লক্ষ্মীপুরে সংঘর্ষের মধ্যেদিয়ে ভোট গ্রহন শেষ,আহত ৩০ দুই কেন্দ্রের ভোট স্থগিত

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: | শনিবার, মে ৭, ২০১৬
লক্ষ্মীপুরে সংঘর্ষের মধ্যেদিয়ে ভোট
গ্রহন শেষ,আহত ৩০ দুই কেন্দ্রের ভোট স্থগিত
লক্ষ্মীপুরে চতুর্থ ধাপে ইউপি নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের মধ্যে দিয়ে ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে। এবং আহত হয়েছে অন্তত ৩০ জন। (আজ) শনিবার সকাল ১০ টা থেকে ১১ টার মধ্যে জাল ভোট দেয়া ও ভোটারদের প্রভাবিত করাকে কেন্দ্র করে লক্ষ্মীপুর সদরের টুমচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ও রায়পুরের বামনী ইউনিয়নের আল আমাীন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পৃথকভাবে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দুপুরে টুমচর ইউনিয়নে পশ্চিম কালিচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোট কেন্দ্রেডুকে ব্যালট পেপার চিনিয়ে নিয়ে ভোট দেয়ার অভিযোগে এনে ওই কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করে দেয় প্রিজায়ডিং অফিসার বেল্লাল হোসেন । অন্যদিকে রায়পুর উপজেলার কেরোয়া মানছুরা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে জাল ভোট দেয়াকে কেন্দ্র করে ভোট গ্রহণ স্থগিত করেছে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসার। এসময় জাল ভোট দেয়ার দায়ে ওই কেন্দ্র থেকে ৬ পোলিং এজেন্টকে আটক করা হয়েছে বলে জানান দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: শামীম হোসেন।
প্রত্যক্ষ দর্শী ও পুলিশ জানায়, টুমচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জাল ভোট দেয়া ও ভোটারদের প্রভাবিত করায় মেম্বার প্রার্থী ইসমাইল হোসেন(মোরগ প্রতীক) ও কামাল হোসেন (ফুটবল প্রতীক) এর সমর্থকদের  মধ্যে বাক বিতন্ডার এক পর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উভয়পক্ষের ২৫ জন আহত হন।
এ দিকে রায়পুরের বামনী ইউনিয়নের আল আমীন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে ৫ জন আহত হন।
আহতদের সদর হাসপাতালসহ প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এদিকে টুমচর মাদ্রাসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে রিয়াজুল করিম নামে নৌকা প্রতীকের এক এজেন্টকে আটক করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।