ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রদের সঙ্গে সংঘর্ষে ব্যবসায়ী-ছাত্রলীগ, আহত ২০

স্টাফ রিপোর্টার | মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১২, ২০১৬

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রদের সঙ্গে সংঘর্ষে ব্যবসায়ী-ছাত্রলীগ, আহত ২০

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের টি এ রোডে মাদ্রাসা ছাত্র ও মোবাইল ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে ২০জন আহত হয়েছেন। সোমবার সন্ধ্যায় শহরের জেলা পরিষদ মার্কেটের বিজয় টেলিকম মালিক রনির সঙ্গে মাদ্রাসার ২ ছাত্রের বাকবিত-া হয়।

এর জের ধরে মাদ্রাসার কয়েক’শ ছাত্র জেলা পরিষদ মার্কেটে গিয়ে রনির মালিকানাধীন বিজয় টেলিকমসহ একাধিক দোকানে হামলা চালায় ও ভাঙচুর চালায়। এরপর ব্যবসায়ীরা মাদ্রাসা ছাত্রদের ধাওয়া করলে দু-পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়।

এক পর্যায়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা যোগ দিলে তা ত্রিমুখী সংঘর্ষে রূপ নেয়। রাত ৯ টা পর্যন্ত থেমে থেমে সংঘর্ষ চলছে। সংঘর্ষ চলাকালে টিএরোড ও বড় মাদ্রাসার সামনে অর্ধশত ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। আহত ব্যবসায়ী রনি জানান- বিকেলে তার দোকানের সামনে এক বৃদ্ধ ইজি বাঈক চালকের সঙ্গে ভাড়া নিয়ে মাদ্রাসার দু-ছাত্র দুর্ব্যবহার করে। তিনি এর প্রতিবাদ করায় দুই মাদ্রাসা ছাত্র তাকে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়ে চলে আসে।

এর কিছুক্ষণ পরই কয়েক’শ মাদ্রাসা ছাত্র জেলা পরিষদ মার্কেটে গিয়ে হামলা চালায়। এরপরই সংঘর্ষ শুরু হয়। পুরো টিএরোড রনক্ষেত্রে পরিণত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শতাধিক রাউন্ড টিয়ার সেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় পুলিশসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে পুলিশের এক এএসপিসহ ৫ জন আহত হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শহরের টিএ রোড, কান্দিপাড়ায় থেমে থেমে সংঘর্ষ চলছিল। শহরের প্রধান সড়কে টিএরোডের সব দোকানপাট বন্ধ রয়েছে।