গৃহবধু স্বামীর শরীরে ভাতের গরম ফেন ঢেলে অমানশিক নির্যাতন

আটোয়ারী (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি | রবিবার, নভেম্বর ২৯, ২০১৫
গৃহবধু স্বামীর শরীরে ভাতের গরম ফেন ঢেলে অমানশিক নির্যাতন

 পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার বড় সিংগিয়া গ্রামের মোঃ মজিবর রহমানের ছেলে কশিবুল ইসলাম(৩৮)-এর স্ত্রী রত্মা(৩২) বেশ কিছুদিন যাবৎ ঐ স্ত্রী তার স্বামীকে নানা ভাবে কথোপকোথনের মাধ্যমে উসকানী মুলক কথা বার্তা বলেন। স্বামী শুনেও না শোনার মত করে বাড়িতে কাজ কর্ম করে

থাকেন। ২৯/১১/২০১৫ইং সকাল ৯.২০ ঘটিকার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঐ স্ত্রী স্বামীর উপরে ভাতের গরম ফেন শরীরে ঢেলে দেয়। স্থানীয় এলাকাবাসী কশিবুলকে মর্মান্তিক অবস্থায় আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। বর্তমানে কর্তব্যরত ডাক্তার মওলা বক্স চৌধুরীর আওতায়

৬নং বিছানায় চিকিৎধীন আছে। এদিকে ঐ স্ত্রী এলাকার মানুষকে নানা ধরনের কথা বার্তা বলেন। তার স্বামী তাকে নানা ভাবে নির্যাতন করে। সে সয্য করতে না পেরে তার স্বামীর উপর ভাতের গরম মার ঢেলে দেয়। রত্মার বাবা মোঃ জহির উদ্দীন লোক সমাজে প্রকাশ করে বেটাকে মেরেই দিলে ভাল

হতো। সে বলে তার মেয়েকে নাকি কাপড় চোপড়, খাবার খেতে দেয় না এবং বিভিন্ন ভাবে জামাইর নামে অপপ্রচার চালান। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় তার স্বামী একজন সাদা মনের মানুষ। বৌ-এর চাহিদা মেটাতে সাধ্য মতই চেষ্টা করে আসছে। আরো জানায় আমার বৌ বে-পড়োয়া এবং পরের ধন

লোভী। সে আমাকে স্বামী হিসাবে মুল্যায়ন করে না। তার বাবা মায়ের কথা মত চলা ফেরা করে। আমার তিনটি মেয়ের মুখের দিকে তাকিয়ে কোন কিছু বলতে পারি না। সময় অসময় তুচ্ছ কথা নিয়ে ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকে। এখন আমি আর সহ্য করতে না পেরে আমি আইনের সহায়তা নিব। এই বিষয়ে এলাকায় চাঞ্চলের সৃষ্টি হয়।