বগুড়ায় অপহৃত শিশু উদ্ধার, নেশার টাকার জন্য চুরি

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | শুক্রবার, এপ্রিল ১৫, ২০১৬

বগুড়ায় অপহৃত শিশু উদ্ধার, নেশার টাকার জন্য চুরি
বগুড়ার ধুনট উপজেলায় রকিব হাসান নামে তিন মাস বয়সী চুরি যাওয়া এক শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত বিটল মিয়া (২৫) নামে এক মাদকাসক্ত যুবককে আটক করেছে পুলিশ। নেশার টাকার জন্য তিনি শিশুটিকে চুরির কথা স্বীকার করেছেন। গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার ছোট চিকাশি গ্রাম থেকে শিশু উদ্ধারসহ বিটলকে আটক করা হয়। আটক বিটল মিয়া বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার কামালপুর ফকিরপাড়া গ্রামের জাহিদুল ইসলামের ছেলে। ধুনট থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার ঐতিহাসিক মহাস্থান মাজার এলাকায় ঝুপড়ি ঘরে থাকেন গাইবান্ধা সদরের দিনমজুর দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী সালেহা বেগম। দাম্পত্য কলহের কারণে স্বামী দেলোয়ার অন্তঃসত্ত্বা সালেহাকে রেখে নিরুদ্দেশ হন। এরপর থেকে তিনি (সালেহা) মাজার এলাকায় ভিক্ষাবৃত্তি করে জীবিকা নির্বাহ করছেন। এ অবস্থায় গত তিন মাস আগে জন্ম নেয় শিশু রকিব হাসান। এদিকে, একই এলাকায় ভবঘুরে জীবন-যাপন করা মাদকাসক্ত বিটল মিয়ার সঙ্গে সালেহার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সম্পর্কের সূত্র ধরেই সালেহার ঘরে যাতায়াত ছিল বিটলের। গত বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে বিটল কৌশলে সালেহার শিশু সন্তান রকিবকে নিয়ে পালিয়ে যায়। এরপর ছোট চিকাশি গ্রামের তাহেরুল ইসলামের কাছে শিশুটিকে ৩০ হাজার টাকায় বিক্রির প্রস্তাব দেয় বিটল। শিশুটি বিক্রি নিয়ে দর কষাকষির সময় স্থানীয়দের সন্দেহ হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে শিশুটি উদ্ধার ও বিটল মিয়াকে আটক করে। থানা হাজতে আটক বিটল মিয়া জানান, বিয়ের প্রলোভনে সালেহার সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলেন তিনি। আর নেশার টাকা জন্য শিশু রকিবকে চুরি করেছেন। ধুনট থানার এসআই রফিকুল ইসলাম বলেন, শিশুটিকে তার মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। বিটল মিয়ার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।