* জামাইয়ের হাতে শাশুড়ি, শ্যালকের হাতে দুলাভাই খুন!           * বছরজুড়ে খুঁজেছে সারা আলীকে           * বিমানযাত্রীর শরীরে দুই কেজি স্বর্ণ           * বিয়ের আগের দিন পালাল মেয়ে, লজ্জায় মায়ের আত্মহত্যা            * টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে রাজশাহী           * ‘দেশজুড়ে অরাজকতা ঢাকতেই খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিচ্ছে না’           * ৫ বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়া সেই হাফেজকে ৫ হাজার টাকা দিলেন ইউএনও!           * মোদি সরকারকে কড়া বার্তা হাসিনার: আনন্দবাজার           *  দল হারলেও জয় পেয়েছেন টিউলিপ            *  বিএনপি কর্মী ভেবে পুলিশকে পেটালেন ওসি            *  প্রথমবারের মতো এমপি হলেন বাংলাদেশি কন্যা আফসানা            *  বড় জয় নিয়ে আবার ক্ষমতায় বরিস জনসন            * ‘মানুষের জন্য যদি হিরো থেকে জিরো হতে হয় আমি তাই হবো’            * ‘আমিও মুসলিম হয়ে যাব’            * হেরা পাহাড়, যেখানে ধ্যানমগ্ন থাকতেন প্রিয় নবী (সাঃ)            * বঙ্গবন্ধু নেই তাই শেখ হাসিনার কাছে বিচার দিলেন সুমন            * ‘মাইকিং’ করেও বঙ্গবন্ধু বিপিএলে দর্শক টানতে পারেনি বিসিবি            * যে ৩ আমলে মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে জান্নাত           * ঘুষ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর           * জেলের জালে ধরা পড়ল সাড়ে ২৫ কেজির বাঘাইড়           
* টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে রাজশাহী           * ‘দেশজুড়ে অরাজকতা ঢাকতেই খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিচ্ছে না’           *  প্রথমবারের মতো এমপি হলেন বাংলাদেশি কন্যা আফসানা           

যে মসজিদের প্রশংসা করেছেন স্বয়ং আল্লাহ তাআলা

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১, ২০১৯
 যে মসজিদের প্রশংসা করেছেন স্বয়ং আল্লাহ তাআলা

ইসলামের ইতিহাসে প্রথম নির্মিত মসজিদ ‘মসজিদে কুবা’। রাসুলুল্লাহ (সা.) মদিনায় আগমনের পর এই মসজিদ নির্মাণ করা হয়। পবিত্র কোরআনে এই মসজিদ ও তার মুসল্লিদের প্রশংসা করা হয়েছে। বর্তমানে মসজিদে কুবা মদিনার দ্বিতীয় বৃহত্তম মসজিদ। কুবা মূলত একটি প্রাচীন কূপের নাম। কূপের নামানুসারে পরবর্তী সময়ে এলাকার নামকরণ হয়। মহানবী (সা.) মদিনায় আগমনের পর কুবা নামক স্থানে অবতরণ করেন। তিনি আবু আইয়ুব আনসারি (রা.)-এর ঘরে অবস্থান করেন। তখন এই মসজিদ নির্মাণ করা হয়। মদিনার উত্তর প্রান্তে অবস্থিত এই মসজিদের নির্মাণকাজে স্বয়ং নবী করিম (সা.) অংশগ্রহণ করেন। মসজিদ নির্মাণে প্রথম পাথরটি তিনিই রাখেন। নির্মাণকাজ শেষ হলে তিনি আল্লাহর কৃতজ্ঞতা আদায় করেন এবং কুবাবাসীর প্রশংসা করেন। নবনির্মিত মসজিদে প্রথম নামাজ তিনিই আদায় করেন।

মসজিদে নববীর পাশে স্থায়ী আবাস গড়লেও মহানবী (সা.) প্রতি সপ্তাহের শনিবার মসজিদে কুবায় আসতেন।

কোরআনে মসজিদে কুবার প্রশংসা করে বলা হয়েছে, ‘যে মসজিদ প্রথম দিন থেকে তাকওয়ার ওপর প্রতিষ্ঠিত সেখানে অবস্থান করা আপনার জন্য অধিক সংগত। সেখানে এমন কিছু লোক রয়েছে যারা পবিত্রতা পছন্দ করে। আর আল্লাহ পবিত্র ব্যক্তিদের ভালোবাসেন।’ (সুরা : তওবা, আয়াত : ১০৮)

প্রতিষ্ঠার পর উসমান বিন আফফান (রা.), ওমর বিন আবদুল আজিজ (রহ.), উসমানীয় সুলতান দ্বিতীয় মাহমুদ ও তাঁর ছেলে প্রথম আবদুল মাজিদ প্রমুখ শাসকরা মসজিদে কুবার সংস্কারকাজ করেন। বাদশাহ ফাহাদ বিন আবদুল আজিজ আলে সৌদের সময় সর্বশেষ সম্প্রসারণ হয়। ১৪০৫ হিজরিতে শুরু হওয়া সংস্কারকাজ শেষ হয় ১৪০৭ হিজরিতে। যাতে মসজিদের আয়তন দাঁড়ায় ১৩ হাজার ৫০০ স্কয়ার মিটার। মসজিদে কুবায় বর্তমানে ২০ হাজার মুসল্লি একসঙ্গে নামাজ আদায় করতে পারে।





আরও পড়ুন



২. সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ মোঃ খায়রুল আলম রফিক
৩. নির্বাহী সম্পাদক ঃ প্রদীপ কুমার বিশ্বাস
৪. প্রধান প্রতিবেদক ঃ হাসান আল মামুন
প্রধান কার্যালয় ঃ ২৩৬/ এ, রুমা ভবন ,(৭ম তলা ), মতিঝিল ঢাকা , বাংলাদেশ । ফোন ঃ ০১৭৭৯০৯১২৫০
ফোন- +৮৮০৯৬৬৬৮৪, +৮৮০১৭৭৯০৯১২৫০, +৮৮০১৯৫৩২৫২০৩৭
ইমেইল- aporadhshongbad@gmail.com
(নিউজ) এডিটর-ইন-চিফ,
ইমেইল- khirulalam250@gmail.com
close