আমতলীতে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারী বই বিক্রির অভিযোগ

বরগুনা প্রতিনিধি, | রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৬
আমতলীতে প্রধান শিক্ষকের
বিরুদ্ধে সরকারী বই বিক্রির অভিযোগ
বরগুনার আমতলী উপজেলার সদর ইউনিয়নের ছোট নাচনাপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শামসুন্নাহার লিমা বুধবার সকালে স্কুলে সংরক্ষিত ২০১৬ সালের বিভিন্ন শ্রেণীর সরকারী বই কেজি মূলে বিক্রি করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বিক্রিত বইগুলো জব্দ করে প্রধান শিক্ষককে তার দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দিয়েছে।
স্কুলের সহকারী শিক্ষিকা মনিরা আক্তার, তানজিলা আক্তার ও সোনিয়া আক্তার জানান, এ বছর জানুয়ারী মাসে ছোট নাচনাপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রনালয় থেকে বিভিন্ন শ্রেণীর বই সরবরাহ করা হয়। শিক্ষার্থীদের মাঝে সেই বই বিতরনের পরে অবশিষ্ট বিভিন্ন শ্রেণীর বই স্কুলের গুদামে সংরক্ষণ করা হয়। সেই সংরক্ষিত ২৬ কেজি বই প্রধান শিক্ষক শামসুন্নাহার লিমা কেজি মূলে বিক্রি করে। ঘটনার দিন বস্তা ভর্তি করে বইগুলো যখন ভ্যান গাড়ীতে তুলে দেওয়া হয় তখন আমরা  তিনজন শিক্ষিকা এতে বাঁধা দেই। ভ্যান চালক অবস্থা বেগতিক দেখে ভ্যান রেখে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শামসুন্নাহার লিমা জানান, আমি কোন বই বিক্রি করিনি, এসবই আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। এ বিষয়ে সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতিমা বেগম জানান, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে একবস্তা বই জব্দ করেছি।
আমতলী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) জাহিদুল ইসলাম অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বস্তাভর্তি বইগুলো জব্দ করা হয়েছে। প্রধান শিক্ষক শামসুন্নাহারকে তার দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দিয়ে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতিমা বেগমকে প্রধান শিক্ষকের (ভারপ্রাপ্ত) দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।