চাঁদপুরে জাল টাকা নিয়ে শেখা কবিরাজসহ আটক ৩

চাঁদপুর প্রতিনিধি | বুধবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৬
চাঁদপুরে জাল টাকা নিয়ে শেখা কবিরাজসহ আটক ৩
 চাঁদপুর সদর উপজেলা ৩নং কল্যানপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড বাসিন্দা মো. শেকান্তর আহমেদ (শেখা কবিরাজ) দীর্ঘ দিন যাবৎ দাতব্য চিকিৎসা করে প্রতারনা চালিয়ে আসছে বলে জানায় স্থানীয়রা। তারা আরো জানায় তিনি বিভিন্ন সময়ে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করে মানুষের  পেট থেকে পাথর তোলার নাম করে বিভিন্ন নারীকে যৌনহয়রানী করে আসছে। শেখা কবিরাজের বিরুদ্ধে এমন একাধিক অভিযোগ রয়েছে বলে জানান। এমন অভিযোগে বিভিন্ন  সময় তাকে থানা পুলিশ ও ডিবি পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে বলে জানাযায়। তার পরও শাখা কবিরাজ থেমে নেই। দিনের পর দিন কবিরাজি পেশা ছালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু কবিরাজি পেশার পাশা-পাশি তিনি জাল টাকা ব্যবসা করে আসছে। আজ ২১ সেপ্টেম্বর  সকাল ১০টায় চাঁদপুর ডিবি পুলিশের এসআই খন্দকার ইসমাইল হোসেন সঙ্গি ও পোর্স নিয়ে গোপন সংবাদরে ভিত্তিতে শেখা কবিরাজের বাড়ি তল্যাশি করে নগদ ১ হাজার টাকার ৩০টি জাল নোটসহ তাকে আটক করে। এই সময় শেখা কবিরাজকে জিজ্ঞাসাবাদের ভিত্তিতে বড় ছেলে মো. ফারুক ও ছোট ছেলে হাবিবকে আটক করে নিয়ে আসে।
স্থানীয়রা জানান, শেখা কবিরাজ চিকিৎসার নামে বিভিন্ন সময়ে অসহায় মেয়েদের যৌনহয়রানী করে আসছে।
ডিবি পুলিশের এসআই খন্দকার মো. ইসমাইল হোসেন জানান, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ জালটাকার ব্যবসা করছে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের আটক করা হয়েছে। আটক কৃতদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।