ডোমসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ অফিসটি এখন বিদ্রোহী প্রার্থীর দখলে

মহসিন রেজা, শরীয়তপুর প্রতিনিধি | সোমবার, মার্চ ২৮, ২০১৬
ডোমসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ অফিসটি এখন বিদ্রোহী প্রার্থীর দখলে

শরীয়তপুরে ডোমসার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মনোনয়ন না পাওয়ায় বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে চাঁন মিয়া মাদবর ডোমসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অফিস দখল করে নিয়েছেন।

এখন অফিসটি বিদ্রোহী প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এতে নৌকা প্রেমী জনগণের মনে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটার আশংকা রয়েছে। জরুরী ভিত্তিতে প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছেন স্থানীয় জনগণ।

এ ব্যাপারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বলেন, ডোমসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ অফিসটি এখন জোর করে  চাঁন মিয়া মাদবর স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস বানিয়েছে। আমরা অনেকবার বারন করেছি কিন্তু তিনি আমাদের কথা কর্ণপাত করেননি।  

এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খানের সাথে আলাপ কালে তিনি বলেন,  এই মূহুর্তে আমি কোন সংঘর্ষে লিপ্ত হতে চাইনা। তাদের ক্ষমতা আছে তাই তারা পার্টি অফিসকে ব্যক্তিগত অফিস হিসেবে ব্যবহার করছে। জনগনই এর জবাব দেবে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ডোমসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ অফিসটি বিদ্রোহী প্রার্থী চাঁন মিয়া মাদবরের কর্মীবৃন্দরা দখল করে রেখেছে এবং পার্টি অফিসের সাইন বোর্ড পরিবর্তন করে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী চাঁন মিয়া মাদবরের নির্বাচনী অফিস এর সাইন বোর্ড লাগানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে বিদ্রোহী প্রার্থী চাঁন মিয়া মাদবরের সাথে আলাপ করতে গেলে তাকে অফিসে পাওয়া যায়নি। পরবর্তীতে তার সাথে মোবাইলে আলাপ কালে তিনি বলেন, এটা পার্টি অফিস না, এটা কয়েকদিন আগে বানানো হয়েছে। এটা আমার অফিস।

সর্বশেষ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ শরীয়তপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে এর সাথে আলাপকালে তিনি বলেন,   আমি বিষয়টি জানিনা, আমি বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখছি। তবে আওয়ামীলীগের পার্টি অফিসকে কেউ ব্যক্তিগত নির্বাচনী অফিস হিসেবে ব্যবহার করতে পারে না।

কে,আই,এ/ঈ