসির নির্দেশে সেই রাজাকার পুত্রের কবল হতে মুক্ত হলো ৩ কোটি টাকার রাষ্ট্রীয় সম্পদ!           * বাল্য বিবাহ মুক্ত ময়মনসিংহ বিভাগ গড়ে তোলার লক্ষ্যে নেত্রকোনায় বর্ণাঢ্য র‌্যালি, মানববন্ধনগণস্বাক্ষরতা ও শপথবাক্য পাঠ           * নোয়াখালীতে ট্রাক-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষ নিহত ২, আহত ১           * বেনাপোলে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক ১৫ আসামী গ্রেফতার           * কঠোর নিরাপত্তায় বৃহস্পতিবার শাপলাপুর ইউপি নির্বাচনের ভোট গ্রহণ           * দিনাজপুরে দুদকের হাতে প্রকৌশলী-ঠিকাদার গ্রেফতার           * বৃহস্পতিবারও শাহজালালে ২ ঘণ্টা ফ্লাইট বন্ধ          
*  টেস্ট ক্রিকেট ফিরল পাকিস্তানে            *  যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ বন্দুকযুদ্ধ : পুলিশসহ নিহত ৬            * ‘২০২০ সালে ফাইভ জি জগতে পা দেবে বাংলাদেশ’          

ভাগিয়ে নয়, পান্নার পরিবারের সম্মতিতেই বিয়ে করেন মেয়র নজরুল

অনলাইন ডেস্ক | বুধবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৯
ভাগিয়ে নয়, পান্নার পরিবারের সম্মতিতেই বিয়ে করেন মেয়র নজরুল
 সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা গুলশানারা পারভীন পান্নাকে পৌর মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা এসএম নজরুল ইসলাম ভাগিয়ে নিয়ে বিয়ে করেননি। বরং উভয় পরিবারের সম্মতিতেই পান্না ও মেয়র নজরুল ইসলামের বিয়ে হয়েছিল বলে জানা গেছে।

গতকাল সোমবার একটি অনলাইন গণমাধ্যমে ‘স্ত্রীকে ভাগিয়ে নিয়ে গেলেন মেয়র, ভয়ে চুপ স্বামী’ শিরোনামে শিক্ষিকা গুলশানারা পারভীন পান্না ও পৌর মেয়র নজরুল ইসলামকে নিয়ে খবর প্রকাশিত হয়।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় ব্যবসায়ী রাজন আহমেদের স্ত্রী সহকারী শিক্ষিকা গুলশানারা পারভীন পান্নাকে ভাগিয়ে নিয়ে বিয়ে করেছেন উল্লাপাড়ার পৌর মেয়র আওয়ামী লীগ নেতা এসএম নজরুল ইসলাম।

কিন্তু মেয়রের প্রভাবে মামলা তো দূরের থাক আজ পর্যন্ত কোথাও কোনো অভিযোগও করতে পারেননি গুলশানারার স্বামী রাজন আহমেদ।’

পরে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পান্নাকে ভাগিয়ে নিয়ে বা জোর করে বিয়ে করেননি মেয়র নজরুল ইসলাম। দুই পরিবারের সম্মতিতেই ২০১৮ সালের ২ এপ্রিল তারা বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হন।

তাদের বিয়ের আসরের দুটি ছবিও দেশের জনপ্রিয় একটি দৈনিক পত্রিকার কাছে এসে পৌঁছেছে। এরমধ্যে একটি ছবিতে মেয়র নজরুল ইসলামের সঙ্গে পান্না ও তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা গোলাপ হোসেন এবং মা জাকিয়া সুলতানাকে দেখা গেছে।

আরেকটি ছবিতে পুত্রবধূ পান্নার সঙ্গে মেয়রের বাবা চাঁদ আলী সরকার ও মা তারা বানুকে দেখা গেছে।

জানা গেছে, প্রথম স্ত্রী জেসমিন জয়ার সঙ্গে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের ১০ তারিখে তালাকের মাধ্যমে বিবাহ বিচ্ছেদ হয় মেয়র নজরুল ইসলামের।

এরপর উভয় পরিবারের সিদ্ধান্তে ২০১৮ সালের ২ এপ্রিল অনাড়ম্ভর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গুলশান আরা পারভীন পান্নাকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন মেয়র নজরুল ইসলাম।

এর আগে ২০১৬ সালের ২৭ জুলাই শারীরিক ও মানুষিক নি’র্যাতনের অভিযোগ এনে প্রথম স্বামী রুমান সাইদ রাজনকে লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করেন গুলশান আরা পান্না। একই তারিখে তাদের দুজনের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়।

এছাড়া মেয়রের প্রথম স্ত্রী জেসমিন জয়ারও দ্বিতীয় বিয়ে হয়ে গেছে।

এদিকে তাকে ঘিরে মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করায় গতকাল সংবাদ সম্মেলন করেছেন মেয়র নজরুল ইসলাম।

উল্লাপাড়া প্রেসক্লাবে আয়োজিত ওই সংবাদ সম্মেলনে পৌরসভার ৮ জন কাউন্সিলর, পৌর আওয়ামী লীগের ৯টি ওয়ার্ডের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে মেয়র বলেন, আমার বিরুদ্ধে একটি স্থানীয় পত্রিকা ও ২/১টি অনলাইন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ করেছে, যা অসত্য।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বিয়ে সংক্রান্ত সব কাগজপত্র সাংবাদিকদের সামনে উপস্থাপন করেন।

মেয়র নজরুল ইসলাম বলেন, ইসলামিক শরিয়ত মোতাবেক আমার দ্বিতীয় বিয়েতে পান্নার বাবা মুক্তিযোদ্ধা গোলাপ হোসেন, মা জাকিয়া সুলতানা ও তার পরিবারের অনেক সদস্যসহ শহরের গণমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

ইতিমধ্যে প্রথম স্ত্রী জেসমিন জয়ারও দ্বিতীয় বিয়ে হয়ে গেছে বলেও জানান মেয়র। এরপরও কেন আমার বিরুদ্ধে চরিত্রহরণসহ নানা নোংরা সংবাদ প্রকাশ করা হচ্ছে? প্রশ্ন করেন তিনি। সূত্র : যুগান্তর





আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close