ভান্ডারিয়ায় ফেসবুকে স্কুল ছাত্রীর ছবি পোস্ট দিয়ে অশ্লীল কথাবার্তা দুই বখাটের বিরুদ্ধে অভিযোগ

মোঃ মামুন হোসেন,পিরোজপুর প্রতিনিধি | রবিবার, সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৬
ভান্ডারিয়ায় ফেসবুকে স্কুল ছাত্রীর ছবি পোস্ট দিয়ে অশ্লীল কথাবার্তা
দুই বখাটের বিরুদ্ধে অভিযোগ

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় সপ্তম শ্রেণী পড়–য়া এক স্কুল ছাত্রীর মোবাইল ফোনে ছবি তুলে ফেসবুকে অশ্লীল কথাবার্তা লিখে পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে দুই বখাটে খায়রুল ফরাজি(২০) ও তার চাচাত ভাই ফোরকান ফরাজি(২০) নামে দুই বখাটের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ভূক্তভোগি স্কুল ছাত্রীর মা বাদি হয়ে ভান্ডারিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল কুদ্দুসের বরাবরে প্রতিকার চেয়ে আজ শনিবার লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
ইউএনও বরাবরে অভিযোগ দায়েরের পর অভিযুক্ত দুই বখাটে পলাতক।
অভিযুক্ত বখাটে খায়রুল উপজেলোর ইকড়ি ইউনিয়নের আতরখালী গ্রামের আবদুল মতিন ফরাজির ছেলে ও বখাটে ফোরকান প্রতিবেশী রহমান ফরাজির ছেলে।

ভূক্তভোগি স্কুল ছাত্রীর পরিবার  ও থানা সূত্রে জানাগেছে, ভান্ডারিয়া উপজেলার আতরখালী গ্রামের আতরখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণী পড়–য়া স্কুল ছাত্রীকে প্রতিবেশী দুই বখাটে মিলে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করে আসছিল। স্কুলে আসা যাওয়ার পথে প্রায় ওই দুই বখাটে উত্যক্ত করে ও অশ্লীল মন্তব্য করে।  বখাটে খায়রুল স্কুলে যাওয়ার পথে মোবাইল ফোনে ওই স্কুল ছাত্রীর ছবি তোলে । পরে  “বাংলা ভারত” নামে একটি  ফেসবুক আইডিতে ওই ছবি পোস্ট দিয়ে মেয়েটির নামে অশ্রাব্য অশ্লীল মন্তব্য লিখে পোস্ট দেয়। এ নিয়ে ওই স্কুল ছাত্রী গ্রামে ও স্কুলে বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে । অভিভাবকদের কাছে নালিশ করে কোন প্রতিকার না পেয়ে এ ঘটনার বিচার দাবিতে ভূক্তভোগি স্কুল ছাত্রীর মা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

ভান্ডারিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল কুদ্দুস অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে ওই আইডির এডমিন এর পরিচয় বের করে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এবং অভিযুক্তদের মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তাকে ডাকতে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে এবং নোটিস দিতে বলেছি। ঘটনার প্রমান পাওয়া গেলে মোবাইল র্কোটের মাধ্যমে তথ্য প্রযুক্তি আইনে সাজা দেয়া হবে।
মোঃ মামুন হোসেন
পিরোজপুর