ক্ষেতলালের দালাল আক্কেলপুরের দু’যুবককে চাকুরি দেওয়ার নামে সাগরে ফেলে দেয়

জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধি | শনিবার, জুলাই ১১, ২০১৫
ক্ষেতলালের দালাল আক্কেলপুরের দু’যুবককে
চাকুরি দেওয়ার নামে সাগরে ফেলে দেয়

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার পূর্ণ গোপীনাথপুর গ্রামের বাবুল ও আমিনুর। চাকুরির আশায় পিতা মাতা স্ত্রী সন্তান বাড়ি ঘর রেখে দালালের খপ্পরে পরে পানি পথে মালেয়েশিয়া যাওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।

এক এক জনের  নিকট থেকে দালালরা ২ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা গ্রহন করেন।উক্ত দালালের বাড়ি আক্কেলপুর উপজেলা পার্শ্ববর্তী  ক্ষেতলাল উপজেলা সমন্তাহার গ্রামে।

    দালাল তারাজুল ইসলাম টাকা পয়সা নিয়ে গত ২৪ এপ্রিল  বাবুল ও আমিনুর কে নিয়ে বাড়ি থেকে রওনা দেয়। কিন্তু বিধি বাম টেকনাফ থেকে ট্রলার যোগে রওনা দেওয়ার পরেই দালার চক্র মিয়ানমারের  র্বামা সীমান্ত এলাকায় একটি দ্বীপ সংলগ্ন ট্রলার থেকে তাদের সাগরে ফেলে দেওয়া হয়। তারা সাতরিয়ে কুলে উঠতে সক্ষম হয়। তারা র্বামা সীমান্তের মংলু  এলাকায় অবস্থান করছে বলে পরিবারকে জানানো হয়। দালাল চক্র বিভিন্নভাবে আবারোও মোবাইল ফোনে বাবুলের স্ত্রী রেহেনা ও আমিনুরের স্ত্রী কারিমার নিকট টাকা দাবী করে।

    গতকাল শুক্রবারে রেহেনা ও কারিমা আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলামের নিকট সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে দালাল চক্রের ঘটনা বর্ণনা করেন এবং আবেগ আপ্লুত কন্ঠে কেঁদে ফেলেন। আমাদের স্বামীরা বেঁচে আছে না ? তাদেরকে সাগরের পানিতে ফেলে দিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে।
এঘটনার প্রেক্ষিতে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা টেকনাফ ও কক্রাবাজার থানা গুলোর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে জানানো হয়।