হবিগঞ্জে চা উৎপাদনে নতুন রেকর্ড

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি, | শনিবার, নভেম্বর ১২, ২০১৬
হবিগঞ্জে চা উৎপাদনে নতুন রেকর্ড
হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে লস্করপুর ভ্যালিতে চা উৎপাদনের নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। চা শিল্পের প্রায় ১৬১ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম ভ্যালিতে চলতি মৌসুমের অক্টোবর পর্যন্ত সর্বোচ্চ উৎপাদন অর্থাৎ ১ কোটি ১২ লাখ ৯৫ হাজার ৮২১ কেজি চা উৎপাদিত হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় ৩৬.৭৫ শতাংশ বেশি বলে জানা যায়।

এছাড়া মৌসুমের দুই মাস বাকি থাকতেই ভ্যালিতে সর্বোচ্চ উৎপাদনের রেকর্ড ১ কোটি ১০ লাখ কেজি ছাড়িয়ে গেছে। চলতি মাসে বৃষ্টি হওয়ায় নভেম্বর ও ডিসেম্বর মাসে উৎপাদনের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলে বাগান সূত্র জানিয়েছে। এতে চায়ের উৎপাদন আরও বাড়তে পারে। রেকর্ড উৎপাদনের কারণে চা দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানিতে নতুন যুগে প্রবেশ করতে পারে চা শিল্প।

চা বাগান ও ভ্যালি সূত্রে জানা যায়, চা শিল্পকে টিকিয়ে রাখায় বাগান ব্যবস্থাপনায় আমূল পরিবর্তন, আবহাওয়া অনুকূলে থাকা চলতি বছর আগাম বৃষ্টি হওয়ায় এবং রোগ বালাই কম থাকার কারণে চলতি মৌসুমে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার লস্করপুরে ভ্যালির ১৭টি চা বাগানে ৩৬.৭৫ শতাংশ চা বেশি উৎপাদন হয়েছে।

২০১৫ সালে ৮ মাসে উৎপাদিত হয়েছিল ৮২ লাখ ৫৯ হাজার ৯৫০ কেজি চা। চলতি বছর এ সময়ে ভ্যালিতে উৎপাদিত হয়েছে ১ কোটি ১২ লাখ ৯৫ হাজার ৮২১ কেজি চা। যা গত বছরের চেয়ে ৩০ লাখ ৩৬ হাজার কেজি বেশি। এটি ভ্যালির ইতিহাসে এবারই প্রথম। এর মধ্যে শুধু অক্টোবর মাসেই ভ্যালিতে উৎপাদন ২৪ লাখ ১৮ হাজার ৫৭১ কেজি।

২০১৫ সালে ভ্যালিতে একই সময়ে উৎপাদিত হয়েছিল ১৯ লাখ ১১ হাজার ৭৯৯ কেজি চা।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালে ভ্যালিতে সর্বোচ্চ ১ কোটি ৯ লাখ কেজি তৈরি চা উৎপাদিত হয়েছিল। চা সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন নভেম্বর ও ডিসেম্বর মাসেও উৎপাদনের ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। এ নিয়ে চা সংশ্লিষ্টদের মধ্যে নতুন আশার সঞ্চার হয়েছে।

চুনারুঘাটের দেউন্দি চা বাগানের সিনিয়র ব্যবস্থাপক রিয়াজ উদ্দিন বলেন, চলতি বছর আগাম বৃষ্টি, অনুকূল আবহাওয়া ও পরিবেশ, নতুন চা এলাকা সম্প্রসারণ, ক্লোন চা গাছের ব্যবহার বৃদ্ধি এবং চা বোর্ডের নজরদারির ফলে চলতি মৌসুমে চা শিল্পের ইতিহাসে সর্বোচ্চ চা উৎপাদিত হয়েছে।

লস্করপুর ভ্যালির চেয়ারম্যান ও চাকলাপুঞ্জি চা বাগানের ব্যবস্থাপক এসসি নাগ জানান, চা বোর্ড এবং বাগান ব্যবস্থাপকদের আন্তরিক চেষ্টা, আগাম ও পরিমিত বৃষ্টি এবং চা শ্রমিকদের আপ্রাণ চেষ্টার কারণেই এবার ভ্যালিতে রেকর্ড উৎপাদন বেড়েছে। আশা করি, এ ধারা অব্যাহত থাকবে।