ঝালকাঠিতে বিএনপি নেতার ছেলের রগ কর্তন

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | | মঙ্গলবার, এপ্রিল ১২, ২০১৬


ঝালকাঠিতে বিএনপি নেতার ছেলের রগ কর্তন
 ঝালকাঠিতে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলামের ছেলেকে কুপিয়ে জখম ও পায়ের রগ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিএনপি নেতার ছেলে আলমাস ইসলাম হিমেল (২১) বর্তমানে বরিশাল শেরেবাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন। গত সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে কৃষ্ণকাঠি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। বিএনপি নেতা মনিরুল ইসলাম দাবি করেছেন, চাঁদার টাকা না পেয়ে হিমেলের ওপর হামলা করে মাদক বিক্রেতা রাসু ও তার লোকজন। জানা যায়, নিজেদের মাছের ঘের থেকে রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ি ফিরছিল হিমেল। কৃষ্ণকাঠি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এলে ১০-১২ জন যুবক রামদা ও বগি দা নিয়ে হিমেলকে ঘিরে ফেলে। এ সময় তারা হিমেলের ওপর হামলা চালিয়ে বাম পায়ের রগ কেটে দেয়। হামলাকারীরা হত্যার উদ্দেশে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে তাঁর মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থান ক্ষতবিক্ষত করে দেয়। এতে হিমেল জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। তাঁর মৃত্যু নিশ্চিত ভেবে হামলাকারীরা চলে যায়। পরে স্থানীয় বাসিন্দারা হিমেলকে উদ্ধার করে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থার অবনতি হলে হিমেলকে বরিশাল শেরেবাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়ে ভর্তি করা হয়। হিমেলের বাবা মনিরুল ইসলাম বলেন, আমার ছেলে মালয়েশিয়ার একটি কলেজে অনার্সে ভর্তি হয়েছে। কিছুদিন পরে তার সেখানে চলে যাওয়ার কথা ছিল। বর্তমানে সে আমার মাছের ঘের পরিচালনা করে। কৃষ্ণকাঠি এলাকার চিহ্নিত মাদক বিক্রেতা রাসু ও তার সহযোগীরা সম্প্রতি হিমেলের কাছে ১০ হাজার টাকা চাঁদা চায়। দাবীকৃত চাঁদা টাকা না পেয়ে পরিকল্পিতভাবে আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশে কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। আমি এ ঘটনার বিচার দাবি করছি। এ ঘটনায় হিমেলের চাচা মো. নান্টু বাদী হয়ে ঝালকাঠি থানায় পাঁচজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। ঝালকাঠি থানার ওসি মাহে আলম বলেন, এ ঘটনায় পাঁচজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিরা ঘটনার পর থেকেই পলাতক। আসামিদের গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হচ্ছে।