পাবনায় এক অপহরণকারি আটকসহ হিন্দু যুবক উদ্ধার

মানিক হোসেন,পাবনা সংবাদদাতা | বুধবার, মে ২৫, ২০১৬
পাবনায় এক অপহরণকারি আটকসহ হিন্দু যুবক উদ্ধার
পাবনার ভাঙ্গুড়া পৌরসভার মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল গ্রামবাসীর সহায়তায় মঙ্গলবার (২৪ মে) সকালে অপহরণকারি চক্রের এক সক্রিয় সদস্য কে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন। এসময় অপহরণকারিদের হাতে আটক এক হিন্দু সম্পাদয় যুবককে উদ্ধার করা হয়েছে। আটককৃত ব্যক্তির নাম মকবুল হোসেন(২৮)। সে ভাঙ্গুড়া পৌরসভার টলটলিয়াপাড়া গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে। উদ্ধারকৃত যুবক ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা থানার লাঙ্গলবাড়ি গ্রামের বিশ্বনাথ বিশ্বাস দৈউরীর ছেলে সনোত বিশ্বাস দৈউরী। তারা পেশায় মূর্তি কারিগর। উদ্ধারকৃত সনোত বিশ্বাস অপবাধ সংবাদকে বলেন, সোমবার সন্ধ্যায় পাবনা শহরে মূর্তি তৈরীর অর্ডার নিতে এসে বাসটার্মিনালে মকবুল হোসেনসহ কয়েক ব্যক্তির সঙ্গে একটি টেবিলে খেতে বসেন। তার পর তিনি কিছু বলতে পারেননি। তবে চেতনা ফিরে পেয়ে তিনি বাঁধের উপর একটি দোকানে কয়েকজনের সঙ্গে রয়েছেন বলে বুঝতে পারেন। এসময় মকবুল সনোতের নিকট থেকে তার পিতার মোবাইল নম্বর নিয়ে ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। সনোতের পিতা মকবুলের মোবাইলে ২০ হাজার টাকা বিকাশও করেন। কিন্তু পুরো টাকা না পাওয়া পর্যন্ত তারা সনোতকে পারভাঙ্গুড়া বাঁধের একটি দোকানে আটক রাখে। পায়খানা যাবার কথা বলে সনোত দৌড়িয়ে পালানোর চেষ্টা করেন। ভাঙ্গুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জাফর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে অপবাধ সংবাদকে বলেন, মঙ্গলবার পৌরসভার জগাতলা বাজারে অপরিচিত ঐ যুবককে দৌড়াতে দেখে ধরে ফেলেন নব-নির্বাচিত মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল ও স্থানীয় লোকজন। পরে  সনোতের কাছে সব কথা শুনে। তার কথার ভিত্তিতে মকবুলকে তার বাড়ি থেকে আটক করেন। মকবুল অপহরণকারি দলের একজন সক্রিয় সদস্য এবং এ ঘটনার সাথে কবির ও সুমন নামের আরও দু’ব্যক্তি জড়িত রয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় অপহরণ মামলা রুজু হয়েছে।