কলাপাড়ায় সন্ত্রাসী হামলা পাঁচ কলেজ শিক্ষার্থীসহ অভিভাবককে কুপিয়ে জখম

কলাপাড়া প্রতিনিধি, | শনিবার, নভেম্বর ১২, ২০১৬
কলাপাড়ায় সন্ত্রাসী হামলা
পাঁচ কলেজ শিক্ষার্থীসহ অভিভাবককে কুপিয়ে জখম
মোজাহারউদ্দিন বিশ্বাস অনার্স কলেজের পাঁচ শিক্ষার্থীসহ এক অভিভাবককে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে কলেজের পেছনে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। আহতরা হচ্ছে সুজন হোসেন, সজিব হাওলাদার, শওকত হোসেন, রাজিব সরদার, রিসান সরদার ও অভিভাবক আবু হানিফ। এদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে যায়। এর মধ্যে তিনজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। বহিরাগত সন্ত্রাসীদের আড্ডার জের ধরে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, শনিবার সকালে মোজাহারউদ্দিন বিশ্বাস অনার্স কলেজের উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণির এক শিক্ষার্থী বহিরাগতদের নিয়ে কলেজ ক্যাম্পাসে আড্ডা দিচ্ছিল। এসময় একই কলেজের উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণির দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থীর আধিপত্যের বিস্তার নিয়ে বাক বিতন্ডা হয়। এ ঘটনার জের ধরে বহিরাগত সন্ত্রাসীরা কলেজের শিক্ষার্থীদের কুপিয়ে জখম করে। এসময় অভিভাবক আবু হানিফ কলেজ ছাত্রদের রক্ষায় এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা তাকেও কুপিয়ে জখম করে। এ ঘটনার পর সিকদার সড়ক এলাকার একটি ক্লাব ঘরের আসবাব পত্র ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান ছাত্রলীগের সুজন ও সোহান গ্রুপের দ্বন্ধে এ ঘটনা ঘটে। কলেজের অধ্যক্ষ মো: দেলওয়ার হোসেন জানান, কলেজ ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের আড্ডার জেরে কোন সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা তার জানা নেই। তবে কলেজের পেছনের গেট এলাকায় বহিরাগত সন্ত্রাসীদের উপদ্রবের বিষয়টি পুলিশ প্রশাসনকে কয়েকবার জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি। কলাপাড়া থানার ওর্সি জিএম শাহনেওয়াজ জানান, কলেজ ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের আড্ডার জেরে এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে শহরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা সন্ধ্য ৬টা পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি।