একজনকে হত্যার দায়ে সাতজনের ফাঁসি

জয়পুরহাট প্রতিনিধি, | বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০১৬
একজনকে হত্যার দায়ে সাতজনের ফাঁসি
একজনকে হত্যার দায়ে সাতজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছে জয়পুরহাটের একটি আদালত। আরও একজনকে দেয়া হয়েছে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আব্দুর রহিম এ আদেশ দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ওয়াজেদ আলী তোরাব, চৈতন মোল্লা, সাফাদুল, মচ্ছির উদ্দিন, মন্টু মিয়া, আনু এবং আবু হাসান দিলীপ। যাবজ্জীবন কারাদণ্ড পেয়েছেন মাহবুব আলম বাবু।

রায় ঘোষণার সময় সাতজন আদালতে উপস্থিত থাকলেও মন্টু মিয়া পলাতক। তাকে  গ্রেপ্তারে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০০৬ সালের ২৭ অক্টোবর সকালে সদর উপজেলার ধারকী গ্রামের আব্দুল মতিনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও লাঠি-সোটা দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

ওই রাতেই নিহতের ভাই জয়পুরহাট সদর থানায় নয়জনকে আসামি করে মামলা করেন। ২০০৭ সালের ৩০ মার্চ পুলিশ আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়। এতে বলা হয়, এলাকায় আধিপত্য নিয়ে মতিনের সঙ্গে আসামিদের দ্বন্দ্ব ছিল। আর পূর্ব শত্রুতার জেরে আসামিরা মতিনকে হত্যা করেছে।

নয় বছরের বেশি সময় ধরে আদালতে এই মামলা চলে। আর দুই পক্ষের শুনানি শেষে আট আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ হয় বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। অপর আসামি মোনতাজ মামলা চলাকালেই মারা যান।

বাদীপক্ষ এই আদালতের রায়ে সন্তোষ জানিয়ে দ্রুত রায় কার্যকরের দাবি জানিয়েছে। তবে আসামিপক্ষের আইনজীবীদের দাবি, তার মক্কেলরা ন্যায়বিচার পাননি। এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করার কথাও জানিয়েছেন ওই আইনজীবী।